ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের বিচ্ছিন্ন দলগুলির তালিকা

উইকিমিডিয়ার তালিকা নিবন্ধ

১৯৪৭ সালে ভারত স্বাধীনতা লাভের পর থেকে, ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস (কংগ্রেস) একটি অবিচ্ছিন্ন সংখ্যক বিভক্তি এবং বিচ্ছিন্ন উপদল দেখেছে। কিছু বিচ্ছিন্ন সংগঠন স্বতন্ত্র দল হিসেবে উন্নতি লাভ করেছে, কিছু বিলুপ্ত হয়ে গেছে, অন্যরা মূল দল বা অন্যান্য রাজনৈতিক দলের সাথে মিশে গেছে।

বিচ্ছিন্ন দলের তালিকা

সম্পাদনা
বছর দল নেতা অঞ্চল ধরণ
১৯২৩ স্বরাজ দল চিত্তরঞ্জন দাস, মতিলাল নেহেরু বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে একীভূত হয়
১৯৩৯ অল ইন্ডিয়া ফরওয়ার্ড ব্লক[১] সারদুল সিং গভীশার

শীল ভাদ্র যাগে

সুভাষচন্দ্র বসু
জাতীয় সক্রিয়
১৯৫১ কিষাণ মজদুর প্রজা পার্টি[২] জীবরাম কৃপালানি মহীশূর রাজ্য

মাদ্রাজ রাজ্য

দিল্লী

বিন্ধ্য প্রদেশ
বিলুপ্ত

প্রজা সমাজতান্ত্রিক দলের সাথে একীভূত হয়
১৯৫১ হায়দ্রাবাদ রাজ্য প্রজা পার্টি টাঙ্গুতুরি প্রকাশম

এন. জি. রাঙ্গা
হায়দ্রাবাদ রাজ্য বিলুপ্ত

কিষাণ মজদুর প্রজা পার্টির সাথে একীভূত হয়
১৯৫১ সৌরাষ্ট্র খেদুত সংঘ নরসিংহভাই দাধনিয়া

রতিভাই উকাভাই
সৌরাষ্ট্র রাজ্য বিলুপ্ত

স্বতন্ত্র পার্টির সাথে একীভূত হয়
১৯৫৬ ভারতীয় জাতীয় গণতান্ত্রিক কংগ্রেস[৩] চক্রবর্তী রাজাগোপালাচারী মাদ্রাজ রাজ্য বিলুপ্ত

স্বতন্ত্র পার্টির সাথে একীভূত হয়
১৯৫৯ স্বতন্ত্র পার্টি[৪] চক্রবর্তী রাজাগোপালাচারী

এন.এন. জি. রাঙ্গা
বিহার

রাজস্থান

গুজরাত

ওড়িশা
বিলুপ্ত

১৯৭৪ সালে ভারতীয় ক্রান্তি দলের সাথে একীভূত হয়
১৯৬৪ কেরল কংগ্রেস[৫] কে এম জর্জ কেরালা সক্রিয় হিসাবে মূল দলের বিভিন্ন উপদল রয়েছে, যেগুলি কেরালা কংগ্রেস (এম), কেরালা কংগ্রেস (জ্যাকব), কেরালা কংগ্রেস (বি), কেরালা কংগ্রেস (ডেমোক্রেটিক), কেরালা কংগ্রেস (স্করিয়া থমাস), কেরালা কংগ্রেসের (থমাস), কেরালা কংগ্রেস (জাতীয়তাবাদী) এর মতো বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে
১৯৬৬ ওড়িশা জন কংগ্রেস হরেকৃষ্ণ মহাতাব ওড়িশা বিলুপ্ত

জনতা পার্টিতে মিশে গেছে
১৯৬৭ বাংলা কংগ্রেস অজয় মুখোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৬৭ বিশাল হরিয়ানা পার্টি বীরেন্দ্র সিং হরিয়ানা বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৬৭ ভারতীয় ক্রান্তি দল[৬][৭] চরণ সিং উত্তরপ্রদেশ বিলুপ্ত

ভারতীয় লোকদলের সাথে একীভূত
১৯৬৮ মণিপুর পিপলস পার্টি[৮] মোহাম্মদ আলীমুদ্দিন মণিপুর সক্রিয়
১৯৬৯ ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস (আর) ইন্দিরা গান্ধী জাতীয় সক্রিয়

১৯৭১ সালের সাধারণ নির্বাচনের পর নির্বাচন কমিশন (ইসি) দ্বারা কংগ্রেস হিসাবে স্বীকৃত।দলটিকে কোনও প্রত্যয় ছাড়াই নিজেকে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস বলার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল এবং ইসি দুটি ষাঁড়ের হিমায়িত কংগ্রেস প্রতীকও পুনরুদ্ধার করেছিল। কিন্তু, ইন্দিরা গান্ধীর সমর্থকরা ১৯৬৯ সালের বিভক্তির পরে গৃহীত "বাছুর এবং গরু" প্রতীকটিকে পছন্দ করে এবং "আর" প্রত্যয়টি বাদ দেয়।..
১৯৬৯ ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস (সংগঠন)[৯] কে. কামরাজ

মোরারজি দেশাই
জাতীয় বিলুপ্ত

জনতা পার্টিতে মিশে গেছে
১৯৬৯ উৎকল কংগ্রেস বিজু পট্টনায়েক ওড়িশা বিলুপ্ত

জনতা পার্টিতে মিশে গেছে
১৯৬৯ তেলেঙ্গানা প্রজা সমিতি মারি চেন্না রেড্ডি অন্ধ্রপ্রদেশ বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৭১ বিপ্লবী বাংলা কংগ্রেস সুকুমার রায় পশ্চিমবঙ্গ সক্রিয়

বামফ্রন্টের অংশ (পশ্চিমবঙ্গ)
১৯৭৭ কংগ্রেস ফর ডেমোক্রেসি[১০] জগজীবন রাম জাতীয় বিলুপ্ত

জনতা পার্টিতে মিশে গেছে
১৯৭৮ ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস (ইন্দিরা) ইন্দিরা গান্ধী জাতীয় ১৯৮৩ সালে কংগ্রেস হিসাবে নির্বাচন কমিশন দ্বারা স্বীকৃত
১৯৭৯ ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস (উরস) ডি. দেবরাজ উরস কর্ণাটক

কেরালা

মহারাষ্ট্র

গোয়া
বিলুপ্ত

১৯৮০ কংগ্রেস (এ) এ কে অ্যান্টনি কেরালা বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে একীভূত হয়েছে
১৯৮১ ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস (সমাজবাদী)[১১] শরদ পাওয়ার কর্ণাটক

কেরালা

মহারাষ্ট্র

গোয়া
বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৮১ ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস (জগজীবন)[১১] জগজীবন রাম বিহার বিলুপ্ত
১৯৮৪ ভারতীয় কংগ্রেস (সমাজবাদী)- শরৎচন্দ্র সিনহা[১২] শরৎ চন্দ্র সিনহা আসাম সক্রিয়

দলের প্রধান উপদল জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টির সাথে একীভূত হয়েছে। তবে বামফ্রন্টের একটি অংশ হিসাবে কেরালায় একটি অবশিষ্ট উপদল এখনও বিদ্যমান।
১৯৮৬ রাষ্ট্রীয় সমাজবাদী কংগ্রেস প্রণব মুখোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৮৮ থামিঝাগা মুনেত্র মুন্নানি[১৩] শিবাজি গণেশন তামিলনাড়ু বিলুপ্ত

জনতা দলের সাথে মিশে গেছে
১৯৯০ হরিয়ানা বিকাশ পার্টি বংশী লাল হরিয়ানা বিলুপ্ত

২০০৪ সালে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে একীভূত হয়
১৯৯৪ সর্বভারতীয় ইন্দিরা কংগ্রেস (তিওয়ারি)[১৪] নারায়ণ দত্ত তিওয়ারি

অর্জুন সিং

নটওয়ার সিং

রঙ্গরাজন কুমারমঙ্গলম
উত্তরপ্রদেশ বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৯৪ কর্ণাটক কংগ্রেস পার্টি বাঙ্গারপ্পা কর্ণাটক বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৯৪ তমিঝাগা রাজীব কংগ্রেস ভাজাপদী রামমূর্তি তামিলনাড়ু বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৯৬ কর্ণাটক বিকাশ পার্টি বাঙ্গারপ্পা কর্ণাটক বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৯৬ অরুণাচল কংগ্রেস গেগং আপাং অরুণাচল প্রদেশ বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৯৬

২০১৪
তামিল মানিলা কংগ্রেস (মুপানার)[১৫] জি কে মুপানার ১৯৯৬-২০০১

জি.কে. ভাসান (২০১৪-বর্তমান)
তামিলনাড়ু সক্রিয়

২০০১ সালে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে একীভূত হয়



২০১৪ সালে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস থেকে আবার বিভক্ত
১৯৯৬ মধ্যপ্রদেশ বিকাশ কংগ্রেস মাধবরাও সিন্ধিয়া মধ্যপ্রদেশ বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৯৭ তামিলনাড়ু মক্কাল কংগ্রেস ভাজাপদী রামমূর্তি তামিলনাড়ু বিলুপ্ত
১৯৯৭ হিমাচল বিকাশ কংগ্রেস সুখ রাম হিমাচল প্রদেশ বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৯৭ মণিপুর রাজ্য কংগ্রেস পার্টি[১৬] ওয়াহেংবম নিপামাচা সিং মণিপুর বিলুপ্ত

রাষ্ট্রীয় জনতা দলের সাথে মিশে গেছে
১৯৯৮ সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ সক্রিয়

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে জোট ছেড়েছে
১৯৯৮ গোয়া রাজীব কংগ্রেস পার্টি ফ্রান্সিস ডি সুজা গোয়া বিলুপ্ত

জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টির সাথে একীভূত হয়
১৯৯৮ অরুণাচল কংগ্রেস (মিঠি) মুকুট মিঠি অরুণাচল প্রদেশ বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৯৮ সর্বভারতীয় ইন্দিরা কংগ্রেস (ধর্মনিরপেক্ষ)[১৭] সিস রাম ওলা রাজস্থান বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের এর সাথে একীভূত হয়েছে
১৯৯৮ মহারাষ্ট্র বিকাশ আঘড়ি[১৮] সুরেশ কলমাডি মহারাষ্ট্র বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
১৯৯৯ ভারতীয় জন কংগ্রেস জগন্নাথ মিশ্র বিহার বিলুপ্ত

জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টির সাথে একীভূত হয়
১৯৯৯ জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টি শরদ পাওয়ার

পি এ সাংমা

তারিক আনোয়ার
মহারাষ্ট্র

মেঘালয়

বিহার

কেরালা
সক্রিয়

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের এর সাথে জোটবদ্ধ হয়ে কেরালায় এনসিপি সিপিআইএম নেতৃত্বাধীন বাম গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের সদস্য, কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউডিএফ-এর বিরোধিতা করছে
১৯৯৯ জম্মু ও কাশ্মীর পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টি মুফতি মোহাম্মদ সাঈদ জম্মু ও কাশ্মীর সক্রিয়
২০০০ গোয়া পিপলস কংগ্রেস ফ্রান্সিসকো সার্ডিনহা গোয়া বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের এর সাথে মিশে গেছে
২০০১ কংগ্রেস জননায়ক পেরাভাই পি চিদাম্বরম তামিলনাড়ু বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে একীভূত হয়
২০০১ থান্ডার কংগ্রেস কুমারী অনন্তন তামিলনাড়ু বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
২০০১ পন্ডিচেরি মক্কাল কংগ্রেস পি কানন পুদুচেরি বিলুপ্ত
২০০২ বিদর্ভ জনতা কংগ্রেস জাম্বুবন্তরাও ধোতে মহারাষ্ট্র সক্রিয়
২০০২ ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস (শেখ হাসান) শেখ হাসান গোয়া বিলুপ্ত

ভারতীয় জনতা পার্টির সাথে একীভূত হয়
২০০২ গুজরাত জনতা কংগ্রেস ছবিলদাস মেহতা গুজরাত বিলুপ্ত

এনসিপি-তে একীভূত হয়েছে
২০০৩ কংগ্রেস (ডোলো) কামেং দোলো অরুণাচল প্রদেশ বিলুপ্ত

ভারতীয় জনতা পার্টির সাথে একীভূত হয়
২০০৩ নাগাল্যান্ড পিপলস ফ্রন্ট নিফিউ রিও নাগাল্যান্ড সক্রিয়
২০০৫ পন্ডিচেরি মুনেত্র কংগ্রেস পি কানন পুদুচেরি বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের এর সাথে মিশে গেছে
২০০৫ গণতান্ত্রিক ইন্দিরা কংগ্রেস (করুণাকরণ)[১৯] কে. করুণাকরন কেরালা বিলুপ্ত

জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টির সাথে একীভূত হন এবং বিপুল সংখ্যক কর্মী কে . করুণাকরণের সাথে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসে ফিরে আসেন পরে তার পুত্র কে. মুরলীধরনও ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসে ফিরে আসেন।
২০০৭ হরিয়ানা জনহিত কংগ্রেস (বিএল) কুলদীপ বিষ্ণোই হরিয়ানা ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে মিশে গেছে
২০০৮ প্রগতিশীল ইন্দিরা কংগ্রেস (পিআইসি) সোমেন্দ্র নাথ মিত্র পশ্চিমবঙ্গ বিলুপ্ত

অল ইন্ডিয়া তৃণমূল কংগ্রেসের সাথে একীভূত হয়
২০১১ ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টি ওয়াইএস জগনমোহন রেড্ডি অন্ধ্রপ্রদেশ সক্রিয়
২০১১ সর্বভারতীয় এনআর কংগ্রেস এন রাঙ্গাস্বামী পুদুচেরি সক্রিয়
২০১৪ জয় সমক্ষ্যান্ধ্র পার্টি নাল্লারি কিরণ কুমার রেড্ডি অন্ধ্র প্রদেশ বিলুপ্ত

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাথে একীভূত হয়
২০১৬ ছত্তিশগড় জনতা কংগ্রেস অজিত যোগী ছত্তিশগড় সক্রিয়
২০২১ পাঞ্জাব লোক কংগ্রেস ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং পাঞ্জাব সক্রিয়

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. Ghosh, Asok (ed.), A Short History of the All India Forward Bloc. Kolkata: Bengal Lokmat Printers Pvt Ltd., 2001. p. 55
  2. Amit Mukherjee (২০০৪-০৪-০৩)। "The case of the missing socialists"The Times of India। ২০১২-১০-২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-২৫ 
  3. Bose, K.; Forward Bloc. Madras: 1988, Tamil Nadu Academy of Political Science. p. 94-95, 119, 175-184, 212
  4. Rajmohan Gandhi। "Its tone being liberal as well as conservative, Swatantra reached out to moderate Hindus and non-Hindus in ways not available to the Jan Sangh"Rediff। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-২৫ 
  5. "P. T. Chacko, Pullolil"। ১১ এপ্রিল ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ এপ্রিল ২০১১ 
  6. Harsh Singh Lohit। Charan Singh, A Brief Life History। Charan Singh Archives। 
  7. Wallace, Paul. India: The Dispersion of Political Power Paul Wallace, in Asian Survey, Vol. 8, No. 2, A Survey of Asia in 1967: Part II. (Feb., 1968), pp. 68. জেস্টোর 2642338
  8. Ksh Kennedy Singh (২০০৯-০১-২৫)। "The MPP and the People of Manipur"। Manipuronline.com। ১৩ মে ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-২৫ 
  9. Chandra, Bipan & others (2000). India after Independence 1947-2000, New Delhi:Penguin Books, আইএসবিএন ০-১৪-০২৭৮২৫-৭ISBN 0-14-027825-7, p.236
  10. G. G. Mirchandani (২০০৩)। 320 Million Judges। Abhinav Publications। পৃষ্ঠা 90–100। আইএসবিএন 81-7017-061-3 
  11. Andersen, Walter K.. India in 1981: Stronger Political Authority and Social Tension, published in Asian Survey, Vol. 22, No. 2, A Survey of Asia in 1981: Part II (Feb., 1982), pp. 119-135
  12. "Spotlight: Merger with NCP"The Tribune। ১৯৯৯-০৬-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-২৫ 
  13. Ashok Kumar (২০০৬-০৪-০৫)। "From MGR to Vijaykant, the film-politics nexus continues"The Hindu। Chennai, India। ২০০৬-০৪-০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-২৫ 
  14. Bhavdeep Kang (২০০৪-০৪-০৩)। "A Sleight Of Hand"Outlook India। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-২৫ 
  15. T.S. Subramanian (২০০১-০৯-১৫)। "Crusading Congressman"The Hindu। ১৫ সেপ্টেম্বর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-২৫ {{cite web}}: CS1 maint: unfit URL (link)
  16. Kalyan Chaudhuri (২০০২-০২-০২)। "A fractured verdict in Manipur"The Hindu। ২৮ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-২৭ {{cite web}}: CS1 maint: unfit URL (link)
  17. "MEMBERS OF XII LOK SABHA"Parliament of India। ৩ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-২৭ 
  18. "Pune set for triangular fight"The Hindu। Chennai, India। ২০০৪-০৪-০৫। ২০০৪-০৭-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-১১-১২ 
  19. "Karunakaran's party gets new name"The Hindu। Chennai, India। ২০০৫-০৯-০১। ২০০৫-১২-০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-২৫ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা