মহাকালি ইউনিয়ন

মুন্সিগঞ্জ জেলার মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার একটি ইউনিয়ন

মহাকালি ইউনিয়ন বাংলাদেশের মুন্সিগঞ্জ জেলার অন্তর্গত মুন্সীগঞ্জ সদরের একটি ইউনিয়ন।

মহাকালি ইউনিয়ন
ইউনিয়ন
মহাকালি ইউনিয়ন বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
মহাকালি ইউনিয়ন
মহাকালি ইউনিয়ন
বাংলাদেশে মহাকালি ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°২৭′৩০″ উত্তর ৯০°৩২′৩০″ পূর্ব / ২৩.৪৫৮৩৬০° উত্তর ৯০.৫৪১৭৬০° পূর্ব / 23.458360; 90.541760স্থানাঙ্ক: ২৩°২৭′৩০″ উত্তর ৯০°৩২′৩০″ পূর্ব / ২৩.৪৫৮৩৬০° উত্তর ৯০.৫৪১৭৬০° পূর্ব / 23.458360; 90.541760
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগঢাকা বিভাগ
জেলামুন্সিগঞ্জ জেলা
উপজেলামুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ইউনিয়নমহাকালি
প্রতিষ্ঠা১৯৮৪
আয়তন
 • মোট৯.৬৫ বর্গকিমি (৩.৭৩ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০০১)
 • মোট১৮,৯০৯
 • জনঘনত্ব২,০০০/বর্গকিমি (৫,১০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৫৬.৮১%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানচিত্র

ভৌগলিক উপাত্তসম্পাদনা

মহাকালি ইউনিয়নের মোট আয়তন ২৩৮৪ একর।[১]

জনসংখ্যার উপাত্তসম্পাদনা

বাংলাদেশের ২০১১ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী মহাকালি ইউনিয়নের মোট জনসংখ্যা ১৮৯০৯ জন। এদের মধ্যে ৯৪৯৫ জন পুরূষ এবং ৯৪১৪ জন মহিলা।[২]

ইতিহাসসম্পাদনা

পাল রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতা গোপাল পাল থেকে শুরু করে একাদশ শতাব্দী পর্যন্ত পালবংশ বিক্রমপুর শাসন করে। পরবর্তীতে সেন বংশোদ্ভূত বিক্রম সেনই বিক্রমপুর নগরের স্থপতি। ঐতিহাসিকরা আরও বলেন, মহাকালী প্রতিষ্ঠার পর পরই বিক্রমপুর পরগনার নামের অস্তিত্ব পাওয়া যায়।[৩]

শিক্ষাসম্পাদনা

শিক্ষার হার ৫৬.৮১% [৪]

অর্থনীতিসম্পাদনা

কৃতী ব্যক্তিত্বসম্পাদনা

দশনীয় স্থানসম্পাদনা

চোধুরী বাজার মঠ এটি শত বছরের পরানো। এই মঠটি বিভিন্ন জায়গা থেকে লোকজন দেখতে আসে। [৫]

বিবিধসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলা / আয়তন"বাংলাপিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ৩০ অক্টোবর ২০১৯ 
  2. "মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলা / জনসংখ্যা"বাংলাপিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ৩০ অক্টোবর ২০১৯ 
  3. "মহাকালী ইউনিয়নের ইতিহাস"বাংলাদেশ তথ্য বাতায়ন। সংগ্রহের তারিখ ৩০ অক্টোবর ২০১৯ 
  4. "মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলা / শিক্ষার হার"বাংলাপিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ৩০ অক্টোবর ২০১৯ 
  5. "মহাকালী ইউনিয়ন/দর্শনীয় স্থান"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। সংগ্রহের তারিখ ৩০ অক্টোবর ২০১৯