ময়ুর নদী

বাংলাদেশের নদী

ময়ুর নদী বাংলাদেশে অবস্থিত একটি নদী। এটা গঙ্গা অববাহিকার পুরাতন নদীবিশেষ।[১] এটি খুলনা শহরের পশ্চিমাংশে গল্লামারী সংলগ্ন অংশে অবস্থিত। এই নদীতে খুলনা শহরের অধিকাংশ পয়োঃনিষ্কাষন ব্যবস্থা যুক্ত।[২] তলানী জমতে জমতে নদীটি এখন মৃত প্রায়, রূপসা নদীর সাথে এখন ময়ূর নদীর কোন সরাসরি সংযোগ নেই। গেটের মাধ্যমে জোয়ার ভাটা নিয়ন্ত্রণ করা হয়।[৩] ১৯৭১ সালে পাকবাহিনী এই ময়ূর নদীর তীরে ব্যাপক গণহত্যা চালায়।

ময়ুর নদী
গল্লামারীতে ময়ুর নদী
গল্লামারীতে ময়ুর নদী
গল্লামারীতে ময়ুর নদী
দেশ বাংলাদেশ
অঞ্চল খুলনা বিভাগ
জেলা খুলনা জেলা
নগর খুলনা
উৎস বিল পাবলা
 - অবস্থান আড়ংঘাটা
মোহনা রূপসা নদী
 - অবস্থান লবণচরা
দৈর্ঘ্য ১০ কিলোমিটার (৬ মাইল)

নদী দখল

সম্পাদনা

ময়ূর নদী দখল করে একটি বিনোদন পার্কের স্থাপনা তৈরি করা হয়েছে। খুলনা নগরের গল্লামারীতে নির্মাণাধীন পার্কটির জন্য নদীটির পাঁচটি স্থানে দালান কোঠা ঘর গড়ে তোলা হয়েছে।[৪]

আরও দেখুন

সম্পাদনা

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. M. K. Roy, D. K. Datta, D. K. Adhikari, B. K. Chowdhury and P. J. Roy (২০০৫)। "Geology Of The Khulna City Corporation" (পিডিএফ)J. Life Earth Science1 (1): 57–63। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  2. "TA No. 6293 (REG): Managing the Cities in Asia: Cities Development Initiative for Asia (CDIA) support to Khulna City Corporation (KCC)" (পিডিএফ)। Asian Development Bank। ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  3. M. Shah Alam Khan। "Urban and Peri-Urban Water Management Nexus to a Dying River" (পিডিএফ)। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  4. "নদী দখল করে পার্কের স্থাপনা"www.prothom-alo.com। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১২, ২০১৬