যৌথমূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমূহের পরিদপ্তর

যৌথমূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমূহের পরিদপ্তর (আরজেএসসি) হল বাংলাদেশ সরকারের একটি প্রতিষ্ঠান যা বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী কোম্পানি ও অন্যন্য প্রতিষ্ঠান গঠনের সুবিধা প্রদান করে, সেগুলোর নিবন্ধন প্রদান করে এবং প্রতিষ্ঠাসমূহের মালিকানা সম্পর্কিত সকল নথিপত্র সংরক্ষণ করে। প্রতিষ্ঠানটি একজন নিবন্ধকের অধীনে কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।

যৌথমূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমূহের পরিদপ্তর
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৬২
সদরদপ্তর,
মালিকবাংলাদেশ সরকার
ওয়েবসাইটwww.roc.gov.bd

ইতিহাসসম্পাদনা

ভারত বিভাগের পর পাকিস্তান বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে চট্টগ্রামে প্রতিষ্ঠানটি যাত্রা শুরু করে।[১] এ সময় কলকাতাতে নিবন্ধিত পূর্ব পাকিস্তানের কিছু কোম্পানি, পেশাদার সংগঠন ও অংশীদারী কারবারের নথিপত্র নিয়ে নিয়ে কার্যক্রম শুরু হয়। ১৯৬২ সালে এর প্রধথান কার্যালয় ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়। ২০১৫ সালের জুন পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির হিসেব অনুযায়ী, এর অধীনে ১ লক্ষ ৯০ হাজার প্রতিষ্ঠান নিবন্ধিত রয়েছে।

কার্যাবলিসম্পাদনা

যৌথমূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমূহের পরিদপ্তর মূলত পাবলিক কোম্পানি, প্রাইভেট কোম্পানি, বিদেশি কোম্পানি, ট্রেড অরগানাইজেশন (বাণিজ্য সংগঠন), সোসাইটি (সমিতি) এবং পার্টনারশিপ ফার্ম (অংশীদারী কারবার) নিয়ে কাজ করে। আরজেএসসি এসব প্রতিষ্ঠানের নামের ছাড়পত্র, নিবন্ধন, প্রত্যায়িত অনুলিপি প্রদান, উইন্ডিং আপ ও স্ট্রাক অফ নিয়ে কাজ করে।[২][৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Non-compliant firms to be removed from RJSC list"ডেইলি স্টার। সংগ্রহের তারিখ ২২ মার্চ ২০১৯ 
  2. "যৌথমূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমূহের পরিদপ্তর"যৌথমূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমূহের পরিদপ্তর (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ মার্চ ২০১৯ 
  3. "Govt securities can now be traded on DSE"ডেইলি স্টার। সংগ্রহের তারিখ ২২ মার্চ ২০১৯