ড. সা'দত হুসাইন (২৪ নভেম্বর ১৯৪৬ - ২২ এপ্রিল ২০২০) ছিলেন একজন বাংলাদেশী আমলা এবং দেশের অন্যতম প্রধান সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান 'বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন'-এর নবম চেয়ারম্যান।[২] এছাড়া তিনি বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের প্রধান তথা বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রীপরিষদ সচিব হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

ড. সা'দত হুসাইন
Dr.SadaatHussain2011-3.jpg
বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন
কাজের মেয়াদ
৯ মে ২০০৭ – ২৩ নভেম্বর ২০১১
পূর্বসূরীপ্রফেসর ড. জিনাতুন নেসা তাহমিনা বেগম
উত্তরসূরীএ. টি. আহমেদুল হক চৌধুরী পিপিএম
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম(১৯৪৬-১১-২৪)২৪ নভেম্বর ১৯৪৬
নোয়াখালী জেলা, ব্রিটিশ ভারত (বর্তমান বাংলাদেশ)
মৃত্যু২২ এপ্রিল ২০২০(2020-04-22) (বয়স ৭৩)
ঢাকা, বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
দাম্পত্য সঙ্গীশাহানা চৌধুরী[১]
সন্তানএক ছেলে ও দুই মেয়ে
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
বস্টন বিশ্ববিদ্যালয়
ধর্মইসলাম

হুসাইন একজন মুক্তিযোদ্ধা। ১৯৭১ এর প্রবাসী বাংলাদেশ সরকারে তিনি কাজ করেছিলেন। চাকুরী জীবনে তিনি সততা, কর্মদক্ষতা, নিরপেক্ষতা ও চারিত্রিক দৃঢ়তার জন্য প্রসিদ্ধি লাভ করেছিলেন। তিনি ছিলেন নিয়মানুবর্তী ও নীতিপরায়ণ।[৩][৪]

জীবনীসম্পাদনা

সা’দত হুসাইন ১৯৪৬ সালের ২৪শে নভেম্বর নোয়াখালী জেলাতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি বিষয়ে অধ্যয়ন করেন। ১৯৮৭ সালে তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বস্টন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।[৫]

সা'দত হুসাইনের স্ত্রী শাহানা চৌধুরী ১৩ মে ২০২০ তারিখে মারা যান। তাদের এক পুত্র শাহজেদ সা’দত, এবং দুই কন্যা রয়েছে।[১]

কর্মজীবনসম্পাদনা

শিক্ষাজীবন শেষে পাকিস্তান আমলে ১৯৭০ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে সিভিল সার্ভিস অব পাকিস্তানে (সিএসপি) যোগ দেন। ১৯৭১ তিনি নড়াইলে শিক্ষানবিশ কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত অবস্থায় মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়। তিনি এপ্রিল মাসে ভারত গমন করেন এবং প্রবাসী বাংলাদেশ সরকারে যোগ দেন। মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ নিয়ে তাঁর গ্রন্থ “মুক্তিযুদ্ধের দিন-দিনান্ত’’ মাওলা ব্রাদার্স কর্তৃক ২০১২ সালে প্রকাশিত হয়।

তিনি ২০০২-২০০৫ মেয়াদে মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসাবে দায়িত্ব পালনকালে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস থেকে যথারীতি অবসর গ্রহণ করেন। ২০০৭ সালে তিনি বাংলাদেশ পাবলিক কমিশনের চেয়ারম্যান হিসাবে নিযুক্তি লাভ করেন এবং ২০১১ পর্যন্ত এ পদের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যানের পদ সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে চাকুরি করেছেন। চাকুরি জীবনের শেষ পর্যায়ে তিনি মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসাবে দায়িত্ব পালনকারী সা'দত হুসেন ছিলেন বাংলাদেশের সরকারি চাকুরির জন্য নিয়োগ প্রদানকারী কর্তৃপক্ষ 'বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন'-এর নবম চেয়ারম্যান; প্রফেসর ড. জিনাতুন নেসা তাহমিনা বেগমের অবসর গ্রহণের পর ২০০৭ সালের ৯ মে তারিখে তিনি চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব লাভ করেন এবং ২০১১ সালের ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত এই পদে অধিষ্ঠিত থাকেন।[২]

মৃত্যুসম্পাদনা

সা’দত হুসাইন ২০২০ সালের ২২শে এপ্রিল ৭৩ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি কিডনি, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিসে ভুগছিলেন এবং ১৩ই এপ্রিল অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।[৬] সেদিন থেকে তিনি অচেতন ছিলেন এবং ২২শে এপ্রিল শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।[৭]

প্রকাশিত গ্রন্থসম্পাদনা

অবসর জীবনে তিনি লেখালেখি করেছেন। তার লেখা কয়েকটি উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ হলো "ছেঁড়া কথার উড়াল ফানুস", "নীচু স্বরে উঁচু কথা", "স্মৃতি-প্রীতির সজীব পাতা", "রুক্ষ সূক্ষ হীর মুক্তো"। এছাড়া তিনি একটি কাব্যগ্রন্থ প্রকাশ করেন।

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "সা'দত হুসাইনের স্ত্রী শাহানা চৌধুরী মারা গেছেন"prothomalo.com। ১৩ মে ২০২০। সংগ্রহের তারিখ মে ১৩, ২০২০ 
  2. "বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশনের চেয়ারম্যান"। ২৬ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০১৫ 
  3. "সাবেক মন্ত্রিপরিষদসচিব ড. সা'দত হুসাইন | কালের কণ্ঠ"Kalerkantho। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০৪ 
  4. ডটকম, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর। "পরীক্ষা পদ্ধতিরও সংস্কার দরকার: সা'দত হুসাইন"bangla.bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০৪ 
  5. "সাবেক সচিব সা'দত হুসাইন নেই"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। ২২ এপ্রিল ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০২০ 
  6. "ড. সা'দত হুসাইন আর নেই"বাংলাদেশ প্রতিদিন (ইংরেজি ভাষায়)। ২২ এপ্রিল ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০২০ 
  7. "ড. সা'দত হুসাইন আর নেই"জাগো নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২২ এপ্রিল ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০২০ 

বহি:সংযোগসম্পাদনা