যদুলাল মল্লিক (২৯ এপ্রিল ১৮৪৪ - ৫ ফেব্রুয়ারি ১৮৯৪) ছিলেন ঊনিশ শতকে ব্রিটিশ ভারতে কলকাতার অন্যতম সমাজসেবক ও এক দানশীল ব্যক্তিত্ব। আইনের ক্ষেত্রে তিনি উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছিলেন। [১]

যদুলাল মল্লিক
জন্ম(১৮৪৪-০৪-২৯)২৯ এপ্রিল ১৮৪৪
মৃত্যু৫ ফেব্রুয়ারি ১৮৯৪(1894-02-05) (বয়স ৪৯)
সন্তানমন্মথনাথ মল্লিক (পুত্র)
পিতা-মাতামতিলাল মল্লিক (পিতা)

জন্ম ও শিক্ষা জীবনসম্পাদনা

যদুলাল মল্লিকের জন্ম ১৯৪৪ খ্রিস্টাব্দের ২৯শে এপ্রিল।বৃটিশ ভারতের অধুনা পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতার পাথুরিয়াঘাটার অন্যতম ধনাঢ্য ব্যক্তি মতিলাল মল্লিকের দত্তক পুত্র ছিলেন। [২] যদুলাল মল্লিকের পড়াশোনা শুরু হয় কলকাতার ওরিয়েন্টাল সেমিনারিতে। পরে ভরতি হন হিন্দু স্কুলে। ১৮৬১ খ্রিস্টাব্দে কৃতিত্বের সঙ্গে এন্ট্রান্স পাশ করেন। পরে প্রেসিডেন্সি কলেজের স্নাতক হন। কিছুদিন আইন নিয়েও পড়াশোনা করেন।

কর্মজীবনসম্পাদনা

কর্মজীবনে যদুলাল মল্লিক ১৮৭৩ খ্রিস্টাব্দ হতে বারো বৎসর কলকাতা পৌরসংস্থার কমিশনার প্রভৃতি পদে ছিলেন। তাছাড়া তিনি ব্রিটিশ ইন্ডিয়ান অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য হিসাবে অনারারি ম্যাজিসেট্রটের পদেও ছিলেন। তিনি কমিশনার পদে থাকাকালীন উচ্চপদে আসীন সরকারী কর্মচারীদের কঠোর সমালোচনা করতেন। সেকারণে পৌরসংস্থার চেয়ারম্যান স্যার হেনরি হ্যারিসন তাকে দ্য ফাইটিং কক নামে আখ্যা দেন। তিনি ওই সময়ে বিবাহের সম্মতিপ্রদানের আইন, জুরির বিচার প্রভৃতির জন্য তুমুল আন্দোলন করেন। হিন্দু সুবর্ণবণিক সম্প্রদায়ের মধ্যে প্রচলিত পণপ্রথা বন্ধ করার জন্য যথেষ্ট চেষ্টা করেন। তিনি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসেরও একজন অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা-সদস্য ছিলেন। বিভিন্ন সমাজসেবায়, শিক্ষার ব্যাপারে উৎসাহী ছিলেন এবং দানধ্যানে উদার ছিলেন তিনি। ১৮৮৩ খ্রিস্টাব্দের ২১শে জুলাই শ্রীরামকৃষ্ণ তাঁর ভক্তদের সঙ্গে যদুলাল মল্লিকের পাথুরিয়াঘাটার গিয়ে তার নিত্যসেবিতা দেবী সিংহবাহিনী দর্শন করে সমাধিস্থ হয়েছিলেন। এরপরেও বহুবার যদুলাল মল্লিকের পাথুরিয়াঘাটার বাড়িতে শ্রীরামকৃষ্ণ পদার্পণ করেছেন। [২] আর্থিক বিপর্যয়ে তার প্রথম স্কুল ওরিয়েন্টাল সেমিনারি বন্ধ হয়ে যাওয়া মত অবস্থায় পৌঁছালে তিনি প্রচুর অর্থ দান করেন। দরিদ্র ছাত্রদের সাহায্যার্থে একটি অবৈতনিক বিভাগ প্রবর্তন করেন এবং ১৫০ টি ছাত্রের বিনা ব্যয়ে শিক্ষাদানের জন্য অর্থের সংস্থান করে দেন। এছাড়াও তিনি হিন্দু স্কুলে এবং ডাফ সাহেবের স্কুল প্রভৃতিতে একাধিক বৃত্তি প্রদানের ব্যবস্থা করে দেন।

জীবনাবসানসম্পাদনা

যদুলাল মল্লিক ১৮৯৪ খ্রিস্টাব্দের ৫ই ফেব্রুয়ারি কলকাতায় পরলোক গমন করেন।

পাথুরিয়াঘাটায় যদুলাল মল্লিকের নামাঙ্কিত একটি রাস্তা আছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. সুবোধ সেনগুপ্ত ও অঞ্জলি বসু সম্পাদিত, সংসদ বাঙালি চরিতাভিধান, প্রথম খণ্ড, সাহিত্য সংসদ, কলকাতা, আগস্ট ২০১৬, পৃষ্ঠা ৬০১, আইএসবিএন ৯৭৮-৮১-৭৯৫৫-১৩৫-৬
  2. "শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণকথামৃতে উল্লিখিত ব্যক্তিবৃন্দের পরিচয়"। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০২-০৪