লা বেল এপোক

(লা বেল ইপোক থেকে পুনর্নির্দেশিত)

লা বেল এপোক ২০১৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একটি ফরাসি প্রণয়ধর্মী হাস্যরসাত্মক-নাট্য চলচ্চিত্র যা রচনা ও পরিচালনা করেছেন নিকোলা ব্যদোস।[২]

লা বেল ইপোক
লা বেল ইপোক চলচ্চিত্র পোস্টার.jpeg
চলচ্চিত্রের পোস্টার
পরিচালকনিকোলা ব্যদোস
প্রযোজক
  • ফ্রঁসোয়া ক্রাউস
  • দ্যনি পিনো-ভালঁসিয়েন
রচয়িতানিকোলা ব্যদোস
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকার
  • নিকোলা ব্যদোস
  • আন-সোফি ভের্সনাইয়েন
চিত্রগ্রাহকনিকোলাস ব্যদোস
সম্পাদকআনি দঁশে
পরিবেশকপাতে ডিস্ত্রিব্যুসিওঁ
মুক্তি
  • ২০ মে ২০১৯ (2019-05-20) (কান)
  • ৬ নভেম্বর ২০১৯ (2019-11-06) (ফ্রান্স)
দৈর্ঘ্য১১৫ মিনিট
দেশফ্রান্স
ভাষাফ্রান্স
আয়$১৩,৯০৭,৫৬৪[১]

চলচ্চিত্রটিতে দানিয়েল ওত্যিই ভিক্ত্যর চরিত্রে অভিনয় করেছেন, যিনি মারিয়ানের (ফানি আরদঁ) সাথে দীর্ঘ বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ। ভিক্ত্যর যখন অঁতোয়ানের (গিইয়োম কানে) সাথে দেখা করেন, যিনি এমন একটি সংস্থার মালিক যা লোকদেরকে সময় ভ্রমণ করার কাজে সাহায্য করে, এরপর ভিক্টর সেই সুযোগ গ্রহণ করেন এবং যখন মারিয়ানের সাথে প্রথম দেখা হয়েছিল সেই সময়ে ফিরে যান।

২০১২ সালের কান চলচ্চিত্র উৎসবে এই চলচ্চিত্রটির প্রথম প্রদর্শিত হয়েছিল।[৩]

কাহিনী সংক্ষেপসম্পাদনা

প্রাক্তন ডিজাইনার, ভিক্টর ষাটের দশকে হতাশার মধ্যে রয়েছেন। স্ত্রী মারিয়েনের সাথে তার পারিবারিক সমস্যা হয় এবং তিনি আধুনিক প্রযুক্তিগত বিশ্বে থাকার আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। তাকে উৎসাহিত করার জন্য, তার ছেলে ম্যাক্সিম তাকে একটি কোম্পানির আয়োজিত অনুষ্ঠান থেকে একটি "টাইম ট্রাভেল" টিকিট কিনেছিল। এই কোম্পানি/সংস্থাটি গ্রাহকদের একটি জাদুকর ডিভাইসের মাধ্যমে তাদের পছন্দের যুগটিকে পুনরুদ্ধার করার অফার দেয় অর্থাৎ টাইম ট্রাভেল। কিছু ধনী গ্ৰাহক উইলিয়াম ফকনার,অ্যাডল্ফ হিটলারের সাথে বা ১৭ তম শতাব্দীর অভিজাতদের সাথে দেখা কিংবা একটি সন্ধ্যা কাটাতে পছন্দ করেন। ভিক্টর তিনি তার জীবনের সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ সপ্তাহে ফিরে যেতে আগ্রহী হন, যেখানে তিনি চল্লিশ বছর আগে, ১ মে ১৯৪৮ সালে লিয়নের লা বেল এপোকের ক্যাফেতে মারিয়নের সাথে প্রেম এবং দেখা করেছিলেন।

এই চলচ্চিত্রে মারিয়নের চরিত্রে অভিনয় করেছেন মার্গট, যিনি এন্টোইনের সাথে জটিল এবং অশান্ত সম্পর্কে জড়িত। পরবর্তীতে ভিক্টর নিজেকে বোঝায় মন দেয়, যতক্ষণ না এই "পুনর্গঠিত" স্মৃতিগুলোতে হারিয়ে যায়।

শ্রেষ্ঠাংশেসম্পাদনা

প্রতিক্রিয়াসম্পাদনা

"রটেন টমেটোস" ওয়েবসাইটে চলচ্চিত্রটির সমালোচনা গড় ৭.৭/১০ এর সাথে ১৬ জন সমালোচকের পর্যালোচনাগুলির ভিত্তিতে ৮৮% ইতিবাচক অনুমোদন রেটিং রয়েছে।[৯] এছাড়া মেটাক্রিটিক-এ,সমালোচকদের উপর ভিত্তি করে ছবিটির গড় স্কোর ৭৫/১০০ যা সাধারণত অনুকূল রিভিউ নির্দেশ করে।[১০]

জনপ্রিয় লেখক ডেব্রুজ চলচ্চিত্রটির প্রশংসা করেছেন লিখেছেন, "এটিতে এমন একটি চিত্রনাট্য রয়েছে যা চার্লি কাউফম্যান চলচ্চিত্র হিসাবে উচ্চাভিলাষীভাবে কল্পনা করেছিলেন"।[১১] দ্যা হলিউড রিপোর্টার টড ম্যাকার্থি চলচ্চিত্রটিকে একটি" উপভোগ্য, আকর্ষণীয় এবং আসল রোমান্টিক কমেডি বলে অভিহিত করেছেন যা অনেকগুলি বিষয়কে তুলে ধরে একদম পরিপূর্ণ ভাবে।"[১২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "La belle époque (2019)"The Numbers। সংগ্রহের তারিখ ২২ আগস্ট ২০২০ 
  2. Allan Hunter, "'La Belle Epoque': Cannes Review". Screen Daily, 21 May 2019.
  3. "Cannes festival 2019: full list of films"The Guardian। ২৩ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১৯ 
  4. Sheehan, Peter W. (১৩ আগস্ট ২০২০)। "2020 Film Reviews: La Belle Epoque"Catholic Church in Australia। সংগ্রহের তারিখ ২২ আগস্ট ২০২০ 
  5. "Jeanne Arènes dans La Belle Epoque"Cours Peyran Lacroix (ফরাসি ভাষায়)। ১৯ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২২ আগস্ট ২০২০ 
  6. "La Belle Époque Press Kit" (PDF)UniFrance। ২০ মে ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২২ আগস্ট ২০২০ 
  7. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; McDonald-20200822 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  8. "La Belle Epoque (2019)"UniFrance। সংগ্রহের তারিখ ২২ আগস্ট ২০২০ 
  9. "La Belle Époque (2020)"Rotten TomatoesFandango। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০২০ 
  10. "La Belle Époque Reviews"MetacriticCBS। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০২০ 
  11. Debruge, Peter (৩ জুন ২০১৯)। "Film Review: 'La Belle Époque'"Variety 
  12. Todd McCarthy (২২ মে ২০১৯)। "'La Belle Epoque': Film Review | Cannes 2019"The Hollywood Reporter