মল্লযুদ্ধ (Sanskrit: मल्लयुद्ध, আইএএসটি: mallayuddha) হ'ল ভারতীয় উপমহাদেশ থেকে উদ্ভুত কুস্তির একটি ঐতিহ্যবাহী রূপ।[১] এটি দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার কুস্তি শৈলী নবান এর সাথে নিবিড়ভাবে সম্পর্কিত এবং পালোয়ানী কুস্তির পূর্বরূপ। ভারতীয় কুস্তির বর্ণনা রয়েছে ১৩ শতাব্দীর মল্ল পুরাণ -এ।

মল্লযুদ্ধ
Wrestlers LACMA M.88.133.2 (3 of 3).jpg
৫ ম শতাব্দীর পোড়ামাটির ভাস্কর্য - কুস্তিগীর, উত্তর প্রদেশ, ভারত
লক্ষ্যগ্র্যাপলিং
উত্পত্তির দেশভারতীয় উপমহাদেশ
বিখ্যাত অনুশীলনকারীকৃষ্ণ
জরাসন্ধ
সিদ্ধার্থ গৌতম
নরসিংহবর্মণ প্রথম
কৃষ্ণদেবরায়
দেব রায় দ্বিতীয়
পরবর্তী আর্টপালোয়ানী
নবান
অলিম্পিক খেলানা
অর্থঝাঁপিয়ে-লড়াই (Grappling-combat)

মল্লযুদ্ধের মধ্যে গ্র্যাপলিং, জয়েন্ট-ব্রেকিং, পাঞ্চিং, বিটিং, চোকিং এবং প্রেসার পয়েন্ট স্ট্রাইকিং অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ম্যাচগুলি ঐতিহ্যগতভাবে চার ধরনের হতে পারে যা আমোদমূলক শক্তির প্রতিদ্বন্দ্বীতা থেকে শুরু করে যুদ্ধ নামে পরিচিত প্রকৃত শারিরীক সংঘর্ষপূর্ণ লড়াই পর্যন্ত হতে পারে। [২] চরম হিংস্রতার কারণে লড়াইয়ের এই চূড়ান্ত রূপটি সাধারণত আর অনুশীলন করা হয় না। দ্বিতীয় রূপটি যার মধ্যে কুস্তিগীররা একে অপরকে তিন সেকেন্ডের জন্য মাটি থেকে তুলে ধরার চেষ্টা করেন যা দক্ষিণ ভারতে এখনও প্রচলিত আছে। অতিরিক্তভাবে মল্লযুদ্ধকে চারটি বিভাগে ভাগ করা হয়েছে (নীচে দেখুন)। প্রতিটি যুদ্ধনের নাম দেওয়া হয়েছে হিন্দু দেবতা এবং কিংবদন্তি যোদ্ধাদের নামে:

  • হনুমানতি লড়াইয়ের মানগত শ্রেষ্ঠত্বের দিকে মনোনিবেশ করে।
  • জাম্বুবান্তী লক এবং হোল্ড ব্যবহার করে প্রতিপক্ষকে নতি স্বীকার করতে বাধ্য করে।
  • জরাসন্ধি লড়াইয়ের সময় অঙ্গ ও সংযোগ স্থল ভাঙার দিকে মনোনিবেশ করে।
  • ভীমসেনি নিখুঁত শক্তির দিকে মনোনিবেশ করে।

পরিভাষাসম্পাদনা

সংস্কৃতে মল্লযুদ্ধ আক্ষরিক অর্থে "কুস্তি লড়াই" হিসাবে অনুবাদ করা যায়। ঠিকভাবে বলতে গেলে এই শব্দটি বরং কোনও রেসলিং বা কুস্তি ঘরাণার চেয়ে কোনও মুষ্টিযুদ্ধ-সংক্রান্ত লড়াই বা পুরস্কার যুদ্ধকে বোঝায়। এটি মল্ল (কুস্তিগীর, বক্সার, ক্রীড়াবিদ) এবং যুদ্ধ (লড়াই, সংগ্রাম, সংঘাত) -এর একটি তৎপুরুষ যৌগ। যৌগটির প্রথম প্রত্যয়িত ব্যবহার লক্ষ্য করা যায় মহাভারতে যেখানে বক্সিং ম্যাচের উল্লেখ আছে যেমন ভীম যে লড়াই করেছিলেন। আমোদমূলক কুস্তির ম্যাচ বা অ্যাথলেটিকের জন্য আরও একটি শব্দ হ'ল মালখরা। এর দ্বিতীয় অংশ খরা (খেলাধুলা, ক্রীড়া, অবসর-বিনোদন, বিনোদন) দ্বারা প্রকৃত জড়াজড়ি করে লড়াইয়ের চেয়ে বরং লোক কুস্তি এর মতো আরও সীমিত-সংস্পর্শ যোগ্য ঘরাণাকে বোঝানো হয়।

মল্ল শব্দটি ঐতিহাসিকভাবে একটি যথাযথ নাম যা অন্যান্য জিনিসের সঙ্গে উল্লেখ করা হত। অসুরগণ মল্লাসুর নামে পরিচিত ছিলেন যাঁরা মহাভারতে উল্লিখিত মল্ল রাষ্ট্রের একটি উপজাতির নাম। মল্ল নামটি একটি প্রাচীন মহাজনপদের জন্যও ব্যবহৃত হয়েছিল যেখান থেকে নেপালি রাজবংশের আবির্ভাব হয়েছিল। মল্ল নামটি বিষ্ণুপুরের মল্লভূম রাজ্যের জন্যও ব্যবহৃত হয়েছিল। মনুস্মৃতি-এর (১০.২২; ১২.৪৫) অনুসারে এই শব্দটি দ্বারা কোনও বহিরাগত ক্ষত্রিয় সন্তানকে বোঝানো হয়। এই সন্তান হন এমন কোনও ক্ষত্রিয় মহিলার যিনি পূর্বে অন্য কোনও বহিরাগতের স্ত্রী ছিলেন।

প্রশিক্ষণসম্পাদনা

 
মহাভারত মহাকাব্যে বর্ণিত ঐতিহাসিক জরাসন্ধ এর আখড়া (কুস্তির ক্ষেত্র), রাজগীর, বিহার, ভারত।

কুস্তিগীররা একটি ঐতিহ্যবাহী অঙ্গনে বা আখড়ায় প্রশিক্ষণ এবং লড়াই করেন। ম্যাচগুলি অনুষ্ঠিত হয় একটি কাদামাটি বা ধুলোর পিটে যা ত্রিশ ফুট স্থান জুড়ে এবং চৌকো বা বৃত্তাকারে হয়ে থাকে। তার মেঝের মাটি ঘি সহ বিভিন্ন উপাদানের সাথে মিশ্রিত হয়। প্রশিক্ষণের আগে মেঝেটি নুড়ি বা পাথর দিয়ে সাজানো হয়। ঠিক ধারাবাহিকতায় প্রায় তিন দিন জল যুক্ত করা হয় যাতে আঘাত এড়াতে যথেষ্ট নরমও হয় আবার পর্যাপ্ত শক্তও থাকতে হয় যাতে কুস্তিগীরদের চলাচলে বিঘ্ন না ঘটে। কুস্তিগীররা প্রতিটি অধিবেশনে মাটি সমতল করে শুরু করেন। এটি এমন একটি কাজ যা ধৈর্যশীল প্রশিক্ষণের একটি অংশ এবং স্ব-শৃঙ্খলা অনুশীলন হিসাবে বিবেচিত হয়। অনুশীলনের সময় কুস্তিগীররা তাঁদের নিজে দেহ এবং তাঁদের প্রতিপক্ষদেরকে আশীর্বাদের আকার হিসাবে কয়েক মুঠো ধুলো ফেলে দেন যা আরও ভালভাবে ধরতে সহায়ক হতে পারে।একবার আখড়া প্রস্তুত হয়ে গেলে আখড়ার পৃষ্ঠপোষক দেবদেবীর কাছে (সাধারণত হনুমান) একটি প্রার্থনা নিবেদন করা হয়। প্রতিটি প্রশিক্ষণ কক্ষে এই উদ্দেশ্যে একটি ছোট অস্থায়ী বেদী থাকে যেখানে ধূপ জ্বালানো হয় এবং ঈশ্বরের উদ্দেশ্যে ছোট ছোট হলুদ ফুলের মালা দেওয়া হয়। এর পরে গুরুর পায়ের কাছে মাথা ঠেকিয়ে তাঁকে শ্রদ্ধা জানানো হয় যা ভারতীয় উপমহাদেশে প্রাচীনদের শ্রদ্ধা নিবেদনের এক চিরাচরিত চিহ্ন স্বরূপ।

অনেক কুস্তিগীর এই প্রশিক্ষণ কক্ষেই অবস্থান করেন তবে তার সর্বদা প্রয়োজন হয় না। ঐতিহ্যগতভাবে হনুমানের সম্প্রসারণ হিসাবে সম্মানিত সমস্ত কুস্তিগীরকে যৌনতা, ধূমপান এবং মদ্যপান করা থেকে বিরত থাকতে হয় যাতে শরীর বিশুদ্ধ থাকে এবং কুস্তিগীর শারীরিক, মানসিক এবং আধ্যাত্মিকভাবে নিজের প্রতি কেন্দ্রীভূত করতে সক্ষম হন। এই বিশুদ্ধতাটি মার্শাল এবং স্পোর্টিং সিদ্ধতার সর্বোচ্চ স্তর অর্জনে সহায়তা করার জন্যও বলা হয়। একজন কুস্তিগীরের একমাত্র সম্বল থাকবে কম্বল, একটি কৌপিনম (কটিযুক্ত কাপড়) এবং সামান্য কিছু পোষাক। এই ক্ষেত্রে তাঁরা প্রায়ই হিন্দু-বৌদ্ধ পবিত্র পুরুষদের সাথে তুলনীয় হন। [১]

ছেলেরা সাধারণত দশ থেকে বারো বছর বয়সে প্রশিক্ষণ শুরু করে। তাদের খর্বতা এড়ানোর জন্য তরুণ প্রশিক্ষণার্থীদের প্রথমে কুণ্ডকবর্ধন এবং তাদের সামগ্রিক শক্তি এবং ধৈর্য বাড়ানোর জন্য ক্যালিসথেনিক্স এবং বিনা সরঞ্জামাদি ছাড়াই অনুশীলন করানো হয়। কুস্তিগীরেরা নিজের দেহের ওজন নিয়োগের অনুশীলনগুলি করে যেমন সূর্য অভিবাদন (সূর্য নমস্কার), শীর্ষাসন ইত্যাদি। প্রয়োজনীয় শক্তি এবং স্ট্যামিনা অর্জনের পরে শিক্ষার্থীরা খাম্বাশ্রম শুরু করতে পারে যাতে মল্লখাম্বা বা কুস্তিগীরের স্তম্ভ ব্যবহার করে অনুশীলনের কথা উল্লেখ করা হয়ে থাকে।

প্রশিক্ষণের অন্যান্য ধারণাসমূহ নিম্নলিখিত রূপ হতে পারে।

  • ব্যায়াম: সাধারণভাবে শারীরিক প্রশিক্ষণ। এর মধ্যে দড়ি আরোহণ, লগ টানা, দৌড় এবং সাঁতার অন্তর্ভুক্ত।
  • রাঙ্গাশ্রম: কুস্তি এবং তার কৌশলগুলিকে বোঝায়। লকস, জমা দেওয়া, টেকটাউন বা সরিয়ে দেওয়া এবং পূর্বতন স্ট্রাইক এর অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।
  • গনিটাকা: হিন্দি তে গার নল নামে একটি বড় পাথরের আংঠা দিয়ে অনুশীলন করা হয়। প্রেস-আপ এবং স্কোয়াট প্রতিরোধের জন্য এটি ঘাড়ে উত্তোলন করা বা গলায় জড়ানো হতে পারে।
  • প্রমদা: এই অনুশীলন গদা দ্বারা সম্পাদিত হয়। এরূপ একটি হ'ল মিটার-খানেক দীর্ঘ বাঁশের কাঠির শেষ প্রান্তে একটি ভারী গোলাকার পাথর ঝুলিয়ে অনুশীলন করা।
  • উহাপোশ্রম: কৌশল এবং পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা।
  • মর্দন: ঐতিহ্যবাহী ম্যাসেজ। কুস্তিগীরদের ম্যাসেজ দেওয়া হয় এবং ম্যাসেজ করার পদ্ধতিও শেখানো হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Alter, Joseph S. (মে ১৯৯২)। "The sannyasi and the Indian wrestler: the anatomy of a relationship"। American Ethnologist19 (2): 317–336। আইএসএসএন 0094-0496ডিওআই:10.1525/ae.1992.19.2.02a00070 
  2. Donn F. Draeger and Robert W. Smith (১৯৬৯)। Comprehensive Asian Fighting Arts। Kodansha International Limited। 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা