শিক্ষা মনোবিজ্ঞান

শিক্ষা মনোবিজ্ঞান মনোবিজ্ঞানের একটি গুরুত্বপূর্ণ শাখা। মানুষের শিক্ষা সংক্রান্ত আচরণের বিজ্ঞানই হলো শিক্ষা মনোবিজ্ঞান। মনোবিজ্ঞানের এই শাখায় মানুষের শিক্ষা সম্পর্কিত আচরণের বিভিন্ন সমস্যার ব্যাখ্যা ও বিশ্লেষণ করা হয় এবং এগুলির সমাধানে মনোবিজ্ঞানের মূলনীতিসমূহ কিভাবে প্রয়োগ করা যায়, সে বিষয়ে আলোচনা করা হয়। শিক্ষার সাথে সম্পর্কিত মানুষের সব ধরনের আচরণই শিক্ষা মনোবিজ্ঞানের অন্তর্ভুক্ত।

অন্যান্য বিভাগের সাথে সম্পর্কের মাধ্যমে শিক্ষা মনোবিজ্ঞানের পরিধি কিছুটা বোঝা যায়। এটি মূলত মনোবিজ্ঞান দ্বারা ব্যাখ্যা করা যায়, স্নায়ুবিজ্ঞানও এটির সম্পর্কিত বিষয়। শিক্ষা মনোবিজ্ঞান পরিবর্তে শিক্ষামূলক পড়াশোনার মধ্যে শিক্ষামূলক নকশাকরণ, শিক্ষাগত প্রযুক্তি, পাঠ্যক্রমের বিকাশ, সাংগঠনিক শিক্ষা, বিশেষ শিক্ষা, শ্রেণীকক্ষ পরিচালনা এবং শিক্ষার্থীদের অনুপ্রেরণার মধ্যে বিভিন্ন বিশেষত্বের অবহিত করে। শিক্ষা মনোবিজ্ঞান উভয়ই সংজ্ঞানাত্মক বিজ্ঞান এবং শিখন বিজ্ঞান থেকে অবদান রাখে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে শিক্ষা মনোবিজ্ঞান বিভাগগুলি সাধারণত শিক্ষা অনুষদের মধ্যে রাখা হয়, সম্ভবত প্রাথমিক মনোবিজ্ঞানের পাঠ্যপুস্তকগুলিতে শিক্ষা মনোবিজ্ঞানের বিষয়বস্তুর প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।

শিক্ষা মনোবিজ্ঞানের ক্ষেত্রগুলি হল স্মৃতি, ধারণাগত প্রক্রিয়া এবং (সংজ্ঞানাত্মক মনোবিজ্ঞানের মাধ্যমে) অধ্যয়নের সাথে জড়িত থাকে মানুষের মধ্যে শেখার প্রক্রিয়াগুলির জন্য নতুন কৌশলগুলির উন্মোচন। অপারেটর কন্ডিশনার, ফাংশনালিজম, সংগঠনবাদ (স্ট্রাকচারালিজম), নির্মিতিবাদ (কনস্ট্রাকটিভিজম), মানবতাবাদী মনোবিজ্ঞান, সামগ্রিক মনোবিজ্ঞান (গেস্টাল্ট সাইকোলজি) এবং তথ্য প্রক্রিয়াজাতকরণের তত্ত্বের ভিত্তিতে শিক্ষাগত মনোবিজ্ঞান নির্মিত হয়েছে।

শিক্ষা মনোবিজ্ঞান গত বিশ বছরে একটি পেশা হিসাবে দ্রুত বৃদ্ধি এবং বিকাশ পেয়েছে । বিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বুদ্ধি পরীক্ষার ধারণার মাধ্যমে শুরু হয়েছিল বিশেষ শিক্ষার শিক্ষার্থীদের বিধানের জন্য, যারা বিশ শতকের গোড়ার দিকে নিয়মিত শ্রেণিকক্ষ পাঠ্যক্রম অনুসরণ করতে পারেনি। তবে, "স্কুল মনোবিজ্ঞান" নিজেই বিভিন্ন ক্ষেত্রের মধ্যে বেশ কয়েকটি মনোবিজ্ঞানীদের চর্চা এবং তত্ত্বগুলির উপর ভিত্তি করে মোটামুটি নতুন পেশা তৈরি করেছে। শিক্ষা মনোবিজ্ঞানীরা মনোরোগ বিশেষজ্ঞ, সমাজকর্মী, শিক্ষক, বক্তৃতা এবং ভাষা চিকিৎসক, এবং কাউন্সিলরদের সাথে ক্লাসরুমে আচরণগত, জ্ঞানীয় এবং সামাজিক মনোবিজ্ঞানের সমন্বয় করার সময় উত্থাপিত প্রশ্নগুলি বোঝার লক্ষ্যে পাশাপাশি কাজ করছেন।

ইতিহাসসম্পাদনা

 
William James

মূল লক্ষ্যসম্পাদনা

'শিক্ষা মনোবিজ্ঞানের' মূল লক্ষ্য হচ্ছে:

  • শিক্ষার্থীর জীবনের সার্বিক ও সুষম বিকাশ সাধনে সহায়তা করা।
  • শিক্ষার কার্যকরী পদ্ধতি অনুসন্ধান, উদ্ভাবন ও প্রয়োগ করা।
  • উপযোগী শিক্ষা কর্মসূচি প্রণয়ন করা।
  • শিক্ষাক্ষেত্রে অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করা।
  • শিক্ষার্থীর আচরণ,মানসিক প্রতিক্রিয়া ও জীবন বিকাশের ধারা সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা।
  • শিক্ষার্থীর জ্ঞানের পরিধি তার আচরণেরর উপর শিক্ষার প্রভাব মূল্যায়ন করা।
  • শিক্ষাক্ষেত্রে মানসিক বিকাশমূলক প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা প্রদান করা।

[১]

বিষয়বস্তুসম্পাদনা

শিক্ষার্থীকে কেন্দ্র করে আবর্তিত হয় শিক্ষা ব্যবস্থা। তাই শিক্ষার্থীকে লক্ষ্য করে গড়ে ওঠে শিক্ষা ব্যবস্থা। শিক্ষণ হলো শিক্ষা মনোবিজ্ঞান এর মূল বিষয়।তাই শিক্ষণের গতি-প্রকৃতি, ধরন,কলা-কৌশল,শর্তাবলি, উপকরণ,শিক্ষণে পুরস্কারশাস্তির প্রভাব, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর বৈশিষ্ট্যাবলি, শিক্ষারর পদ্ধতি, শিক্ষার পরিবেশ ইত্যাদি শিক্ষা মনোবিজ্ঞানের বিষয়বস্তুর অন্তর্গত।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. উচ্চমাধ্যমিক মনোবিজ্ঞান -প্রফেসর যোগেন্দ্র কুমার