রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ

সরকারি উন্নয়ন সংস্থা

রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (আরডিএ) বাংলাদেশের গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীনে একটি সরকারি সংস্থা যা রাজশাহীর উন্নয়ন প্রকল্পসমূহের পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন করে থাকে।[১][২]

রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ
সংস্থার রূপরেখা
গঠিত১৯৭৬
স্থলাভিষিক্ত সংস্থা
সদর দপ্তর১-৪৫, আরডিএ ভবন, বনলতা বাণিজ্যিক এলাকা, রাজশাহী
সংস্থা নির্বাহী
  • মোঃ জিয়াউল হক, চেয়ারম্যান
মূল সংস্থাবাংলাদেশ সরকার
ওয়েবসাইটrda.rajshahidiv.gov.bd
রাউক ভবন

ইতিহাস সম্পাদনা

১৭৭২ সালে জেলা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত রাজশাহী ১৮৭৬ সালে একটি শহরে পরিণত হয়। ১৮৭৬ সালে রাজশাহী পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয়। সময়ের চাহিদা মেটাতে এই শহরে মেডিকেল কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, রেডিও সেন্টার, বিমানবন্দর এবং আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ জিনিস প্রতিষ্ঠা করা হয়। এতে, বিভিন্নভাবে শহরের গুরুত্ব বৃদ্ধি পায় এবং শহরটি অপরিকল্পিতভাবে বৃদ্ধি পেতে থাকে। পরিকল্পিত ও টেকসই উপায়ে নগরের বিকাশ ও উন্নয়ন নিশ্চিত করতে ১৯৭৬ সালের অক্টোবরে এক অধ্যাদেশের মাধ্যমে রাজশাহী নগর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১৫ সালে রাজশাহী নগর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ২০ বছরের জন্য বৃহৎ পরিকল্পনা প্রকাশ করে। ২০১৯ সালে, রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ১০১ বিলিয়ন টাকার বাজেটসহ ১১টি উন্নয়ন প্রকল্পের ঘোষণা দেয়।

কার্যক্রম সম্পাদনা

  • রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অধিক্ষেত্রভুক্ত এলাকায় পরিকল্পিত উন্নয়নের লক্ষ্যে মহাপরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন
  • মহাপরিকল্পনা অনুযায়ী ভূমি ব্যবহার ও ইমারত নির্মাণ নিয়ন্ত্রণ
  • নগরীর চাহিদাকে অগ্রাধিকার দিয়ে মহাপরিকল্পনা অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের উন্নয়নমূলক প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়ন
  • অধ্যাদেশ ও ইমারত নির্মাণ আইন অনুসারে ভৌত উন্নয়ন নিয়ন্ত্রণ করা এবং অপরিকল্পিত ইমারত নির্মাণ রোধ করা [৩]

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ"রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ওয়েবসাইট। রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  2. "সংসদে রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিলের রিপোর্ট উপস্থাপন"risingbd.com। রাইজিং বিডি। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  3. "রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ"rdaraj.org.bd। রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। ৩০ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০