যেতে নাহি দিব

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত বাংলা কবিতা

"যেতে নাহি দিব" রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত একটি কবিতা। এই কবিতাটি সোনার তরী কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত। মূল বাংলা কবিতাটিতে ১৭৬টি পঙ্‌ক্তি রয়েছে। এর ইংরেজি অনুবাদটি সংক্ষিপ্ত, এবং তাতে ১৬টি পঙ্‌ক্তি রয়েছে।[১][২]

যেতে নাহি দিব 
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কর্তৃক রচিত
Rabindranath Tagore portrait (4).jpg
মূল শিরোনামযেতে নাহি দিব
ভাষাবাংলা

সারসংক্ষেপসম্পাদনা

পূজার ছুটির পরে কবি (বা কথক) তার কর্মস্থলে ফিরে যেতে প্রস্তুত। তাকে নিয়ে যাওয়ার জন্য দুয়ারে গাড়ি প্রস্তুত। ভৃত্যগণ ব্যস্ত হয়ে জিনিসপত্র গোছাচ্ছে। গৃহিণীর চোখ অশ্রুঅসজল। কবি তার গৃহিণীকে বললেন "তবে আসি", গৃহিণী কিছু না বলে মাথা নত করে চোখের জল গোপন করলেন। কবি তার চার বছরের কন্যার কাছে গিয়ে বিদায় জানালেন, কিন্তু এই শিশু তাকে চমকে দিয়ে বললো "যেতে আমি দিব না তোমায়"। কবি বুঝতে পারলেন না এত ছোট মেয়ে এই ভাবে কথা বলার শক্তি কোথায় পেল।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Byomkesh Chandra Chakravorty (১৯৭১)। Rabindranath Tagore: his mind and art: Tagore's contribution to English literature (ইংরেজি ভাষায়)। Young India Publications। পৃষ্ঠা 33। 
  2. Mohan Lal (১৯৯২)। Encyclopaedia of Indian Literature: Sasay to Zorgot (ইংরেজি ভাষায়)। Sahitya Akademi। পৃষ্ঠা 4136–। আইএসবিএন 978-81-260-1221-3