রাজগড় রাজ্য [১] ছিলো ব্রিটিশ শাসিত ভারতে অবস্থিত একটি দেশীয় রাজ্য, যা বর্তমানে ভারতের অন্তর্গত৷ ব্রিটিশ ভারতে এটি মধ্য ভারত এজেন্সির ভোপাল এজেন্সিতে অবস্থিত রাজ্যগুলির মধ্যে একটি ছিলো।[২] রাজ্যটির রাজধানী রাজগড় শহরটি বর্তমানে মধ্যপ্রদেশ রাজ্যে রাজগড় জেলায় অবস্থিত।

রাজগড় রাজ্য
राजगढ़
ব্রিটিশ ভারত দেশীয় রাজ্য
খ্রিস্টীয় পঞ্চদশ শতাব্দী–১৯৪৮
রাজগড় রাজ্যের পতাকা
পতাকা
Tonk-map.jpg
ইম্পেরিয়াল গেজেটিয়ার অব ইন্ডিয়া থেকে প্রাপ্ত রাজগড় রাজ্যের মানচিত্র
রাজধানীরাজগড়
আয়তন 
• ১৯৩১
২,৪৩৫ বর্গকিলোমিটার (৯৪০ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা 
• ১৯৩১
১৩৪,৮৯১
ইতিহাস 
• প্রতিষ্ঠিত
খ্রিস্টীয় পঞ্চদশ শতাব্দী
১৯৪৮
পূর্বসূরী
উত্তরসূরী
গোয়ালিয়র রাজ্য
ভারত
রাজগড় রাজ্যর এক ঊমত শাসক

রাজগড় রাজ্যটি ২,৪৯২ বর্গ কিলোমিটার (৯৪০ বর্গ মাইল) ক্ষেত্রফল জুড়ে বিস্তৃত ছিলো এবং ১৯০১ খ্রিস্টাব্দের জনগণনা অনুসারে এটির জনসংখ্যা ছিলো ৮৮,৩৭৬ জন৷ ১৯১১ খ্রিস্টাব্দের রেকর্ড অনুসারে রাজ্যটির রাজস্বের পরিমাণ ছিলো ৩৩,০০০ ভারতীয় মুদ্রা, যার মধ্যে ৩,৬৪০ যেত গোয়ালিয়রের সিন্ধিয়ার নিকট৷ ১৯০১ খ্রিস্টাব্দে এটির রাজস্বের পরিমাণ ছিলো সর্বাধিক, প্রায় ৪৫০,০০০ ভারতীয় মুদ্রা এবং ঐ এককে রাজ নির্বাহীবাবদ প্রাপ্তি ছিলো ১৪০,০০০৷ মূল উৎপাদিত খাদ্যের মধ্যে পণ্য ছিলো দানাশস্য ও পেঁয়াজ৷ [৩][৪]

ইতিহাসসম্পাদনা

রাজগড় নরসিংহগড় অঞ্চলে পূর্বে ঊমাতওয়াড়া নামে একটি রাজ্য ছিলো এবং এই রাজ্যটির শাসক ১৪৪৮ খ্রিস্টাব্দে রাউত উপাধি গ্রহণ করেন, যা বংশ পরম্পরায় অবর্তিত হতে থাকে৷[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

১৬৮১ খ্রিস্টাব্দে ঊমাতওয়াড়া রাজ্য রাউত ছত্তর সিঙের সময়ে রাজগড়নরসিংহগড় নামে দুই রাজ্যে বিভক্ত হয়ে যায় তার দুই পুত্রের মধ্যে৷ রাউত মোহন সিং পান নরসিংহগড় রাজ্য এবং রাউত পরাশ্রমজী পান রাজগড় রাজ্য৷ রাউতের কন্যা মৃণালিনী দেবী হিমালয়ে পলায়ন করেন এবং তার নতুন রাজ-আসনের নামকরণ করেন রাজগড়, বর্তমানে এটি হিমাচল প্রদেশে অবস্থিত৷[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দে ভারতের স্বাধীনতা লাভের পর এই রাজগড় রাজ্য ভারতীয় অধিরাজ্যের অন্তর্ভুক্ত হয়। স্বাধীন ভারতে প্রাথমিকভাবে ১৯৪৮ খ্রিস্টাব্দে এটিকে মধ্যভারত ও পরে ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দের পয়লা নভেম্বর তারিখে নবগঠিত মধ্যপ্রদেশ রাজ্যে অংশীভূত করা হয়।[৫]

শাসকবর্গসম্পাদনা

১৮৭২ খ্রিস্টাব্দ অবধি রাজগড় দেশীয় রাজ্যের শাসক রাউত উপাধিতে ভূষিত হতেন৷ পরে একজন রাউত ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলে তিনি নবাব আখ্যা পান৷ ১৮৮০ থেকে রাউত উপাধি পুনরায় ফেরত আসে ও ১৮৮৬ খ্রিস্টাব্দ থেকে শাসকগণ রাজা উপাধি পান৷[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

ঊমত রাউতসম্পাদনা

  • ১৬৩৮ – ১৪ এপ্রিল ১৭১৪ মোহন সিং
  • ১৭১৪ – ১৭৪০ অমর সিং
  • ১৭৪০ – ১৭৪৭ নরপত সিং
  • ১৭৪৭ – ১৭৭৫ জগৎ সিং
  • ১৭৭৫ – ১৭৯০ হামির সিং
  • ১৭৯০ – ১৮০৩ প্রতাপ সিং
  • ১৮০৩ – ১৮১৫ পৃথ্বী সিং
  • ১৮১৫ – ১৮৩১ নেওয়াল সিং
  • ১৮৩১ – ১৮৭২ মোতি সিং
    • ১৮৪২ – নভেম্বর ১৮৪৭ ঠাকুর খোক সিং – প্রশাসক

নবাবসম্পাদনা

  • ১৮৭২ – অক্টোবর ১৮৮০ মহম্মদ আবদাল-ওয়াসি খান (মোতি সিং ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন)

রাউতসম্পাদনা

  • ১৮৮০ – ১৮৮২ বখতাওয়ার সিং
  • ৬ জুলাই ১৮৮২ – ১ জানুয়ারি ১৮৮৬ বলভদ্র সিং

রাজাসম্পাদনা

  • ১ জানুয়ারি ১৮৮৬ – জানুয়ারি ১৯০২ বলভদ্র সিং
  • ২০ জানুয়ারি ১৯০২ – ৯ জানুয়ারি ১৯১৬ বাণী সিং (১ জানুয়ারি ১৯০৮ থেকে স্যার বাণী সিং)
  • ২০ আগস্ট ১৯০৮ – ২১ নভেম্বর ১৯৪০ রাম সিং (হিমাচলী অংশ)
  • ১৭ জানুয়ারি ১৯১৬ – ২৬ অক্টোবর ১৯৩৬ বীরেন্দ্র সিং (১ জানুয়ারি ১৯১৮ থেকে স্যার বীরেন্দ্র সিং)
  • ১৮ ডিসেম্বর ১৯৩৬ – ১৫ আগস্ট ১৯৪৭ বিক্রমাদিত্য সিং
  • ২১ নভেম্বর ১৯৪০ – ১৫ আগস্ট ১৯৪৭ রামচরণ সিং (হিমাচলী অংশ)[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Imperial Gazetteer of India19। Clarendon Press। ১৯০৮। পৃষ্ঠা 241। 
  2. David P. Henige (২০০৪)। Princely states of India: a guide to chronology and rulers। Orchid Press। পৃষ্ঠা 22। আইএসবিএন 978-974-524-049-0 
  3.   চিসাম, হিউ, সম্পাদক (১৯১১)। "Rajgarh"। ব্রিটিশ বিশ্বকোষ22 (১১তম সংস্করণ)। কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটি প্রেস। পৃষ্ঠা 865। [[বিষয়শ্রেণী:উইকিসংকলনের তথ্যসূত্রসহ ১৯১১ সালের এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা থেকে উইকিপিডিয়া নিবন্ধসমূহে একটি উদ্ধৃতি একত্রিত করা হয়েছে]]
  4. https://dsal.uchicago.edu/reference/gazetteer/pager.html?objectid=DS405.1.I34_V08_131.gif
  5. "Rajgarh Princely State (11 gun salute)"। ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০২০