মালীর চন্দ্রমল্লিকা

উদ্ভিদের প্রজাতি

মালীর চন্দ্রমল্লিকা (বৈজ্ঞানিক নাম: Chrysanthemum morifolium ইংরেজি নাম: Chrysanthemum,[২] florist's Daisy[৩]) হচ্ছে এ্যাসটারাসি পরিবারের ক্রিসেনথিমাম গণের একটি সপুষ্পক বিরুৎ।

Chrysanthemum × morifolium
Chrysanthemum,kiku,katori-city,japan.JPG
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Plantae
উপজগৎ: Tracheobionta
বিভাগ: Magnoliophyta
শ্রেণী: Magnoliopsida
উপশ্রেণী: Asteridae
বর্গ: Asterales
পরিবার: Asteraceae
উপপরিবার: Asteroideae
গোত্র: Anthemideae
উপগোত্র: Glebionidinae
গণ: Chrysanthemum
প্রজাতি: I. carinata
দ্বিপদী নাম
Chrysanthemum × morifolium
(Schousb.) Sch.Bip.
প্রতিশব্দ[১]
  • Anthemis × artemisifolia Willd.
  • Anthemis × grandiflora Ramat.
  • Anthemis × stipulacea Moench
  • Chrysanthemum × hortorum W.Mill.
  • Chrysanthemum × indicum Thunb.
  • Chrysanthemum indicum var. purpureum Pers.
  • Chrysanthemum × maximoviczianum Ling
  • Chrysanthemum × morifolium Ramat.
  • Chrysanthemum × morifolium f. japonense Makino
  • Chrysanthemum × sinense Sabine
  • Chrysanthemum × stipulaceum (Moench) W.Wight
  • Dendranthema × grandiflorum (Ramat.) Kitam.
  • Dendranthema × morifolium (Ramat.) Tzvelev
  • Dendranthema × sinense (Sabine) Des Moul.
  • Matricaria × morifolia Ramat.
  • Pyrethrum × sinense (Sabine) DC.
  • Tanacetum × morifolium Kitam.
  • Tanacetum × sinense (Sabine) Sch.Bip.

বিবরণসম্পাদনা

এই প্রজাতিটি দেখতে সোজা, ঘন ডালপালা বিশিষ্টি মাঝারি আকারের বহুবর্ষজীবী বীরুৎ। এদের ফুল থোকা থোকা হয়ে ডালের আগায় ফুটে। ফুলের আকার বড় ও বাহারি রঙের হয়। গাছে ফুল তাজা থাকে ২০ থেকে ২৫ দিন৷

বিস্তৃতিসম্পাদনা

চীনে স্থানীয়ভাবে জন্মে। এছাড়াও বাংলাদেশ, জাপানসহ শীতপ্রধান দেশে এই প্রজাতি ভালো জন্মে।

চিত্রশালাসম্পাদনা

আরো পড়ুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Chrysanthemum × morifolium (Ramat.) Hemsl."Plants of the World Online। Royal Botanic Gardens, Kew। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-২৪ 
  2. "Chrysanthemum morifolium (Hardy garden mum)"। Fine Gardening.com। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  3. "Chrysanthemum ×morifolium Ramat. (pro sp.) florist's daisy"। Plants USDA.gov। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১২