মনিরুজ্জামান মনির

একুশে পদক প্রাপ্ত ব্যক্তি

মনিরুজ্জামান মনির (জন্ম: ২৮ জানুয়ারি, ১৯৫২) হলেন একজন বাংলাদেশী গীতিকার। ১৯৭০ সালে তিনি বেতারের তালিকাভুক্ত গীতিকার হন। পরে তিনি চলচ্চিত্রের জন্যেও গীত রচনা করেন। তার রচিত উল্লেখযোগ্য গানসমূহ হল "প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ", "সূর্যোদয়েও তুমি সূর্যাস্তেও তুমি", "যে ছিল দৃষ্টির সীমানায়", "কি জাদু করিলা পিরিতি শিখাইলা"। বাংলাদেশী চলচ্চিত্রের গীত রচনায় অবদানের জন্য তিনি তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। সঙ্গীতে অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার তাকে ২০০৪ সালে একুশে পদকে ভূষিত করে।[১]

মনিরুজ্জামান মনির
জন্ম (1952-01-28) ২৮ জানুয়ারি ১৯৫২ (বয়স ৬৯)
সুনামগঞ্জ জেলা, পূর্ব পাকিস্তান (বর্তমান বাংলাদেশ)
ধরনবেতার ও চলচ্চিত্রের গান
পেশাগীতিকার
কার্যকাল১৯৭০-বর্তমান

প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

মনিরুজ্জামান মনির ১৯৫২ সালের ২৮ জানুয়ারি তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের (বর্তমান বাংলাদেশ) সিলেটের সুনামগঞ্জ জেলার তেঘরিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন। চার ভাই ও তিন বোনের মধ্যে মনিরুজ্জামান তৃতীয়। ছোটবেলা থেকেই তিনি দৈনিক পয়গাম, দৈনিক পাকিস্তান, সবুজপাতায় নিয়মিত ছড়া লিখতেন। তার মামা উজির মিয়া ছিলেন সিলেট বেতারের কণ্ঠশিল্পী। তার সহযোগিতায় কিশোর বয়সেই তিনি বেতারের জন্য গান লেখার সুযোগ লাভ করেন। ১৯৭০ সালে তিনি বেতারের তালিকাভুক্ত গীতিকার হয়ে যান।[২]

চলচ্চিত্রের তালিকাসম্পাদনা

পুরস্কার ও সম্মাননাসম্পাদনা

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "10 awarded Ekushey Padak"দ্য ডেইলি স্টার। ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৪। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুলাই ২০১৭ 
  2. আওয়াল, সৈয়দ (৪ অক্টোবর ২০১১)। "পরিবারের সবাই চেয়েছিলেন ডাক্তার হবেন তিনি হলেন গীতিকার মনিরুজ্জামান মনির"সিলেট এক্সপ্রেস। ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুলাই ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা