শাল (বস্ত্র)

একটি সাধারণ বস্ত্র যেটা কাঁধ, শরীরের ওপর ভাগ এবং হাতে আলগা ভাবে পরা হয়

শাল এক ধরনের বস্ত্রবিশেষ, অনেকটা চাদরের মত যা শরীরের উর্ধাংশ এবং প্রয়োজন বিশেষে মস্তক আবরণের কাজে ব্যবহৃত হয়। নারী-পুরুষ নির্বিশেষে শাল পরিধান করে থাকেন। শাল সাধারণত আয়তকার বা বর্গাকার হয়, তবে ত্রিকোণাকৃতির শালও দেখতে পাওয়া যায়। শাল প্রধানত শীতকালে গরম কাপড় হিসেবে পরিধান করা হয়, তবে সাজসজ্জার পরিপূরক হিসেবে এবং ধর্মীয় প্রতীক হিসেবেও এর ব্যবহার রয়েছে। বর্তমানে শাল কেবল উষ্ণতাই প্রদান করে না, বরং এটি ফ্যাশনেরও অংশ। পৃথিবীজুড়ে বিভিন্ন নামে এবং বিভিন্ন ধরনের শালের প্রচলন রয়েছে। এদের মধ্যে কাশ্মীরের পশমিনা শাল সুবিখ্যাত।[১] এই শাল পশমের তৈরি এবং এর বুনন, নকশা এবং বর্ণবৈচিত্রের কারণে সর্বত্র সমাদৃত। এছাড়া ইরানি শালের খ্যাতিও সুবিদিত। বাংলাদেশে মূলত শীতকালে শালের ব্যবহার লক্ষ করা যায়।[২]

১৯ শতকের প্রথমভাগে ফ্রান্সে শালের ব্যবহার।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Sharma, Kuldeep K.; Pareek, Pawan K.; Raja, A. S. M.; Temani, Priyanka; Kumar, Ajay; Shakyawar, D. B.; Sharma, Mahesh C. (2013-05)। "Extraction of Natural Dye from Kigelia pinnata and Its Application on Pashmina (Cashmere) Fabric"Research Journal of Textile and Apparel17 (2): 28–32। আইএসএসএন 1560-6074ডিওআই:10.1108/rjta-17-02-2013-b005  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  2. Silk, mohair, cashmere and other luxury fibres। Robert R. Franck, Textile Institute। Boca Raton, FL: CRC Press। ২০০১। আইএসবিএন 1-59124-772-1ওসিএলসি 57250698 

ছবিসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা