সাপ্তাহিক বিচিত্রা

বাংলাদেশের একটি অধুনালুপ্ত সাপ্তাহিক পত্রিকা

সাপ্তাহিক বিচিত্রা বাংলাদেশের একটি অধুনালুপ্ত সাপ্তাহিক পত্রিকা। ১৯৭২ খ্রিষ্টাব্দে দৈনিক বাংলা পত্রিকার সহযোগী প্রকাশনা হিসাবে এটি আত্মপ্রকাশ করে। তখন থেকে শুরু করে নব্বইয়ের দশকের মাঝামাঝি পর্যন্ত এটি বাংলাদেশের প্রধান জনপ্রিয় পত্রিকা হিসাবে চালু ছিল। আলমগীর রহমান, শাহরিয়ার কবির, শাহাদত চৌধুরীচট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক আতিকুর রহমান প্রমুখ সাংবাদিক এই পত্রিকার সাথে জড়িত ছিলেন।

বিভিন্ন সময়ের সম্পাদকসম্পাদনা

 
সাপ্তাহিক বিচিত্রার প্রথম বর্ষ ১ম সংখ্যার প্রচ্ছদ

১৯৭২ সালের ১৮ মে সাপ্তাহিক বিচিত্রার ১ম বর্ষ, প্রথম সংখ্যার আত্মপ্রকাশ ঘটে।[১] প্রথমে এটির সম্পাদক ছিলেন ফজল শাহাবুদ্দীন[২] সহকারী সম্পাদক ছিলেন শাহাদত হোসেন। শিল্প সম্পাদক ছিলেন কালাম মাহমুদ। সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি ছিলেন হাসান হাফিজুর রহমান। সম্পাদকীয় সহকারী ছিলেন আহরার আহমেদ এবং শাহরিয়ার কবির। এর পরে নুরুল ইসলাম পাটোয়ারী সাপ্তাহিক বিচিত্রার সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। শাহাদত চৌধুরী এই পত্রিকার সম্পাদকের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন অনেক পরে। শামসুর রাহমান ১৯৭৭ থেকে ১৯৮৭ পর্যন্ত দীর্ঘ দশ বছর এই পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন।[৩] শুরু থেকেই এই পত্রিকাটি পাঠকের মন জয় করে নেয়, এর অনুসন্ধানী প্রতিবেদনগুলোর মধ্য দিয়ে।

প্রথম এবং শেষ সংখ্যাসম্পাদনা

বিচিত্রার প্রথম সংখ্যা প্রকাশিত হয় ১৯৭২ সালের ১৮ মে এবং শেষ সংখ্যা প্রকাশিত হয় ১৯৯৭ সালের ৩১ অক্টোবর।[৪]

অবলুপ্তির কারণসম্পাদনা

১৯৯৬ সালে দৈনিক বাংলা সহ বিচিত্রার মালিকান বদল হয়। পরে বিচিত্রার জনপ্রিয়তা কমে গেলে পত্রিকাটি বন্ধ করে দেয়া হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

সাপ্তাহিক বিচিত্রা প্রথম বর্ষ ১ম সংখ্যা থেকে।.