সংক্ষিপ্ত ইসলামী বিশ্বকোষ

সংক্ষিপ্ত ইসলামী বিশ্বকোষ হলো বাংলাদেশ সরকারের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ থেকে বাংলা ভাষায় প্রকাশিত একটি ইসলাম সম্পর্কিত বিশ্বকোষ[১] ১৯৮২ সালে ২ খণ্ডে এটি প্রথম প্রকাশিত হয়। এটি বাংলা ভাষায় প্রকাশিত প্রথম ইসলামি বিশ্বকোষ। লাইডেন থেকে প্রকাশিত শর্টার এনসাক্লোপিডিয়া অব ইসলামের অনুবাদ হিসেবে এই গ্রন্থ প্রকাশের প্রথম উদ্যোগ গ্রহণ করে বাংলা একাডেমি। বাংলা একাডেমি প্রকাশে অপারগ হওয়ায় এর পান্ডুলিপি ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশকে হস্তান্তর করে। পরবর্তীতে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ গ্রন্থটি সম্পাদনা করে সংক্ষিপ্ত ইসলামী বিশ্বকোষ নামে প্রকাশ করে। বিশ্বকোষ প্রকল্পে এটি ছিল ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রাথমিক প্রচেষ্টা। এর বৃহত্তর প্রচেষ্টা হিসেবে ইসলামিক ফাউন্ডেশন থেকে ২৮ খণ্ডে ইসলামী বিশ্বকোষ নামে পূর্ণাঙ্গ বিশ্বকোষ প্রকাশিত হয়।

সংক্ষিপ্ত ইসলামী বিশ্বকোষ
রঙিন প্রচ্ছদ
পঞ্চম সংস্করণের প্রচ্ছদ
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
বিষয়ইসলাম
ধরনবিশ্বকোষ
প্রকাশিত১৯৮২
প্রকাশকইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ
মিডিয়া ধরনমুদ্রিত গ্রন্থ
আইএসবিএন৯৮৪-০৬-০২৫২-৭ পঞ্চম সংস্করণ
পরবর্তী বইইসলামী বিশ্বকোষ 

ইতিহাস

সম্পাদনা

লাইডেন থেকে প্রকাশিত Short Encyclopaedia of Islam শীর্ষক গ্রন্থের অনুবাদের জন্য বাংলা একাডেমি ১৯৫৮ সালের ২১ জানুয়ারি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহেল কাফীকে সভাপতি করে নয় সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করে। অসুস্থতার কারণে কাফী এই কমিটির কার্যক্রমে সম্পৃক্ত হতে না পারায় ১৯৬২ সালের ২২ অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মাহমূদ ডক্টর হুসায়নকে সভাপতি করে এই কমিটি পুনর্গঠিত হয়। তিনি ঢাকা ত্যাগ করলে ১৯৬৩ সালে সৈয়দ মোয়াজ্জম হোসায়ন সভাপতি মনোনীত হন। এই কমিটির সদস্যবৃন্দ:

  1. সৈয়দ মোয়াজ্জম হোসায়ন, অবসরপ্রাপ্ত ভাইস চ্যান্সেলর;
  2. বিলায়েত হুসায়ন, সদস্য, ইসলামিক উপদেষ্টা কাউন্সিল;
  3. সিরাজুল হক, অধ্যক্ষ, আরবি ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়;
  4. এ. বি.এম. হাবীবুল্লাহ, অধ্যক্ষ, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়;
  5. মুফীযুল্লাহ কবীর, অধ্যক্ষ, ইতিহাস বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়;
  6. সৈয়দ আলী আহসান, পরিচালক, বাংলা একাডেমি;
  7. আবদুর রহমান কাশগরী, হেড মৌলবী, ঢাকা আলিয়া মাদ্রাসা;
  8. আহমদ হোসাইন, স্পেশাল অফিসার, শিক্ষা পরিদপ্তর, ঢাকা;
  9. আলাউদ্দিন আল আজহারী, লেকচারার, ঢাকা আলিয়া মাদ্রাসা;
  10. শাহেদ আলী, ইসলামিক একাডেমি, ঢাকা;
  11. আশরাফ ফারুকী, অধ্যাপক;
  12. আবুল কাসেম মুহাম্মদ আদমুদ্দীন, সহ-সম্পাদক, বাংলা ইসলামী বিশ্বকোষ, বাংলা একাডেমি;
  13. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, প্রধান সম্পাদক, বাংলা ইসলামী বিশ্বকোষ আহ্বায়ক।

সংযোজিত সদস্যগণ:

  1. আবদুর রহমান, অবসরপ্রাপ্ত ইন্সপেক্টর অব স্কুলস, চট্টগ্রাম;
  2. শেখ আবদুর রহীম, অধ্যাপক, আরবি ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়;
  3. শেখ শরফুদ্দীন, অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ, আলিয়া মাদ্রাসা, ঢাকা।

এই কমিটির তত্ত্বাবধানে গঠিত সম্পাদক বোর্ডের সদস্যবৃন্দ:

  1. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ;
  2. মুফীযুল্লাহ কবীর;
  3. শেখ আবদুর রহীম;
  4. শেখ শরফুদ্দীন;
  5. আবুল কাসেম মুহাম্মদ আদমুদ্দীন।

মুহম্মদ শহীদুল্লাহ ১৯৬১ সালের ৮ জুলাই থেকে ১৯৬৩ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত খণ্ডকালীন সম্পাদকরূপে এবং ১৯৬৪ সালের ১ জানুয়ারি থেকে পূর্ণকালীন সম্পাদকরূপে নিয়োজিত ছিলেন। পূর্ণকালীন সহকারী সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন শেখ শরফুদ্দীন ও আবুল কাসেম মুহাম্মদ আদমুদ্দীন। মুহাম্মদ রিযাউর রহীম পূর্ণকালীন অনুবাদকরূপে কাজ করেন। খণ্ডকালীন অনুবাদকের সংখ্যা ছিল ২৩।

আট বছর পর ১৯৬৭ সালের ২ জানুয়ারি এই কাজ সমাপ্ত হয়। এতে মোট ৫৯১টি নিবন্ধ স্থান পায়, তন্মধ্যে মূল গ্রন্থের অনুবাদ ছিল ৫০৮টি, উর্দু ইসলামী বিশ্বকোষ (দায়েরায়ে মাআরিফে ইসলামিয়া - পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়) থেকে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে ৩৭টি এবং ৩৫টি মৌলিক নিবন্ধ।

নানা কারণে বাংলা ইসলামী বিশ্বকোষের মুদ্রণ ও প্রকাশনা বাংলা একাডেমীর পক্ষে সম্ভব হয় নি। ১৯৭৬ সালে গ্রন্থটির পাণ্ডুলিপি ইসলামিক ফাউণ্ডেশন বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। ফাউণ্ডেশন নিবন্ধগুলি নতুনভাবে নিরীক্ষার জন্য ১৯৭৮ সালের ২১ জানুয়ারি পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করে। কমিটির সদস্যবৃন্দ:

  1. আবদুল হক ফরিদী, অবসরপ্রাপ্ত ডি. পি. আই. এবং তদানীন্তন মহাপরিচালক, ইসলামিক ফাউণ্ডেশন বাংলাদেশ (সভাপতি);
  2. সিরাজুল হক, প্রফেসর এমেরিটাস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়;
  3. আহমদ হোসাইন, প্রাক্তন পরিচালক, ইসলামিক একাডেমী;
  4. আবু তাহির মুহাম্মদ মুছলেহ উদ্দীন, সহযোগী অধ্যাপক, আরবি ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়;
  5. মোহাম্মদ ফেরদাউস খান, অবসরপ্রাপ্ত ডি. পি. আই. এবং প্রাক্তন অতিরিক্ত সচিব, শিক্ষা মন্ত্রণালয় (সাধারণ সম্পাদক)।

পুনঃনিরীক্ষা সহ সম্পাদনা পরিষদ এতে ৪২টি নতুন নিবন্ধ সংযোজন করে। ১৯৮১ সালের ৩১ জানুয়ারি কমিটির কাজ সমাপ্ত হয়, কমিটির অধীনে মোট ২৫০টি অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৬১৫টি নিবন্ধ স্থান পায়।

১৯৮২ সালের মে ও জুন মাসে ২ খণ্ডে এই গ্রন্থটি প্রকাশিত হয়। পরবর্তীতে ১৯৮৫ সালে অতিরিক্ত ৬৯টি নিবন্ধ সংযোজন করে "সংক্ষিপ্ত ইসলামী বিশ্বকোষ-পরিশিষ্ট" নামে একটি পরিশিষ্ট প্রকাশিত হয়। ২০০৭ সালে প্রকাশিত পঞ্চম সংস্করণে পরিশিষ্টটি মূল গ্রন্থের অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

আরও দেখুন

সম্পাদনা

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "ইসলামিক ফাউন্ডেশন"www.islamicfoundation.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২১ নভেম্বর ২০২২ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা