প্রধান মেনু খুলুন

মুম্বই উপনগরীয় রেল

ভারতের বিশিষ্ট, স্থানীয় রেল
(মুম্বাই উপনগরীয় রেল থেকে পুনর্নির্দেশিত)

মুম্বাই উপনগরীয় রেল ভারতের, মুম্বাই মহানগরীর স্থানীয় সার্বজনিক পরিবহন ব্যবস্থা। মুম্বাই উপনগরীয় রেল পরিচালনা করে ভারতীয় রেলের, মধ্যপশ্চিম রেল বিভাগ। এই উপনগরীয় রেলের সর্বমোট দৈর্ঘ্য ৪৬৫ কিলোমিটার (২৮৯ মা), যেখানে প্রয় ২৩৪২টি ট্রেন দৈনিক ৭.৫ মিলিয়ন যাত্রী পরিবহন করে; এই হিসেবে বার্ষিক যাত্রী পরিবহন সাংখ্য প্রায় ২.৬৪ বিলিয়ন। মুম্বাই উপনগরীয় রেল, ভারতের বৃহত্তম তথা বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ উপনগরীয় রেলগুলির একটি।[২]

মুম্বাই উপনগরীয় রেল
मुंबई उपनगर रेल्वे
Indian Railways Suburban Railway Logo.svg
Mumbai Train.JPG
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
অবস্থানমুম্বাই মহানগর অঞ্চল, মহারাষ্ট্র, ভারত
পরিবহনের ধরনউপনগরীয় রেল
চক্রপথের (লাইনের)
সংখ্যা
৬টি
বিরতিস্থলের (স্টেশন)
সংখ্যা
দৈনিক যাত্রীসংখ্যা৭.৫৮৫ মিলিয়ন[১]
বাৎসরিক যাত্রীসংখ্যা২.৬৫ বিলিয়ন
প্রধান কার্যালয়চার্চগেট (পরে)
ছত্রপতি শিবাজী টার্মিনাস (মরে)
ওয়েবসাইটপশ্চিম রেল তথ্যক্ষেত্র
মধ্য রেল তথ্যক্ষেত্র
চলাচল
চালুর তারিখ১৬ এপ্রিল ১৮৫৬
পরিচালক সংস্থা
রেলগাড়ির দৈর্ঘ্য০৯/১২/১৫ বগি
কারিগরি তথ্য
মোট রেলপথের দৈর্ঘ্য৪২৭.৫ কিলোমিটার (২৬৫.৬ মা)
রেলপথের গেজ১,৬৭৬ mm (5 ft 6 in) Indian gauge
বিদ্যুতায়ন২৫,০০০ ভোল্ট AC overhead catenary
গড় গতিবেগ৫০ কিমি/ঘ (৩১ মা/ঘ)
শীর্ষ গতিবেগ১০০ কিমি/ঘ (৬২ মা/ঘ)

পরিচ্ছেদসমূহ

ইতিহাসসম্পাদনা

মুম্বাই উপনগরীয় রেলের ইতিহাস অনেক পুরনো। কারণ, দক্ষিণ এশিয়ায় ব্রিটিশ কর্তৃক প্রথম ১৮৫৩ সালের ১৬ এপ্রিল তারিখে প্রথম ট্রেন চালিত হয় বোরি বন্দর (বর্তমান ছত্রপতি শিবাজী টার্মিনাস) থেকে থানে পর্যন্ত। মুম্বাই উপনগরীয় রেল তারই একটি প্রশাখা।

পরিষেবাসম্পাদনা

সন্ত্রাসী আক্রমণসম্পাদনা

মুম্বাই উপনগরীয় রেল মোট আঠ বার সন্ত্রাসী আক্রমণের সামনা করেছে। এবং এর ফলে প্রায় ৩৬৮ জন মানুষ মারা গেছে বলে ধারণা করা হয়।

জনপ্রিয় সাংস্কৃতিতেসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "মানুষের মতো চলতে পায়না মুম্বাইকার? - Dainik Dabang Dunia"। Dabangdunia.com। ২০১৫-০৯-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-২৮ 
  2. All you need to know about Mumbai's newly launched metro - Firstpost
  3. Dubey, Bharati (২০১৩-০৩-১৭)। "Bollywood shoots boost Western Railways' coffers by Rs 1.5 crore"। The Times Of India। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৭-১৬ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা