মোহাম্মদ সাদিক

মোহাম্মদ সাদিক (জন্ম ১৯শে সেপ্টেম্বর, ১৯৫৫) হলেন একজন বাংলাদেশী কবি এবং বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের ১২ তম চেয়ারম্যান। কবিতায় অবদানের জন্য তিনি ২০১৭ সালে বাংলা একাডেমি থেকে প্রদত্ত বাংলা একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন।[১]

ড. মোহাম্মদ সাদিক
Muhammad Sadiq.jpg
কবি ড. মোহাম্মদ সাদিক, ঢাকা ২০১৭
১২ তম চেয়ারম্যান
বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন
কাজের মেয়াদ
২ মে ২০১৬ – ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
পূর্বসূরীএকরাম আহমেদ
উত্তরসূরীসোহরাব হোসাইন
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1955-09-19) ১৯ সেপ্টেম্বর ১৯৫৫ (বয়স ৬৫)
সুনামগঞ্জ, বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
মাতামাসতুরা বেগম
পিতাআলহাজ মোহাম্মদ মবশ্বির আলী
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়
পুরস্কারবাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার

জন্ম ও শিক্ষাজীবনসম্পাদনা

ড. মোহাম্মদ সাদিক ১৯৫৫ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। তার জন্মস্থান সুনামগঞ্জ জেলায়। বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে ১৯৭৬ সালে বি. এ.(সম্মান) এবং ১৯৭৭ সালে এম.এ. ডিগ্রিধারী ড. মোহাম্মদ সাদিক যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয় হতে ১৯৯৪-৯৫ সালে পারসোনাল ম্যানেজমেন্ট-এর উপর পড়াশুনা করেন এবং পরে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সিলেটি নাগরী লিপির ওপর তার গবেষণার জন্যে ভারতের আসাম বিশ্ববিদ্যালয় হতে পি. এইচ. ডি. ডিগ্রি লাভ করেন।

কর্মজীবনসম্পাদনা

ড. মোহাম্মদ সাদিক সরকারের শিক্ষা সচিব ও বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ইতোপূর্বে তিনি বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্বে ছিলেন। যেমন-জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব এ্যাডমিনিস্ট্রেশন এন্ড ম্যানেজমেন্ট (বিয়াম) ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক এবং বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস প্রশাসন একাডেমীর পরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক পদে দায়িত্ব পালন করেন। ড. মোহাম্মদ সাদিক সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নজরুল ইন্সটিটিউট-এর প্রতিষ্ঠাতা সচিব হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। তিনি শিল্প মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয়, তথ্য মন্ত্রণালয় এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ভিন্ন ভিন্ন পদেও দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি সুইডেনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব এবং কাউন্সেলর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০১৬ সালের ২ মে তারিখ বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান হিসেবে যোগদান করেন। এর পূর্বে তিনি গত ৩ নভেম্বর, ২০১৪ তারিখ হতে কমিশনের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সক্রিয় আছেন। তিনি বাংলা একাডেমি ও এশিয়াটিক সোসাইটি অব বাংলাদেশ-এর জীবন-সদস্য। তিনি জাতীয় কবিতা পরিষদ ও বাংলাদেশ রাইটার্স ক্লাব-এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।[২]

গ্রন্থতালিকাসম্পাদনা

কাব্যগ্রন্থ
  • আগুনে রেখেছি হাত (১৯৮৫)
  • ত্রিকালের স্বরলিপি (১৯৮৭)
  • বিনিদ্র বল্লম হাতে সমুদ্রের শব্দ শুনি (১৯৯১)
  • কে লইব খবর (২০১০)
  • নির্বাচিত কবিতা (২০০৫)
  • শফাত শাহের লাঠি (২০১৭)
জীবনী
  • কবি রাধারমণ দত্ত: সহজিয়ার জটিল জ্যামিতি (২০১৭)
অনুবাদ
  • নেই আর নীলাকাশ, চিনুয়া এচিবি-র উপন্যাস No Longer at Ease (১৯৬০) এর অনুবাদ

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "মোহাম্মদ সাদিকসহ ১২ জন পাচ্ছেন বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। ২৭ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জানুয়ারি ২০১৮ 
  2. "ড. মোহাম্মদ সাদিক"। বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন। 

বহি:সংযোগসম্পাদনা

  • বিপিএসসি-র ওয়েবসাইটে প্রদত্ত বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের চেয়ারম্যানদের তালিকা।