শান্তি আশ্রম' (ইংরেজি: Shanti Ashram) (অসমীয়া: শান্তি আশ্ৰম) (হিন্দি: शांति आश्रम) আসামের কোকিলামুখে ১৯১২ সালের ৫ ই বৈশাখ অক্ষয় তৃতীয়া তিথিতে স্বামী নিগমানন্দ কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি বর্তমানে "সারস্বত মঠ" বা "আসাম বঙ্গীয় সারস্বত মঠ" নামে পরিচিত।[১][২] "শান্তি আশ্রম" এর মূল উদ্দেশ্য স্বামী নিগমানন্দের তিনটি লক্ষ্যকে বাস্তবায়ন করা - সনাতন ধর্ম প্রচার, প্রকৃত শিক্ষার বিস্তার এবং ঈশ্বরের অবতার হিসাবে সর্বজনের সেবা করা।

শান্তি আশ্রম
সারস্বত মঠ, আসাম বঙ্গীয় সারস্বত মঠ
100 years completed Swami Nigamananda's SHANTI ASHRAM on banks of Brahamaputra (Assam).JPG
ব্রহ্মপুত্র নদীর তীরে শান্তি আশ্রম, কোকিলামুখ (যোরহাট), আসাম
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিহিন্দুধর্ম
জেলাশিবসাগর
শ্বরস্বামী নিগমানন্দ
উৎসবসমূহবার্ষিকী উৎসব, সম্মিলনী এবং অক্ষয় তৃতীয়া
অবস্থান
অবস্থানকোকিলামুখ (যোরহাট), আসাম
রাজ্যআসাম
দেশভারত
শান্তি আশ্রম আসাম-এ অবস্থিত
শান্তি আশ্রম
Location in Jorhat
শান্তি আশ্রম ভারত-এ অবস্থিত
শান্তি আশ্রম
Location in Jorhat
ভৌগোলিক স্থানাঙ্ক২৬°৪৯′৫০″ উত্তর ৯৪°১০′৪৪″ পূর্ব / ২৬.৮৩০৬৫০° উত্তর ৯৪.১৭৮৮০০° পূর্ব / 26.830650; 94.178800স্থানাঙ্ক: ২৬°৪৯′৫০″ উত্তর ৯৪°১০′৪৪″ পূর্ব / ২৬.৮৩০৬৫০° উত্তর ৯৪.১৭৮৮০০° পূর্ব / 26.830650; 94.178800
স্থাপত্য
সৃষ্টিকারীস্বামী নিগমানন্দ
সম্পূর্ণ হয়১৯১২
মন্দিরতিন
ওয়েবসাইট
absmath.org

ইতিহাসসম্পাদনা

 
স্বামী নিগমানন্দ, শান্তি আশ্রমের প্রতিষ্ঠাতা

শান্তি আশ্রম স্বামী নিগমানন্দ কর্তৃক সর্বপ্রথম প্রতিষ্ঠিত হয় কুমিল্লার দুর্গাপুরে ১৩১৪ বঙ্গাব্দের অক্ষয় তৃতীয়ায়। এরপর ১৩১৮ বঙ্গাব্দে আশ্রমটি ঢাকার গেণ্ডারিয়ায় স্থানান্তরিত হয়। ১৩১৮ সালের ২৬শে অগ্রহায়ণ সেখানে "শ্রী গৌরাঙ্গ অনাথ নিকেতন" প্রতিষ্ঠিত হয়। এর উদ্দেশ্য ছিল আর্ত, দুস্থ, রোগী ও দরিদ্রদের সেবা করা। "সরুরাম কালিত" নামে নিগমানন্দের একজন অনুসারী তার থেকে অর্থ নিয়ে কোকিলামুখ, যোরহাট, শিবসাগর জেলার "কুমারভেতি ছাপড়ি গ্রামে" ৮০ বিঘার একখণ্ড জমি ক্রয় করেন। এই জমিতেই মঠ প্রতিষ্ঠা করা হয়। ১৩১৯ বঙ্গাব্দের ৭ই বৈশাখ অক্ষয় তৃতীয়ায় নিগমানন্দ স্বয়ং যোরহাটের নিকট কোকিলামুখে ব্রহ্মার আসন স্থাপন করেন এবং এর নামকরণ করেন "শান্তি আশ্রম"।নিগমানন্দ সাত জন আত্মত্যাগী স্বামী শিষ্যকে সন্ন্যাসদীক্ষা প্রদান করেন। এরা হলেন চিদানন্দ, প্রেমানন্দ, স্বরূপানন্দ, যোগানন্দ, শুদ্ধানন্দ, বোধানন্দ এবং সারদানন্দ। তিনিই এই আশ্রমের নাম রাখেন "সারস্বত মঠ"।[৩] ১৩২৫ বঙ্গাব্দ হতে এটি "আসাম বঙ্গীয় সারস্বত মঠ" নামে পরিচিত হয়। নিগমানন্দ শৃঙ্গেরী মঠের অধীনে "সরস্বতী" উপাধির সাথে সংশ্লিষ্ট সন্ন্যাসী হওয়ায় তিনি তার মঠের নাম রাখেন "সারস্বত মঠ"।

অবস্থানসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Library of Congress Office, New Delhi (১৯৮১)। Accessions List, South Asia। Assam Bangiya Saraswata Matha। E.G. Smith for the U.S. Library of Congress Office, New Delhi। পৃষ্ঠা 674। সংগ্রহের তারিখ ১২ মে ২০১৩ 
  2. Sadguru Swami Nigamananda। Shanti Ashram or Saraswawta Matha। Puri, Bhubaneswar: Nilachal Saraswat Sangha। ২০০১। পৃষ্ঠা 173। সংগ্রহের তারিখ ১২ মে ২০১৩ 
  3. Moni Bagchee (১৯৮৭)। Sadguru Nigamananda: A Spiritual Biography। First seven disciples of Swami Nigamananda। Assam Bangiya Saraswat Math। পৃষ্ঠা 185। সংগ্রহের তারিখ ১২ মে ২০১৩