'টাইচি চিহ্ন'

চীনা দর্শনে য়িন এবং য়াং (চীনা: yīnyáng, "অন্ধকার-ঊজ্বল", "ঋণাত্মক-ধনাত্মক") এই কথা বোঝায় যে দেখতে বিপরীত শক্তিসমূহ আসলে একটি অন্যটির পরিপূরক, সম্বন্ধিত এবং পরস্পর পরস্পরের ওপর নির্ভরশীল হতে পারে। চীনা সৃষ্টিতত্ত্বে ব্রহ্মাণ্ড নিজেকে পদার্থগত শক্তির প্রাথমিক বিশৃঙ্খলতা থেকে সৃষ্টি করে, য়িন এবং য়াঙের চক্রে ও বস্তু এবং জীবের সৃষ্টি হয়। য়িন গ্রাহক এবং য়াং কর্তা সূত্র। এটি সকল প্রকারের পরিবর্তন এবং পার্থক্য, যেমন বার্ষিক চক্র (শীত ও গরম), পাথার (উত্তরমুখী ছায়া এবং দক্ষিণমুখী ঊজ্বলতা), যৌন সম্বন্ধ গঠন (নারী ও পুরুষ), নারী ও পুরুষ উভয়ের চরিত্র রূপে সৃষ্টি এবং সামাজিক-রাজনৈতিক ইতিহাস (শৃঙ্খলতা এবং বিশৃঙ্খলতা)য় বিদ্যমান[১]

চীনা সৃষ্টিতত্ত্ব, দর্শন এবং বিজ্ঞানসম্পাদনা

চীনা সৃষ্টিতত্ত্ব-এ অনেক ধরনের গতি দেখা যায়। য়িন এবং য়াং সম্বন্ধীয় সৃষ্টিতত্ত্বে ব্রহ্মাণ্ডের নিজেকে সৃষ্টি করা পদার্থগত শক্তিকে 'চি' বলেও অভিহিত করা হয়। এই সৃষ্টিতত্ত্বে ধারণা করা হয় যে চি'র সংগঠন অনেক বস্তুর নির্মাণ করেছে।[২] তারই মধ্যে মানব অন্যতম। অনেক প্রাকৃতিক দ্বৈত যেমন আলো এবং অন্ধকার, অগ্নি এবং জল, বেশি হয়ে যাওয়া এবং ছোট হয়ে যাওয়া, য়িন এবং য়াঙের ধারণাতে চিহ্ন রূপে প্রকাশিত দ্বৈতেরই প্রাকৃতিক রূপ। শাস্ত্রীয় চীনা দর্শন এবং বিজ্ঞানের কয়েকটি শাখায় এই দ্বৈতের ধারণা প্রতিস্ফূট হয়। তদুপরি এটি পরম্পরাগত চীনা চিকিৎসারো[২] মূল নীতি। এটি বাকুবাঝাং, টাইচি এবং চি কঙের মতো চীনা সমরকলা এবং ব্যায়ামে প্রভাব বিস্তার করেছে। এই ধারণা ই চিঙের পৃষ্ঠাতেও দৃশ্যমান।

বিরোধী এবং পরিপূরকসম্পাদনা

দ্বৈতর ধারণা বিভিন্ন স্থানে দেখা যায়- যেমন অভ্যাসের মধ্যে। এই পটভূমিতে পরে য়িন এবং য়াঙকে 'এক'-এর অংশরূপে বোঝা যায় যা 'টাঅ''তে প্রকাশিত। "দ্বৈতবাদী-একবাদ" বা "দ্বন্দ্ববাদী-একবাদ" সংজ্ঞা এই ফলপূর্ণ বিরোধাভাসকে বোঝাতে চেষ্টা করে। য়িন এবং য়াঙকে বিরোধী নয়, পরিপূরক শক্তি হিসাবে বোঝানো যায়, যার দ্বারা অংশের যোগে বড় পূর্ণের সৃষ্টি হয়।[৩] এই দর্শনানুযায়ী, য়িন এবং য়াং সবকিছুতে বিদ্যমান, যেমন আলো ছাড়া ছায়া থাকা অসম্ভব। দুটির কোনো একটি অধিক ফলপ্রসূ রূপে দেখা দেয়, পরে এটি পর্যবেক্ষণের শর্তের ওপরে নির্ভরশীল। য়িন য়াং চিহ্ন দুই বিপরীত শক্তির মাঝের ভারসাম্যকেই দর্শাই, দুই অংশই একটি অন্যটিতে বিদ্যমান — দুই দুইয়ের পরিপূরক।

টাওবাদ, কনফুসিয়ানবাদ এবং নীতিসম্পাদনা

টাওবাদী অধিবিদ্যাতে ভাল এবং মন্দের মধ্যবর্তী পার্থক্য, এবং অন্যান্য নৈতিক দ্বৈত দৃষ্টিভংগীর ওপরে নির্ভরশীল, বাস্তবে নয়। তেমনি য়িন এবং য়াঙর দ্বৈত এক অবিভাজ্য পূর্ণতা। অন্যদিকে কনফুসিয়ান নীতিশাস্ত্রে, বিশেষকরে ডং ঝংশ্বৌর দর্শনে, এতে এক বিশেষ নৈতিক দিক যোগ করা হয়।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Feuchtwang, Stephan (২০১৬)। Religions in the Modern World: Traditions and Transformations। New York: Routledge। পৃষ্ঠা 150। আইএসবিএন 978-0-415-85881-6 
  2. Porkert (১৯৭৪)। The Theoretical Foundations of Chinese Medicine। MIT Press। আইএসবিএন 0-262-16058-7 
  3. Georges Ohsawa (১৯৭৬)। The Unique Principleআইএসবিএন 978-0-918860-17-0Google Books-এর মাধ্যমে। 
  4. Taylor Latener, Rodney Leon (২০০৫)। The Illustrated Encyclopedia of Confucianism2। New York: Rosen Publishing Group। পৃষ্ঠা 869। আইএসবিএন 978-0-8239-4079-0