রওনক জাহান

বাংলাদেশী রাষ্ট্রবিজ্ঞানী, উচ্চশিক্ষায়তনিক ব্যক্তিত্ব ও লেখক

রওনক জাহান একজন বাংলাদেশী রাষ্ট্রবিজ্ঞানী। তিনি ১৯৪৪ সালে জন্মগ্রহণ গ্রহণ করেন । ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এই শিক্ষক পরে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত শিক্ষকতা ও গবেষণা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে। শিক্ষকতা ও গবেষণার পাশাপাশি সমাজ ও রাষ্ট্রের নানা ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন।

রওনক জাহান
জন্ম১৯৪৪ (বয়স ৭৯–৮০)
শিক্ষাপিএইচডি(রাষ্ট্রবিজ্ঞান)
মাতৃশিক্ষায়তন

১৯৭৭ সালে তিনি জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের সদস্য হিসেবে।[১] রওনক জাহান বাংলাদেশের নারীদের নিয়েও কাজ করেছেন। ১৯৭৩ সালে তিনি উইমেন ফর উইমেন যেটি বাংলাদেশের নারী ও নারীবাদ বিষয়ক প্রথম গবেষণা সংস্থা প্রতিষ্ঠা করেন।[২]

প্রারম্ভিক জীবন

সম্পাদনা

রওনক জাহান ১৯৬৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে মাস্টার্স করেন। পরে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬৮ সালে মাস্টার্স ও ১৯৭০ সালে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। 

কর্মজীবন

সম্পাদনা

হার্ভার্ড থেকে পিএইচডি ডিগ্রি নিয়ে ১৯৭০ সালেই তিনি শিক্ষক হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দেন। স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে তুলনামূলক রাজনীতি, রাজনৈতিক উন্নয়ন, রিসার্চ মেথডোলজি সহ বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষাদানের পাশাপাশি তার তত্ত্বাবধানে অনেকেই এমফিল ডিগ্রি ও পিএইচডি থিসিস করেছেন। ১৯৭৩ থেকে ৭৫ সাল পর্যন্ত তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। পরে রিসার্চ ফেলো হিসেবে কাজ করেছেন নরওয়ের মিশেলসেন ইন্সটিটিউট এবং যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের পলিটিক্যাল সায়েন্স অ্যান্ড কমিটি অন সাউথ এশিয়াতে। সিনিয়র গবেষণা সহযোগী কাজ করেছেন বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজে এবং হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের জন এফ কেনেডি স্কুল অফ গভর্নমেন্টে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকার সময় বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর নীতিনির্ধারণী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজে পরামর্শক হিসেবে অংশ নিয়েছেন তিনি। বিশেষ করে শিক্ষা, সংস্কৃতি, গ্রামীণ উন্নয়ন, নারী ও জনসংখ্যা বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের সাথেও কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। এছাড়া কনসালটেন্ট হিসেবে কাজ করেছেন জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থা, সিডা, নোরাড, ইউএসএইড, ফোর্ড ফাউন্ডেশন, রকফেলার ফাউন্ডেশন সহ বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থায়।

রওনক জাহান ১৯৮৫ থেকে ১৯৮৯ সাল পর্যন্ত সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার গ্রামীণ নারী, কর্মসংস্থান ও উন্নয়ন কর্মসূচির প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে জাতিসংঘের এশিয়া প্যাসিফিক ডেভেলপমেন্ট সেন্টার বা এপিডিসির ইনটিগ্রেশন অফ উইমেন ইন ডেভেলপমেন্ট কর্মসূচির সম্বয়ক হিসেবেও কাজ করেছেন প্রায় দু’বছর। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক সংস্থার অ্যাডভাইজরি বোর্ড কিংবা বোর্ড অফ ট্রাস্টি ছিলেন যার মধ্যে রয়েছে নিউইয়র্ক ভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ, ইন্টারন্যাশনাল কাউন্সিল অফ দা এশিয়া সোসাইটি এবং আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা বা আইএলও।

১৯৯০ সাল থেকে রওনক জাহান কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সাউদার্ন এশিয়ান ইন্সটিটিউটে সিনিয়র রিসার্চ স্কলার এবং একই বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অফ ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড পাবলিক এফেয়ার্সের শিক্ষকতা করছেন। তার শিক্ষকতার বিষয়গুলোর মধ্যে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ নীতিনির্ধারণী বিষয়, জেন্ডার, রাজনীতি এবং উন্নয়ন এবং বাংলাদেশের আর্সেনিক সংকট।

লেখালেখি

সম্পাদনা

দীর্ঘ শিক্ষকতা জীবনে তার গবেষণার মূল ক্ষেত্র ছিলো মূলত জেন্ডার অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট, গভর্ন্যান্স, স্বাস্থ্য এবং বাংলাদেশের রাজনীতি। লিখেছেন ও সম্পাদনা করেছেন অনেকগুলো গ্রন্থ। তার অসংখ্য লেখা প্রকাশিত হয়েছে একাডেমিক জার্নাল, ম্যাগাজিন এবং সংবাদপত্রে। তার গুরুত্বপূর্ণ বইগুলোর মধ্যে রয়েছে :

  • প্রমিজ অ্যান্ড পারফরমেন্স (সম্পাদিত, জেড বুকস ২০০০)
  • দ্যা ইলুসিভ এজেন্ডা: মেইনস্ট্রিমিং উইমেন ইন ডেভেলপমেন্ট (সেন্ট মার্টিন’স প্রেস ১৯৯৫)
  • বাংলাদেশ পলিটিকস: প্রবলেমস অ্যান্ড ইস্যুজ (ইউনিভার্সিটি প্রেস,১৯৮০)
  • পাকিস্তান: ফেইলিউর ইন ন্যাশনাল ইনটেগর‍্যাশন (কলাম্বিয়া ১৯৭২)

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "রওনক জাহান"একাডেমিকস। স্কুল অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড পাবলিক অ্যাফেয়ার্স, কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়। ২০০৭-০৬-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৮-২১  উদ্ধৃত করেছেন "রওনক জাহান"Source Watch (ইংরেজি ভাষায়)। Center for Media & Democracy। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৮-২১ 
  2. Burra, Neera। "Women and Micro-Credit: Some Challenges Note Prepared for the National Commission on Farmers" (পিডিএফ) (ইংরেজি ভাষায়)। UNDP। ২০০৭-০৬-২৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৮-২১