মেহারী ইউনিয়ন

ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার কসবা উপজেলার একটি ইউনিয়ন

মেহারী বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার অন্তর্গত কসবা উপজেলার একটি ইউনিয়ন

মেহারী
ইউনিয়ন
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সীল.svg ২নং মেহারী ইউনিয়ন পরিষদ
মেহারী বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
মেহারী
মেহারী
বাংলাদেশে মেহারী ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°৪৬.৫′ উত্তর ৯১°৪′ পূর্ব / ২৩.৭৭৫০° উত্তর ৯১.০৬৭° পূর্ব / 23.7750; 91.067স্থানাঙ্ক: ২৩°৪৬.৫′ উত্তর ৯১°৪′ পূর্ব / ২৩.৭৭৫০° উত্তর ৯১.০৬৭° পূর্ব / 23.7750; 91.067
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলাব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা
উপজেলাকসবা উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সরকার
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৩৪৬০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানচিত্র

আয়তনসম্পাদনা

মেহারী ইউনিয়নের আয়তন ৫,৪৫০ একর (২২.০৬ বর্গ কিলোমিটার)।[১]

জনসংখ্যার উপাত্তসম্পাদনা

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী মেহারী ইউনিয়নের মোট জনসংখ্যা ২৬,৩৩৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১২,১৭৯ জন এবং মহিলা ১৪,১৫৬ জন। মোট পরিবার ৫,০১৮টি।[১] জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গ কিলোমিটারে প্রায় ১,১৯৪ জন।[২] নিচে এ ইউনিয়নের গ্রামভিত্তিক জনসংখ্যা উল্লেখ করা হলো:

ওয়ার্ড নং গ্রামের নাম জনসংখ্যা (২০১১)
১নং ওয়ার্ড ঈশান নগর ১,২৫০ জন
যমুনা ১,৮৮৭ জন
২নং ওয়ার্ড মেহারী ৩,৭১৮ জন
৩নং ওয়ার্ড বল্লভপুর ১,৩৯০ জন
৪নং ওয়ার্ড শিমরাইল সাতপাড়া ৩,২৯৬ জন
৫নং ওয়ার্ড শিমরাইল মধ্যপাড়া ৩,৯৪৪ জন
৬নং ওয়ার্ড শিমরাইল উত্তরপাড়া ২,৯২৬ জন
৭নং ওয়ার্ড খেওড়া ২,০০০ জন
বামুটিয়া  ৬৪৩ জন
৮নং ওয়ার্ড পুরকুইল ৬৫০ জন
বাহারআটা ১,০১২ জন
খেওড়া পশ্চিমপাড়া ১,৬৯৭ জন
৯নং ওয়ার্ড চৌবেপুর ২,৫৬৫ জন

ইতিহাসসম্পাদনা

বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক রাজধানী খ্যাত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মেহারী নামক গ্রামটি মেহারী ইউনিয়ন তথা কসবা উপজেলার একটি ঐতিহ্যবাহী প্রাচীন গ্রাম। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের আগেও এখানে কয়েকশো বছরের পুরনো ইমারত ও প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন খুঁজে পাওয়া যায়, যা অনাদর আর অবহেলায় হারিয়ে গেছে।

ধারণা করা হয় সেন বংশের রাজত্বকালে এখানে মিহির চন্দ্র নামক একজন ধনী ব্যবসায়ী বাস করতেন। আশে পাশের দশ গ্রামের লোকজন তার বসবাস করা বাড়িকে মিহির বাড়ি বলে ডাকতেন। সেই "মিহির বাড়ি" নামটিই পরবর্তিতে লোকজনের মুখে মুখে ঈষৎ পরিবর্তিত হয়ে (মিহির বাড়ি>মেহার বাড়ি>মেহারী) মেহারী নাম ধারন করে।

অন্য এক তথ্যমতে, মেহারী, বর্ণি, কালসার এই তিন গ্রামের লোকজন কোন এক সময় একই পরিবারভুক্ত ছিল। জানা যায়, মেহের খাঁ, বরুণ খাঁ ও কালন খাঁ নামক একই পরিবারের তিন ব্যক্তির নামানুসারে যথাক্রমে মেহারীর নামকরণ; মেহের খাঁ থেকে, বর্ণির নামকরণ বরুণ খাঁ থেকে, কালসারের নামকরণ কালন খাঁ থেকে হয়েছে বলে জনশ্রুতি রয়েছে।

মেহারী গ্রামে একটি ঐতিহ্যবাহী কালী মন্দির অবস্থিত।এখানে প্রতি বছর মহা সমারোহে সনাতন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের পূজা ও বটতলায় মেলা অনুষ্ঠিত হয়।বিশেষ সূত্র থেকে জানা যায়, মেহারী কালী মন্দিরের নাম অনুসারে তৎকালীন লালু গোঁসাই নামে এক জন চেয়ারম্যান পরিষদের নাম দেন মেহারী ইউনিয়ন পরিষদ।

অবস্থান ও সীমানাসম্পাদনা

কসবা উপজেলার উত্তর-পশ্চিমাংশে মেহারী ইউনিয়নের অবস্থান। এ ইউনিয়নের দক্ষিণে কুটি ইউনিয়ন, পূর্বে কসবা পশ্চিম ইউনিয়নখাড়েরা ইউনিয়ন, উত্তর-পূর্বে বাদৈর ইউনিয়ন, উত্তরে মূলগ্রাম ইউনিয়ননবীনগর উপজেলার কাইতলা দক্ষিণ ইউনিয়ন এবং পশ্চিমে নবীনগর উপজেলার লাউর ফতেপুর ইউনিয়নকুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার আন্দিকোট ইউনিয়ন অবস্থিত।

প্রশাসনিক কাঠামোসম্পাদনা

মেহারী ইউনিয়ন কসবা উপজেলার আওতাধীন ২নং ইউনিয়ন পরিষদ। এ ইউনিয়নের প্রশাসনিক কার্যক্রম কসবা থানার আওতাধীন। এটি জাতীয় সংসদের ২৪৬নং নির্বাচনী এলাকা ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ এর অংশ।

এ ইউনিয়নের গ্রামগুলো হল:

  • পুরকুইল
  • মেহারী
  • খেওড়া
  • যমুনা
  • বাহার আটা
  • ঈশান নগর
  • চৌবেপুর
  • বামুটিয়া
  • শিমরাইল
  • বল্লভপুর

কার্যালয়সম্পাদনা

এই ইউনিয়নের কার্যালয় ১-নং ওয়ার্ড ভুক্ত ঈশান নগর গ্রামে অবস্থিত। ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়টি L আকৃতির দ্বি-তল ভবন।

শিক্ষা ব্যবস্থাসম্পাদনা

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী মেহারী ইউনিয়নের সাক্ষরতার হার ৪৭.৪%।[১]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসম্পাদনা

  • পুরকুইল গাউছিয়া হাবিবিয়া ফাযিল মাদরাসা
  • মেহারী ওবাদিয়া ফাযিল মাদরাসা
  • খেওড়া মা আনন্দময়ী উচ্চ বিদ্যালয়
  • খেওড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • যমুনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • ঈশান নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • চৌবেপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

যোগাযোগ ব্যবস্থাসম্পাদনা

খাল ও নদীসম্পাদনা

  • রাজার খাল

হাট-বাজারসম্পাদনা

  • খেওড়া বাজার
  • যমুনা বাজার
  • পুরকুইল মোড়ের বাজার

দর্শনীয় স্থানসম্পাদনা

কৃতি ব্যক্তিত্বসম্পাদনা

  • হাবিবুর রহমান -- পীর সাহেব, পুরকুইল গাউছিয়া হাবিবিয়া দরবার শরীফ, পুরকুইল।
  • আনন্দময়ী মা (১৮৯৬-১৯৮২) -- হিন্দু আধ্যাত্মিক সাধিকা। খেওড়া গ্রামে তাঁর জন্ম হয়।

জনপ্রতিনিধিসম্পাদনা

  • বর্তমান চেয়ারম্যান: মোঃ আলম মিয়া

পূর্বের চেয়ারম্যান :

নং নাম গ্রাম কার্যকাল
বাবু লালু গোসাই মেহারী ১৯৬৬ইং-১৯৭১ইং
মোঃ খোরশেদ আলম শিমরাইল ১৯৭২ইং-১৯৭৬ইং
মোঃ আজিজ ভূইয়া পুরকুইল ১৯৭৭ইং-১৯৮১ইং
মোঃ আবদুর রহিম যমুনা ১৯৮২ইং-১৯৮৬ ইং
মোঃ ছালাম প্রফেসার মেহারী ১৯৮৭ইং-১৯৯১ইং
মোঃ মাহফুজুর রহমান শিমরাইল ১৯৯২ই -১৯৯২ইং
মোঃ শরীফ সামসুল হক খেওড়া ১৯৯৩ই-১৯৯৭ইং
মোঃ মোবারক হোসেন শিমরাইল ১৯৯৮ইং-৩১/০৩/২০০৩ইং
মোঃ আলম মিয়া শিমরাইল ১/৪/২০০৩ইং-৩১/০৭/২০১১ইং
১০ মোঃ মোস্তফা কামাল শিমরাইল ০১/০৮/২০১১-২০১৬
১১ মোঃ আলম মিয়া শিমরাইল ২০১৬-চলতি

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "ইউনিয়ন পরিসংখ্যান সংক্রান্ত জাতীয় তথ্য" (PDF)web.archive.org। Wayback Machine। সংগ্রহের তারিখ ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  2. "ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার তথ্য উপাত্ত" (PDF)web.archive.org। Wayback Machine। সংগ্রহের তারিখ ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা