মাহমুদ আশরাফ উসমানি

পাকিস্তানি মুফতি ও লেখক

মাহমুদ আশরাফ উসমানি (১৪ মে ১৯৫১ - ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২) একজন পাকিস্তানি ইসলামি পণ্ডিত, মুফতি, লেখক এবং দারুল উলুম করাচির দারুল-ইফতার প্রধান ছিলেন। তিনি জামিয়া আশরাফিয়া এবং মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন প্রাক্তন ছাত্র ছিলেন। তিনি এক লক্ষেরও বেশি ফতোয়া জারি করেছেন এবং হাদিস, রহস্যবাদ, আইনশাস্ত্র এবং তাফসীর বিষয়ে প্রায় তিন ডজন বই লিখেছেন।


মাহমুদ আশরাফ উসমানি
مفتی محمود اشرف عثمانی
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম(১৯৫১-০৫-১৪)১৪ মে ১৯৫১
মৃত্যু২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২(2022-02-27) (বয়স ৭০)
ধর্মইসলাম
পিতামাতা
  • জাকি কাইফি (পিতা)
যেখানের শিক্ষার্থীজামিয়া আশরাফিয়া
মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়
পেশামুফতি, গবেষক এবং লেখক
প্রতিষ্ঠানজামিয়া আশরাফিয়া
দারুল উলুম করাচি
মুসলিম নেতা
পেশামুফতি, গবেষক এবং লেখক
ওয়েবসাইটmahmoodashrafusmani.com

মাহমুদ আশরাফ উসমানি ১৯৫১ সালের ১৪ই মে লাহোরে দেওবন্দের উসমানি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা জাকি কাইফি ছিলেন উর্দু ভাষার একজন কবি এবং ইসলামি পণ্ডিত মুহাম্মদ শফি উসমানির জ্যেষ্ঠ পুত্র।

উসমানি ইফতিখার আহমদ কায়সারের কাছে কুরআন মুখস্থ করা শুরু করেন এবং রৌনক আলীর কাছে এটি মুখস্থ করা শেষ করেন।[১][২] তিনি বাড়িতেই প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করেন এবং ১৯৭০ সালে লাহোরের জামিয়া আশরাফিয়া থেকে ঐতিহ্যবাহী দারসে নিজামিতে স্নাতক পাশ করেন। তিনি আশরাফিয়া মাদ্রাসায় দুই বছর অধ্যাপনা করার পর মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নের জন্য চলে যান। এদিকে তার বাবা জাকি কাইফি মারা গেলেও তিনি তার মাতৃশিক্ষায়তন জামিয়া আশরাফিয়ায় পড়াতে থাকেন। ১৯৯০ সালে তিনি দারুল উলুম করাচিতে যোগদান করেন, যেখানে তিনি সহীহ বুখারী পড়াতেন এবং মুফতি পদে অধিষ্ঠিত হন।[১][৩]

উসমানি ৭০ বছর বয়সে ২০২২ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি করাচিতে মারা যান।[৪] সকাল সাড়ে ১১টায় দারুল উলুম করাচিতে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয় এবং সেখানে তাকে দাফন করা হয়। জমিয়ত উলামায়ে ইসলাম (ফ) এর প্রধান ফজলুর রহমান মুহাম্মদ তাকি উসমানির সঙ্গে যোগাযোগ করে শোক প্রকাশ করেন।[৫]

সাহিত্যকর্ম

সম্পাদনা

উসমানি এক লাখেরও বেশি ফতোয়া জারি করেন। এছাড়াও তিনি হাদিস, সুফিবাদ, ফিকহ ও তাফসীর বিষয়ে প্রায় তিন ডজন গ্রন্থ রচনা করেছেন। তার রচনা সমূহের মধ্যে রয়েছে:

  • ইলম ওয়া হুল্লাম
  • হজরত মুয়াবিয়া
  • ইসলামে খেলাধুলা ও বিনোদন
  • বয়ানুত তাফসীর
  • আকিদায়ে ইমামত ও গাদীরে খুমের হাদিস

আরও দেখুন

সম্পাদনা

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "متاز عالم دین، محدث و مصنف مفتی محمود اشرف عثمانی انتقال کرگئے"MM NEWS URDU (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০২-২৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-০৭ 
  2. "About"Mahmood Ashraf Usmani (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০২-২৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-০৭ 
  3. "مفتی محمد تقی عثمانی کے بھتیجے اور دارالعلوم کراچی کے شیخ الحدیث مفتی محمود اشرف عثمانی کا انتقال، عالم اسلام کی فضا مغموم"। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-০৭ 
  4. "مفتی تقی عثمانی کے بھتیجے مفتی محمود اشرف عثمانی انتقال کرگئے"Daily Pakistan (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০২-২৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-০৭ 
  5. "مفتی محمود اشرف عثمانی کی وفات کے سانحہ سے دل غمزدہ ہے، مولانا فضل الرحمان" (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০২-২৭। ২০২২-০২-২৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-০৭