শঙ্খনাদ আবু সাইয়ীদ পরিচালিত ২০০৪ সালের বাংলাদেশী নাট্য চলচ্চিত্র। বাংলাদেশী ঔপন্যাসিক নাসরীন জাহান রচিত উপন্যাস অবলম্বনে চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছে। এতে অভিনয় করেছেন জাহিদ হাসান, কে এস ফিরোজ, নাজমা আনোয়ার, ফজলুর রহমান বাবু, রেবেকা দিপা, মিরানা জামান প্রমুখ।[১]

শঙ্খনাদ
পরিচালকআবু সাইয়ীদ
প্রযোজকআঙ্গিক কমিউনিকেশন্স
রচয়িতানাসরীন জাহান
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারএস আই টুটুল
চিত্রগ্রাহকমাহফুজুর রহমান খান
সম্পাদকজুনায়েদ হালিম
প্রযোজনা
কোম্পানি
আঙ্গিক কমিউনিকেশন্স
মাছরাঙ্গা প্রডাকশনস
পরিবেশকট্রিগন ফিল্মস (সুইজারল্যান্ড)
মুক্তি
  • ২০০৪ (2004) (বাংলাদেশ)
  • ২৩ জুন ২০০৫ (2005-06-23) (সুইজারল্যান্ড)
দৈর্ঘ্য১০২ মিনিট
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা

চলচ্চিত্রটি শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র বিভাগে মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার লাভ করে। ফজলুর রহমান বাবু এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য ২৯তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব চরিত্রে অভিনেতার পুরস্কার লাভ করেন[২] এবং চিত্রসম্পাদক জুনায়েদ হালিম শ্রেষ্ঠ চিত্রসম্পাদক বিভাগে পুরস্কৃত হন।[৩]

কাহিনী সংক্ষেপসম্পাদনা

এক ঝড়ের রাতে ওসমান তার পূর্বপুরুষদের গ্রামে আসে। ২৭ বছর আগে এক অন্ধকার রাতে সে এই গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছিল। গ্রামে মান্নাফ খান নামে এক বৃদ্ধের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। ওসমান তার শৈশব ও কৈশোরকে খুঁজে ফিরে। তার কুঁজো বুড়ির সাথে দেখা হয়, যে তাকে ছোটবেলায় সেবাশুশ্রূষা করেছিল। তার ছেলেবেলার বন্ধু ফজলুর সাথেও তার দেখা হয়। ওসমান পার্থিব কোন ব্যাপারে এখন আর আগ্রহী নয়। সে তার বাকি জীবন এই গ্রামে কাটিয়ে দিতে চায়। কিন্তু তা হওয়ার নয়।

কুশীলবসম্পাদনা

মুক্তিসম্পাদনা

শঙ্খনাদ চলচ্চিত্রটি ২০০৪ সালে বাংলাদেশে মুক্তির পরে ২০০৫ সালে সুইজারল্যান্ড ও অস্ট্রিয়ার বাণিজ্যিকভাবে মুক্তি দেওয়া হয়।[৪]

উৎসবে অংশগ্রহণসম্পাদনা

হোম ভিডিওসম্পাদনা

২০১৫ সালের ৪ সেপ্টেম্বর শঙ্খনাদ চলচ্চিত্রের ডিভিডির মোড়ক উন্মোচন হয়।[৬]

পুরস্কারসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "শঙ্খনাদ"বাংলানিউজ। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  2. "এ সপ্তাহের সাক্ষাতকার - ফজলুর রহমান বাবু"বিবিসি বাংলা। ৫ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  3. "National Film Awards for the last fours years announced"দ্য ডেইলি স্টার। ২০০৮-০৯-০১। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  4. "'চলচ্চিত্রে অনুদানের প্রক্রিয়া পক্ষপাতপূর্ণ'"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। ২০১৫-০৫-১২। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  5. "SHANKHONAD (WAIL OF THE CONCH )"দুবাই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  6. "বড়পর্দায় ও ডিভিডিতে আবু সাইয়ীদের ছয় চলচ্চিত্র"দ্য রিপোর্ট। সেপ্টেম্বর ০১, ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  7. "Shankhonad (2005) Awards"ইন্টারনেট মুভি ডেটাবেজ। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা