সমাজকর্ম একটি সাহায্যকারী পেশা। সামাজিক বিজ্ঞানের একটি শাখাবিশেষ; যেখানে সামাজিক ও ব্যক্তি মানসিক পরিবর্তন বা সমাজকর্ম ও মানব সম্পর্কের উন্নয়ন বিষয়াবলি নিয়ে আলোকপাত করা হয়।

জেন অ্যাডামস কে সমাজকর্মের জনক এবং Anna L. Dawes (এনা এল. ডয়েস) কে সমাজকর্ম শিক্ষার জনক বলা হয়।

[HKKSC]

সমাজকর্মের সংজ্ঞাসম্পাদনা

একটি সাহায্যকারী পেশা যা কতকগুলো পদ্বতির মাধ্যমে ব্যক্তি, দল বা সমষ্টির সমস্যা সমাধানে এমনভাবে সহায়তা করে যাতে তারা নিজেরাই নিজেদের সমস্যা সমাধানে সক্ষম হয়।

ন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অফ সোশ্যাল ওয়ার্কার্স (সমাজকর্মীদের জাতীয় সমিতি)-এর মতে, "সমাজকর্ম ব্যক্তি ও দলকে সাহায্য করবে এক পেশাগত কর্মগত যা তাদের সামাজিক ভূমিকা পালন ক্ষমতাকে পুনরুদ্ধার ও শক্তিশালী করে এবং সামাজিক এ লক্ষ্যে উপযোগী করে তোলে।"

সমাজকর্ম অভিধানের ব্যাখ্যানুযায়ী,"সমাজকর্ম একটি ব্যবহারিক বিজ্ঞান যা মানুষকে মনো-সামাজিক ভূমিকা পালন ক্ষমতার একটি কার্যকর পর্যায়ে উপনীত হতে সাহায্য করে এবং মানুষের কল্যাণকে শক্তিশালীকরণে কার্যকর সামাজিক পরিবর্তন আনয়ন করে।" [১]

ডব্লিউ এ ফ্রিড ল্যান্ডারের মতে, " সমাজকর্ম হল বৈজ্ঞানিক জ্ঞান ও মানবিক সম্পর্ক বিষয়ক এমন এক পেশাদার সেবা কর্ম, যা ব্যক্তিগত ও সামাজিক সন্তুষ্টি এবং স্বাধীনতা লাভে কোন ব্যক্তিকে একক অথবা দলীয় ভাবে সাহায্য করে।"

[HKKSC]


ইতিহাসসম্পাদনা

 
righ

সামাজকর্মের অনুশীলন এবং পেশা একটি অপেক্ষাকৃত আধুনিক এবং বৈজ্ঞানিক মূল,[২] এবং সাধারণত সমাজকর্ম তিনটি তীরভূমি থেকে তৈরি করা হয়েছে বলে মনে করা হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. সমাজকর্মআইএসবিএন 978-984-34-3157-8  বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, কোর্স কোড:এইএসসি- ১৮৬২
  2. Huff, Dan। "Chapter I. Scientific Philanthropy (1860–1900)"The Social Work History StationBoise State University। মে ১৯, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২০, ২০০৮