মোর (সাউন্ডট্র্যাক)

মোর ব্রিটিশ রক ব্যান্ড পিংক ফ্লয়েডের প্রথম সাউন্ডট্র্যাক এবং তৃতীয় স্টুডিও অ্যালবাম। এটি ১৩ জুন ১৯৬৯ সালে ইএমআই কলাম্বিয়া থেকে যুক্তরাজ্যে এবং ৯ আগস্ট ১৯৬৯ সালে টাওয়ার রেকর্ডস থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রকাশিত হয়।[৩] এটি ১৯৬৯ সালে একই নামের চলচ্চিত্রের জন্য নির্মিত সাউন্ডট্র্যাক, যেটি প্রাথমিকভাবে ইবিজায় ধারণকৃত বারবেট শ্রোডারের পরিচালনায় অভিষেক চলচ্চিত্র। এটি ছিল প্রাক্তন ব্যান্ড নেতা সিড ব্যারেটের কোন প্রকার সাহচার্য ব্যাতীয় ব্যান্ডের প্রথম অ্যালবাম।

মোর
পিংক ফ্লয়েড - মোর (১৯৬৯).jpg
পিংক ফ্লয়েড কর্তৃক স্টুডিও অ্যালবাম / সাউন্ডট্র্যাক অ্যালবাম
মুক্তির তারিখ১৩ জুন ১৯৬৯ (1969-06-13)[১]
শব্দধারণের সময়১ ফেব্রুয়ারি – ৩১ মে ১৯৬৯
শব্দধারণকেন্দ্রপায়ে, লন্ডন
ঘরানাসাইকেডেলিক রক[২]
দৈর্ঘ্য৪৫:০০
সঙ্গীত প্রকাশনী
প্রযোজকপিংক ফ্লয়েড
পিংক ফ্লয়েড কালক্রম
অ্যা সোসারফুল অব সিক্রেট্‌স
(১৯৬৮)
মোর
(১৯৬৯)
উমাগুমা
(১৯৬৯)

মুক্তি এবং সংবর্ধনাসম্পাদনা

পেশাদারী মূল্যায়ন
পর্যালোচনা স্কোর
উৎসমূল্যায়ন
অলমিউজিক     [৪]
দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ     [৫]
জনপ্রিয় সঙ্গীতের বিশ্বকোষ     [৬]
মিউজিকহাউন্ড১/৫[৭]
দ্য রোলিং স্টোন অ্যালবাম গাইড     [৮]

ট্র্যাক তালিকাসম্পাদনা

প্রথম পাশ
নং.শিরোনামলেখকদৈর্ঘ্য
১."সিরাস মাইনর"ওয়াটার্স৫:১৮
২."দ্য নাইল সং"ওয়াটার্স৩:২৬
৩."ক্রায়িং সং"ওয়াটার্স৩:৩৩
৪."আপ দ্য খাইবার" (ইনস্ট্রুমেন্টাল)মেইসন, রাইট২:১২
৫."গ্রিন ইজ দ্য কালার"ওয়াটার্স২:৫৮
৬."সিম্বালাইন"ওয়াটার্স৪:৫০
৭."পার্টি সিকোয়েন্স" (ইনস্ট্রুমেন্টাল)ওয়াটার্স, রাইট, গিলমোর, মেইসন১:০৭
মোট দৈর্ঘ্য:২৩:২৪
দ্বিতীয় পাশ
নং.শিরোনামলেখকদৈর্ঘ্য
১."মেইন থিম" (ইনস্ট্রুমেন্টাল)ওয়াটার্স, রাইট, গিলমোর, মেইসন৫:২৭
২."ইবিজা বার"ওয়াটার্স, রাইট, গিলমোর, মেইসন৩:১৯
৩."মোর ব্লুস" (ইনস্ট্রুমেন্টাল)ওয়াটার্স, রাইট, গিলমোর, মেইসন২:১২
৪."কুইকসিলভার" (ইনস্ট্রুমেন্টাল)ওয়াটার্স, রাইট, গিলমোর, মেইসন৭:১৩
৫."অ্যা স্প্যানিশ পিস"গিলমোর১:০৫
৬."ড্রামাটিক থিম" (ইনস্ট্রুমেন্টাল)ওয়াটার্স, রাইট, গিলমোর, মেইসন২:১৫
মোট দৈর্ঘ্য:২১:৩২

কর্মিবৃন্দসম্পাদনা

অলমিউজিক এবং মার্টিন পপফ থেকে নেওয়া:[৯][১০]

অতিরিক্ত কর্মিবৃন্দ

চার্টসম্পাদনা

চার্ট (১৯৬৯) শীর্ষ
অবস্থান
ডাচ অ্যালবাম (মেগাচার্টস)[১১] ১৪
ইউকে অ্যালবাম (ওসিসি)[১২]
চার্ট (১৯৭৩) শীর্ষ
অবস্থান
ইউএস বিলবোর্ড ২০০[১৩] ১৫২
চার্ট (২০১১) শীর্ষ
অবস্থান
ফরাসি অ্যালবাম (এসএনইপি)[১৪] ১২৮

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

উদ্ধৃতিসমূহ

  1. "১৯৬৯" (ইংরেজি ভাষায়)। পিংক ফ্লয়েড। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৭ 
  2. স্পেন্সর ২০১৪, পৃ. ৩১৫।
  3. পোভেই ২০০৮, পৃ. ১১০,৩৪৩।
  4. আন্টেরবার্জার, রিচি. অলমিউজিকে Album review. Retrieved 3 July 2011.
  5. ম্যাক্রোমিক, নিল (২০ মে ২০১৪)। "Pink Floyd's 14 studio albums rated"দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ। লন্ডন। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  6. লার্কিন, কলিন (২০১১)। জনপ্রিয় সঙ্গীতের বিশ্বকোষ (ইংরেজি ভাষায়)। অমনিবাস প্রেস। আইএসবিএন 9780857125958। সংগ্রহের তারিখ ২২ মে ২০১৯ 
  7. গ্রাফ, গ্যারি; দুরছলজ, ড্যানিয়েল (সম্পা.) (১৯৯৯)। MusicHound Rock: The Essential Album Guide। ফার্মিংটন হিলস, মিশিগান: ভিসিবলে ইন্ক্ প্রেস। পৃষ্ঠা ৮৭২। আইএসবিএন 1-57859-061-2 
  8. Sheffield, Rob (২ নভেম্বর ২০০৪)। "পিংক ফ্লয়েড: অ্যালবাম গাইড"রোলিং স্টোনওয়েনার মিডিয়া, ফায়ারসাইড বুক্‌স। ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  9. "More – Credits"অলমিউজিক। ৭ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০১৯ 
  10. Popoff 2018, পৃ. 36।
  11. "Pink Floyd – More" (ডাচ ভাষায়)। Dutchcharts.nl. হাং মেডিয়ান। সংগ্রহের তারিখ 9 June 2016.
  12. "Pink Floyd | Artist | Official Charts". ইউকে অ্যালবাম চার্ট সংগ্রহের তারিখ 9 June 2016.
  13. "Pink Floyd Album & Song Chart History" বিলবোর্ড ২০০ for Pink Floyd. সংগ্রহের তারিখ 9 June 2016.
  14. "Pink Floyd – More". Lescharts.com. হাং মেডিয়ান। সংগ্রহের তারিখ 9 June 2016.

উৎস

বহিঃসংযোগসম্পাদনা