ভানুয়াতু জাতীয় ফুটবল দল

ভানুয়াতু জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Vanuatu national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ভানুয়াতুর প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম ভানুয়াতুর ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ভানুয়াতু ফুটবল ফেডারেশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়।[৫] এই দলটি ১৯৮৮ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং একই সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা ওশেনিয়া ফুটবল কনফেডারেশনের সদস্য হিসেবে রয়েছে। ১৯৫১ সালের ৪ঠা অক্টোবর তারিখে, ভানুয়াতু প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; নতুন ক্যালিডোনিয়ার নুমেয়া‍য় অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে ভানুয়াতু নতুন হেব্রিডিজ হিসেবে নিউজিল্যান্ডের কাছে ৯–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

ভানুয়াতু
দলের লোগো
ডাকনামকালো-সোনালিতে মানুষ
অ্যাসোসিয়েশনভানুয়াতু ফুটবল ফেডারেশন
কনফেডারেশনওএফসি (ওশেনিয়া)
প্রধান কোচএতিয়েন মেরমের
অধিনায়ককেনসি তাঙ্গিস
সর্বাধিক ম্যাচরিচার্ড ইওয়াই (৩৪)
শীর্ষ গোলদাতারিচার্ড ইওয়াই (২০)[১]
মাঠপোর্ট ভিলা মহানগর স্টেডিয়াম
ফিফা কোডVAN
ওয়েবসাইটwww.vff.vu
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৭০ হ্রাস ২ (২১ ডিসেম্বর ২০২৩)[২]
সর্বোচ্চ১৩১ (অক্টোবর ২০০৭)
সর্বনিম্ন২০১ (অক্টোবর–নভেম্বর ২০১৫)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৭৫ হ্রাস ২ (১২ জানুয়ারি ২০২৪)[৩]
সর্বোচ্চ১২৯ (জুন ২০০৪)
সর্বনিম্ন১৯১ (জুলাই ১৯৯৪)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 নিউজিল্যান্ড ৯–০ নতুন হেব্রিডিজ 
(নুমেয়া, নতুন ক্যালিডোনিয়া; ৪ অক্টোবর ১৯৫১)[৪]
বৃহত্তম জয়
 ভানুয়াতু ১৮–০ কিরিবাস 
(লাউতোকা, ফিজি; ৭ জুলাই ২০০৩)[৪]
বৃহত্তম পরাজয়
 নিউজিল্যান্ড ৯–০ নতুন হেব্রিডিজ 
(নুমেয়া, নতুন ক্যালিডোনিয়া; ৪ অক্টোবর ১৯৫১)[৪]
ওএফসি নেশন্স কাপ
অংশগ্রহণ৯ (১৯৭৩-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যচতুর্থ স্থান ১৯৭৩, ২০০০, ২০০২, ২০০৮

১০,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট পোর্ট ভিলা মহানগর স্টেডিয়ামে কালো-সোনালিতে মানুষ নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় ভানুয়াতুর রাজধানী পোর্ট ভিলায় অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন এতিয়েন মেরমের এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন সলোমন ওয়ারিয়র্সের আক্রমণভাগের খেলোয়াড় কেনসি তাঙ্গিস

ভানুয়াতু এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, ওএফসি নেশন্স কাপে ভানুয়াতু এপর্যন্ত ৯ বার অংশগ্রহণ করেছে, যার মধ্যে সেরা সাফল্য হচ্ছে ১৯৭৩, ২০০০, ২০০২ এবং ২০০৮ ওএফসি নেশন্স কাপে চতুর্থ স্থান অর্জন করা।

এতিয়েন মেরমের, কেনসি তাঙ্গিস, পিতা মাকি, রিচার্ড ইওয়াই এবং টনি কালতাকের মতো খেলোয়াড়গণ ভানুয়াতুর জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং

সম্পাদনা

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০০৭ সালের অক্টোবর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে ভানুয়াতু তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (১৩১তম) অর্জন করে এবং ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ২০১তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে ভানুয়াতুর সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ১২৯তম (যা তারা ২০০৪ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১৯১। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
২১ ডিসেম্বর ২০২৩ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৬৮     ফিজি ৯৮১.২৬
১৬৯     কিউবা ৯৮০.৬৫
১৭০     ভানুয়াতু ৯৮০.৩৩
১৭১     বারমুডা ৯৭২.৩৬
১৭২     মাল্টা ৯৬৭.২৯
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
১২ জানুয়ারি ২০২৪ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[৩]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৭৩     গ্রেনাডা ১০৯৬
১৭৪     সেন্ট লুসিয়া ১০৯৪
১৭৫     ভানুয়াতু ১০৮০
১৭৬     হংকং ১০৭৯
১৭৬   ১২   সেন্ট কিট্‌স ও নেভিস ১০৭৯

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য

সম্পাদনা

ফিফা বিশ্বকাপ

সম্পাদনা
ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
  ১৯৩০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
  ১৯৩৪
  ১৯৩৮
  ১৯৫০
  ১৯৫৪
  ১৯৫৮
  ১৯৬২
  ১৯৬৬
  ১৯৭০
  ১৯৭৪
  ১৯৭৮
  ১৯৮২
  ১৯৮৬
  ১৯৯০
  ১৯৯৪ উত্তীর্ণ হয়নি ১৮
  ১৯৯৮
    ২০০২ ১১ ২১
  ২০০৬ ২১ ১১
  ২০১০ ১২ ৩০ ১৯
  ২০১৪
  ২০১৮
  ২০২২ প্রত্যাহার প্রত্যাহার
মোট ০/২২ ৩৭ ১২ ২২ ৭৬ ৮৯

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. Mamrud, Roberto; Stokkermans, Karel। "Players with 100+ Caps and 30+ International Goals"। RSSSF। সংগ্রহের তারিখ ২২ আগস্ট ২০১১ 
  2. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ২১ ডিসেম্বর ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০২৩ 
  3. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ১২ জানুয়ারি ২০২৪। সংগ্রহের তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০২৪ 
  4. "Vanuatu (New Hebrides) – List of International matches"। Rsssf.com। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৫ 
  5. "Micronesia suffer another humiliating defeat after 46–0 loss to Vanuatu | Football"। The Guardian। ১ জানুয়ারি ১৯৭০। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা