প্রধান মেনু খুলুন

শিল্পোদ্যোগ (ইংরেজি) হল কোনো এক অর্থনীতি অথবা দেশে হওয়া কোনো সামগ্রী পরিষেবার উৎপাদন।[১] কোনো ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান বা গোষ্ঠীর করা আয়ের মুখ্য উৎসই এর সঙ্গে সম্পর্কিত শিল্পোদ্যোগটিকে বোঝায়।[২] যখন কোনো এক বৃহৎ গোষ্ঠীর আয়ের উৎস অনেকগুলি হয় তখন সেই গোষ্ঠীটি কয়েকটি শিল্পোদ্যোগিক ক্ষেত্রে কাজ-কর্ম চালিয়ে নেয় বলে ধরা হয়। উদাহরণস্বরূপ, রিয়ালেন্স শিল্পোদ্যোগিক গোষ্ঠী অনেকগুলি দিকে ব্যাবসায়িক কাজ-কর্ম সম্প্রসারণ করেছে এবং সেজন্য এটি যোগাযোগ, জীবন বীমা, খারুয়া তেল ইত্যাদি অনেকগুলি শিল্পোদ্যোগিক ক্ষেতে্রর সঙ্গে সম্পর্কিত।

পরিচ্ছেদসমূহ

শ্রেণীবিভাগসম্পাদনা

সাধারণ শ্রেণীবিভাগসম্পাদনা

শিল্পোদ্যোগসমূহ বিভিন্নধরণে শ্রেণীবিভাগ করা হয়। এর ভিতর তিন খণ্ডের সূত্র বা থ্রি-সেক্টর থিয়োরি (three-sector theory) এবং উৎপাদিত সামগ্রীর ভিত্তিতে করা শ্রেণীবিভাগই প্রধান।

  1. তিন খণ্ডের সূত্র: অর্থনীতির এই সূত্র অনুসারে শিল্পোদ্যোগসমূহকে তিনটি অর্থনৈতিক খণ্ড, যথাক্রমে প্রাথমিক বা আহরণ খণ্ড, গৌণ বা নির্মাণ খণ্ড এবং তৃতীয় বা পরিষেবা খণ্ডে ভাগ করা যায়। কোনো কোনো পণ্ডিত চতুর্থ বা জ্ঞান খণ্ড এবং পঞ্চম বা সংস্কৃতি এবং গবেষণা খণ্ডর কথাও উল্লেখ করেছেন।
  2. উৎপাদিত সামগ্রী: উৎপাদিত সামগ্রীর ভিত্তিতে শিল্পোদ্যোগসমূহকে বিভিন্ন খণ্ড যেমন নির্মাণ, রসায়ন, খারুয়া তেল, খাদ্য, সফটওয়ার, বস্ত্র, বৈদ্যুতিন ইত্যাদিতে ভাগ করা যায়।

বিত্ত এবং মার্কেট রিসার্চ ইত্যাদির ক্ষেত্রে বাজারের ভিত্তিতে শিল্পোদ্যোগের শ্রেণীবিভাজন করা হয়।

আন্তঃরাষ্ট্রীয় মানক শিল্পোদ্যোগিক শ্রেণীবিভাগসম্পাদনা

রাষ্ট্রসংঘের পরিসংখ্যা বিভাগের করা আন্তঃরাষ্ট্রীয় মানক শিল্পোদ্যোগিক শ্রেণীবিভাগ (ইংরেজি) বা সংক্ষেপে ISIC হল সম্পূর্ণ তথা শৃংখলাবদ্ধ শিল্পোদ্যোগিক শ্রেণীবিভাগ।[৩]

শিল্পোদ্যোগিক উৎপাদনের ভিত্তিতে বিশ্বের দেশসমূহের ক্রমসম্পাদনা

আন্তঃরাষ্ট্রীয় মুদ্রা নিধি এবং সি আই এ ওয়র্ল্ড ফ্যাক্টবুকের ২০১৫ সালের তথ্যের ভিত্তিতে শিল্পোদ্যোগিক উৎপাদনের ক্রম অনুসারে বিশ্বের বৃহত্তম রাষ্ট্রসমূহ
অর্থনীতি
শিল্পোদ্যোগিক উৎপাদনের ভিত্তিতে বিশ্বের দেশসমূহ (বিলিয়ন আমেরিকান ডলার)
(01)   গণচীন
৪,৯২২
(—)   ইউরোপীয় ইউনিয়ন
৪,১৬২
(02)   যুক্তরাষ্ট্র
৩,৭৫২
(03)   জাপান
১,০৮২
(04)   জার্মানি
১,০৫১
(05)   যুক্তরাজ্য
৫৮৮
(06)   ভারত
৫৫৯
(07)   দক্ষিণ কোরিয়া
৫৫৫
(08)   ফ্রান্স
৪৭৯
(09)   কানাডা
৪৫৬
(10)   ব্রাজিল
৪৫৩
(11)   মেক্সিকো
৪৪৮
(12)   ইতালি
৪৪০
(13)   রাশিয়া
৪২৭
(14)   ইন্দোনেশিয়া
৪০৮
(15)   সৌদি আরব
৩৮৭
(16)   অস্ট্রেলিয়া
৩৬২
(17)   স্পেন
৩১২
(18)   সংযুক্ত আরব আমিরাত
২১৪
(19)   তুরস্ক
২০২
(20)   সুইজারল্যান্ড
১৮৪

আন্তঃরাষ্ট্রীয় মুদ্রা নিধি এবং সি আই এ ওয়র্ল্ড ফ্যাক্টবুকের ২০১৫ সালের তথ্যের ভিত্তিতে শিল্পোদ্যোগিক উৎপাদনের ক্রম অনুসারে বিশ্বের ২০ টি দেশ

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

সহায়ক গ্রন্থসম্পাদনা

  • Krahn, Harvey J., and Graham S. Lowe. Work, Industry, and Canadian Society. Second ed. Scarborough, Ont.: Nelson Canada, 1993. xii, 430 p. ISBN 0-17-603540-0

বাহ্যিক সংযোগসম্পাদনা