সাইফুল ইসলাম (মুফতি)

ইসলামি পণ্ডিত

সয়ফুল ইসলাম একজন ইসলামী পণ্ডিত এবং ইংল্যান্ডের ব্র্যাডফোর্ডের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত একটি ইসলামিক বিদ্যালয় জামিয়ায় খাতামুন নবীয়েন (জে কেএন) এর প্রতিষ্ঠাতা, অধ্যক্ষ ও পরিচালক। তিনি ব্র্যাডফোর্ডের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় পণ্ডিত এবং লেকচারার , শিক্ষা এবং বই লেখার ক্ষেত্রে তার বড় অবদানের জন্য জাতীয়ভাবেও স্বীকৃত।[১] তিনি ইসলামের শাস্ত্রীয় শিক্ষার পণ্ডিত এবং ইসলামী বিজ্ঞান এবং শাস্ত্রীয় শিক্ষাদান পদ্ধতির প্রচার করছেন। [২] তিনি স্থানীয়ভাবে, জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে অন্যান্য অনেক বিভাগে দায়িত্বরত। তিনি একটি পারিবারিক ম্যাগাজিন "আল মু'মিন" এর সম্পাদক। [৩]


সাইফুল ইসলাম
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম (1974-08-06) ৬ আগস্ট ১৯৭৪ (বয়স ৪৯)
ধর্মইসলাম
জাতিসত্তাবাংলাদেশী, ব্রিটিশ
আখ্যাসুন্নি
ব্যবহারশাস্ত্রহানাফি
ধর্মীয় মতবিশ্বাসদেওবন্দি
প্রধান আগ্রহইসলাম, হাদিস, তাফসীর, ফিকহ
এর প্রতিষ্ঠাতাজামিয়া খাতামুন নাবিয়ীন
মুসলিম নেতা
শিক্ষকইউসুফ মুতালা
ভিত্তিকব্র্যাডফোর্ড
যার দ্বারা প্রভাবিত
  • শাইখুল হাদীস শায়খ ইউসুফ মোতলা রহ,শাইখ মুফতী তাহির সোফির, শায়খ মুহাম্মদ উমরজি,শায়খুল-হাদীস শায়খ ইসলামুল-হক মুহাজির মাদানী

প্রাথমিক জীবন

সম্পাদনা

মুফতী সাইফুল ইসলাম ১৯৭৪ সালে আগস্টে বাংলাদেশের সিলেট, বিশ্বনাথ জেলার দুহাল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। [৪] তার পিতা মুহাম্মদ আলী এবং তার দাদা ছিলেন সোয়েদ আলী। তারা চার ভাই ও তিন বোনের মধ্যে তিনি সবার বড়। প্রথমে তার পরিবারের প্রবীণরা তাকে শামসুল ইসলাম নাম দিয়েছিলেন কিন্তু পরে তার চাচা তার ডাক নাম সাইফুল ইসলাম রাখেন। ১৯৮১ সালের ১ মার্চ,মুফতী সাইফুল ইসলামের পিতা পরিবারকে যুক্তরাজ্যে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। তারা যুক্তরাজ্যের ইংল্যান্ডের ইয়র্কশায়ার অঞ্চলে অবস্থিত ব্র্যাডফোর্ড শহরে বসবাস করেন।

শিক্ষা এবং পড়াশোনা

সম্পাদনা

১৯৮৭ সালে ১৩ বছর বয়সে সাইফুল ইসলাম সফলতার সাথে যুক্তরাজ্যের ব্র্যাডফোর্ডের স্থানীয় মক্তব, তাওয়াক্কুলিয়া জামে মসজিদে তার হিফজুল-কুরআন (কোরআনের স্মৃতি) সফলভাবে সম্পন্ন করেছিলেন। তিনি বেসিক উর্দু, ফিকহ, ইসলামিক ইতিহাস, সরফ (ব্যুৎপত্তি) এবং নাহু (সিনট্যাক্স) অধ্যয়ন করেন। ১৯৮৮ সালে সাইফুল ইসলামকে ইসলামের ক্ষেত্রে আরও জ্ঞান অর্জনের জন্য দারুল উলূমে ব্যারিতে ভর্তি করা হয়েছিল। তিনি তখন বিখ্যাত দাঈ ইউসুফ মুতালা সাহেবের সাথে প্রথম সাক্ষাত করেন। সাইফুল ইসলাম উসূলে শরীয়ত, আরবী সাহিত্য, উর্দু, ফিকহ, ইসলামী ইতিহাস, সরফ (ব্যুৎপত্তি) এবং মুফতী তাহির সোফিরের অধীনে নাহু (সিনট্যাক্স) এবং শায়খ সালিম দহুরাতের অধীনে মীরাস (উত্তরাধিকারসূত্র) পড়াশোনা করেছেন।এবং শায়খ মুহাম্মদ উমরজি কাছে ও তিনি পড়েছেন। ১৯৯৫ সালে বিশ বছর বয়সে সাইফুল ইসলাম দারুল উলূম ব্যারি থেকে দাওরায়ে হাদিস (স্নাতক) শেষ করেন এবং প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে আলিম উপাধি লাভ করেন। তার চূড়ান্ত শিক্ষাবর্ষে তিনি দারুল-উলূম, ব্যারিতে বিশিষ্ট পণ্ডিতদের দ্বারা সিহা-সিত্তার ৬ টি কিতাব অধ্যয়ন করেছিলেন। ইসলামুল-হক মুহাজির মাদানীর অধীনে সহীহ আল-বুখারী, ইউসুফ মুতালার কাছে সহীহ আল-মুসলিম, হাশিম ঝোঘোয়ারি কাছে আবু দাউদ, বিলাল বাওয়া এবং আবদুর রহিম লিম্বদার কাছে ইবনে মাজাহ । ১৯৯৬ সালে তিনি ইফতা কোর্স সম্পন্ন করেন এবং প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে মুফতি উপাধি লাভ করেন।

জে কেএন প্রতিষ্ঠা

সম্পাদনা

১৯৯৬ সালে মুফতি সাইফুল ইসলাম জামিয়া খাতামুন নবীয়ীন নামে একটি মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেন তার সংক্ষিপ্ত নাম হচ্ছে জে কে এন ।

দায়িত্ব

সম্পাদনা

পাশাপাশি জামেয় খাতামুন নবীয়ীন (জে কেএন ইনস্টিটিউট) এর প্রতিষ্ঠাতা, অধ্যক্ষ ও পরিচালক, শাইখ মুফতি সয়ফুল ইসলাম স্থানীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে অন্যান্য অনেক বিভাগে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। তিনি ‘আল মু’মিন ম্যাগাজিনের সম্পাদকও। তিনি বর্তমানে তাওয়াক্কুলিয়া জামে মসজিদের সভাপতির পদে রয়েছেন। আল কাওথার ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান। ইউকে শাখায় জমিয়তুল উলামা বাংলাদেশের সচিব। মজলিস তাহাফুজ-এ-খাতমে-নবুওয়াত (ব্র্যাডফোর্ড) এর ভাইস-চেয়ারপারসন এবং ওল্ডহ্যামের ইজহার-হকের ভাইস-চেয়ারপারসন। [৫] তিনি আল মু'মিন প্রাথমিক বিদ্যালয়, বালক ও বালিকা উভয়ের জন্য অলিভ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ও ওল্ডহ্যামের আল-হুদা একাডেমির পৃষ্ঠপোষকও।আরো শায়খ মুফতী সয়ফুল ইসলাম হলেন জামিয়া জাকারিয়ার প্রতিষ্ঠাতা ও পৃষ্ঠপোষক, সিলেটের বিশ্বনাথের জামিয়া আল-কাওসার এর দায়িত্বশীল।

শিক্ষতা

সম্পাদনা

শায়খ মুফতী সয়ফুল ইসলাম তার ছাত্রত্ব থেকেই দারুল উলূম, বুড়িতে ছাত্র-ছাত্রী কে কুরআন ও ইসলামিক জ্ঞান শিক্ষা দিয়ে আসছিলেন। জে কেএন প্রতিষ্ঠার পর থেকেই তিনি আরবি, ফিকহ ও তাজবীদ, উসোল, হাদীস ও তাফসিরের প্রতিটি বিষয় শিক্ষাদান করেন ।

লেখা বই

সম্পাদনা
  • Your Questions Answered,লেখা তার প্রথম বইটি দীর্ঘমেয়াদী একটি প্রকল্প ছিল। দারুল উলূমে, বুড়িতে তার ইফতার সময় শাইখ মুফতি সয়ফুল ইসলামকে কোর্সটি সমাপ্তির অংশ হিসাবে সমসাময়িক ফতওয়া সম্পর্কে গবেষণা এবং উত্তর দেওয়ার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। তিনি অসংখ্য ফতওয়াতে কাজ করেন এবং শেষ পর্যন্ত একজন যোগ্য ও অনুমোদিত মুফতি হওয়ার জন্য ইফতার কোর্স সম্পন্ন করেন।
  • Heroes of Islam,
  • Pearls of the Prophet SAW – Commentary
  • Saheeh Al-Bukhari (due to be released in April 2014),
  • Pearls of Wisdom,
  • Miracle of the Holy Qur'an,
  • Stories for Children,
  • Islamic Poems,
  • Clear Proofs of Allāh,
  • Who is the Monkey?,
  • The Miracles of the Holy Prophet,
  • What's with the Monkey Business?,
  • Ziyārat of Madeenah Munawwarah and Ādābul Muāsharāt,
  • Du'ā for Beginners,
  • Hadeeth for Beginners,
  • How Well Do You know Islām?,
  • Arabic for Beginners,
  • Marriage – A Complete Solution,
  • A Gift to My Youngsters,
  • Treasures of the Holy Qur'an,
  • Pearls of Luqmān,
  • Advice for the Students of Knowledge and Travel Companion.

আরও দেখুন

সম্পাদনা

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. ""লেখক মুফতি সাইফুল ইসলাম"। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  2. Depository, Book. "Arabic Grammar for Beginners : Shaykh Mufti Saiful Islam :ISBN 9780956550477". bookdepository.com.5 March 2017 Retrieved . |শিরোনাম= "Arabic Grammar for Beginners : Shaykh Mufti Saiful Islam |সংগ্রহের-তারিখ= 5 March 2017}}
  3. ""জীবনী মুফতি সাইফুল ইসলাম"। সংগ্রহের তারিখ 2019  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  4. Shaykh Mufti Saiful Islam, . (2010). Your Questions Answered. [S.l.]: JKN Publications. ISBN 978-0956550408.সংগ্রহের-তারিখ= 2010}}
  5. https://www.prlog.org/10793568-your-questions-answered-mufti-saiful-islam.html