সানা মারিন

ফিনিশীয় রাজনীতিবিদ

সানা মিরেলা মারিন (জন্ম ১৬ নভেম্বর ১৯৮৫) হলেন একজন ফিনীয় রাজনীতিবিদ। সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট দলের সদস্য মারিন ২০১৫ সাল থেকে ফিনল্যান্ডের সংসদে অধিষ্ঠিত এবং ২০১৯ সালের ৬ই জুন থেকে দেশটির পরিবহন ও যোগাযোগ মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[১]

সানা মারিন
Sanna Marin (cropped).jpg
ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী
দায়িত্ব গ্রহণ
১০ ডিসেম্বর ২০১৯
রাষ্ট্রপতিসাউলি নিনিস্তো
যার উত্তরসূরীআন্টি রিনে
পরিবহন ও যোগাযোগ মন্ত্রী
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
৬ জুন ২০১৯
প্রধানমন্ত্রীআন্টি রিনে
পূর্বসূরীআনু ভেভিলাইনেন
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মসানা মিরেলা মারিন
(1985-11-16) ১৬ নভেম্বর ১৯৮৫ (বয়স ৩৫)
হেলসিঙ্কি, ফিনল্যান্ড
রাজনৈতিক দলসোশ্যাল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি
দাম্পত্য সঙ্গীমার্কুস রাইকোনেন
সন্তান
শিক্ষাতামপেরে বিশ্ববিদ্যালয়

আন্টি রিনে তার প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ালে ফিনল্যান্ডের সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি মারিনকে ২০১৯ সালের ৮ই ডিসেম্বর তাদের নতুন প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত করেন।[২] প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেলে তিনি হবেন বর্তমান বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী এবং ফিনল্যান্ডের সর্বকনিষ্ঠ ও তৃতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী।[৩]

জন্ম ও শিক্ষা জীবনসম্পাদনা

মারিন ১৯৮৫ সালের ১৬ই নভেম্বর হেলসিঙ্কিতে জন্মগ্রহণ করেন।[৪][৫] তামপেরে শহরে যাওয়ার আগে তিনি এস্পো এবং পিরকালায়ও বসবাস করতেন।[৪] তিনি যখন খুবই ছোট তখন তার পিতামাতা আলাদা হয়ে যান। তার পরিবার আর্থিক সমস্যায় ছিল এবং মারিনের পিতা লরি মারিন[৬] মদ্যপানে আসক্ত ছিলেন। তার পিতামাতার আলাদা হয়ে যাওয়ার পর তার মাতা ও নারী সঙ্গী তাকে লালনপালন করে, যাকে মারিন "রেইনবো পরিবার" বলে অভিহিত করেন।[৭][৮][৯]

মারিন ২০০৪ সালে ১৯ বছর বয়সে পিরকালা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা সমাপ্ত করেন।[১০] ২০০৬ সালে তিনি সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটিক ইয়থে যোগদান করেন এবং ২০১০ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত এই দলের সহ-সভাপতি ছিলেন।[১১][৪] তিনি তামপেরে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রশাসনিক বিজ্ঞানে স্নাতক ও ২০১২ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।[৮][১২] এইখানে পড়াশোনারত অবস্থায় তিনি একটি বেকারিতে হিসাবরক্ষক হিসেবে কাজ করতেন।[১২][১৩]

রাজনৈতিক জীবনসম্পাদনা

সানা ২০১২ সালে তামপেরের সিটি কাউন্সিলের নির্বাচিত হয়েছিলেন। [১৪][১৫] তিনি ২০১৩ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত সিটি কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ছিলেন। ২০১৭ সালে, তিনি সিটি কাউন্সিলের পুনর্নির্বাচিত হয়েছিলেন। [১৬] তিনি তামপেরে অঞ্চল কাউন্সিলের অ্যাসেমব্লির সদস্যও। [১৩]

সানা ২০১৪ সালে সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির দ্বিতীয় উপ-সভাপতির পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন।[১৩] ২০১৫ সালে তিনি পিরকানমা নির্বাচনী জেলা থেকে ফিনল্যান্ডের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। [১৭] চার বছর পরে তিনি আবার নির্বাচিত হন[১৮] ২০১৯ সালের ৬ই জুন তিনি পরিবহন ও যোগাযোগমন্ত্রী হন।

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

সানা মারিন দু'জন সমকামী মায়ের সন্তান। [১৯] দীর্ঘদিনের সঙ্গী মার্কুস রাইকোনেনের সাথে তাঁর একটি সন্তান রয়েছে।[২০]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Sanna Marin"ফিনল্যান্ডের সংসদ (ফিনিশ ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  2. "Finland's Social Democrats name Marin to be youngest ever prime minister"রয়টার্স (ইংরেজি ভাষায়)। ৮ ডিসেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  3. "Finland anoints Sanna Marin, 34, as world's youngest-serving prime minister"দ্য গার্ডিয়ান (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ ডিসেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  4. Marin, Sanna (ডিসেম্বর ১৯, ২০১৯)। "Kuka Sanna? ja Ansioluettelo" ["Sanna who?" and "Resume"]। SannaMarin.net (self-published autobiography)। ২০১৯-১২-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০২০ 
  5. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; nyt নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  6. "The father of Prime Minister Sanna Marini is dead"Teller Report। ২ জুলাই ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২ জুলাই ২০২০ 
  7. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; bbc-9dec2019 নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  8. Burtsov, Petri; Heikkilä, Melissa (১২ ডিসেম্বর ২০১৯)। "Comrades, meet Finland's new PM"Politico। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০২০ 
  9. Sandelius, Ninni (জানুয়ারি ২০১৮)। "Sanna Marin: "Juurettomuus pakottaa minut katsomaan tulevaan""। Eeva। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০২০ 
  10. Esfandiari, Sahar। "The rapid rise of Sanna Marin, the 34-year-old Finnish woman set to become the youngest serving world leader"Business Insider। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০২০ 
  11. Hemmilä, Ilkka (১৮ মে ২০১৮)। "SDP:n uraohjus nousi 10 vuodessa Pirkanmaan ääniharavaksi – Sanna Marin haluaa ravistella puolueita"Maaseudun Tulevaisuus (ফিনিশ ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০২০ 
  12. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; how নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  13. Sanna Marin Parliament of Finland (in Finnish). Retrieved 10 January 2017.
  14. "Finland anoints Sanna Marin, 34, as world's youngest-serving prime minister"The Guardian। ৯ ডিসেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  15. Candidates elected Tampere Ministry of Justice of Finland. Retrieved January 10, 2017.
  16. "Elected"vaalit.fi। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুলাই ২০১৭ 
  17. Candidates elected Ministry of Justice of Finland. Retrieved January 10, 2017.
  18. "Valitut"tulospalvelu.vaalit.fi। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-০৩ 
  19. "Uusi valtuuston puheenjohtaja jakoi nuorena Tamperelaista" (Finnish ভাষায়)। Tamperelainen। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৩। ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  20. Matson-Mäkelä, Kirsi (২০১৯-০১-৩১)। "Kansanedustaja Sanna Marinille syntyi vauva"Yle Uutiset (ফিনিশ ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-০৩ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

রাজনৈতিক দপ্তর
পূর্বসূরী
আন্টি রিনে
ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী
২০১৯
অভিষিক্ত হননি