শ্যামাকোলা

উদ্ভিদের পরিবার

শ্যামাকোলা বা পানিকোলা পানিতে নিমজ্জিত বীরুৎজাতীয় গাছ। এরা রাম করোলা বা কাক্কোলাই নামেও পরিচিত।[২]

শ্যামাকোলা
Sagittaria latifolia (flowers).jpg
Sagittaria sagittifolia
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Plantae
(শ্রেণীবিহীন): Angiosperms
(শ্রেণীবিহীন): Monocots
বর্গ: Alismatales
পরিবার: Alismataceae
Vent.[১]
গোষ্ঠীর ধরন
Alisma
L.
Genera

See text

Map-Alismataceae.PNG
Alismataceae distribution map

আকারসম্পাদনা

শ্যামাকোলা মাটিতে মূলীবদ্ধ থাকে। এর পাতা ভাসমান, স্বচ্ছ, চারপাশ খাড়া, গড়নের দিক থেকে প্রশস্ত ডিম্বাকার বা তাম্বুলাকৃতির। এরা সাধারণত ১০ থেকে ২৫ সেন্টিমিটার পর্যন্ত লম্বা হতে পারে। উপবৃত্তাকার এই পাতাগুলোর শিরা ৭ থেকে ১১টি, অভিসারী এবং মূলীয় অংশ ক্রমশ একত্রিত হয়ে একটি বৃন্ত গঠন করে। এর বৃত্যংশ তিনটি। পাপড়ির সংখ্যা তিন এবং সাদা রঙের। নিম্নাংশ হলুদ দাগযুক্ত থাকে এবং দ্বিখণ্ডিত পুংকেশরের সংখ্যা ৬ থেকে ১৫টি। ফল ৩ থেকে ৪ সেন্টিমিটার দীর্ঘ ও এর শীর্ষ সরু হয়। বীজ অনেক হয় এবং দীর্ঘায়ত ও পুরু হয়। বর্ষাকাল প্রস্ফুটন মৌসুম।[২]

বিস্তৃতিসম্পাদনা

শ্যামাকোলা সাধারণত আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ এশিয়ার কয়েকটি দেশে প্রাকৃতিকভাবেই জন্মে।[২]

ব্যবহারসম্পাদনা

শ্যামাকোলা সবজি হিসেবে খাওয়া যায়। গাছের বৃন্ত ও ফলক সবজি হিসেবে খাওয়া হয়। শিশুরা সাধারণত বীজ শুকিয়ে ভেজে খেতে পছন্দ করে।[২]

গ্যালারিসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Angiosperm Phylogeny Group (2009), "An update of the Angiosperm Phylogeny Group classification for the orders and families of flowering plants: APG III", Botanical Journal of the Linnean Society, 161 (2): 105–121, ডিওআই:10.1111/j.1095-8339.2009.00996.x, ২৫ মে ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা, সংগ্রহের তারিখ 2010–12–10  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. জলের ফুল শ্যামাকোলা, মোকারম হোসেন, দৈনিক প্রথম আলো। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: অক্টোবর ৩০, ২০১৩ খ্রিস্টাব্দ।

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

  উইকিমিডিয়া কমন্সে শ্যামাকোলা সম্পর্কিত মিডিয়া দেখুন।