বেলভেডিয়ার এস্টেট

বেলভেডিয়ার এস্টেট বেলভেডিয়র হাউস এবং এর চারপাশে ৩০ একর (১২ হেক্টর) জমি নিয়ে গঠিত, যেখানে ১৯৪৮ সাল থেকে ভারতের জাতীয় গ্রন্থাগার অবস্থিত।[১][২] এটি কলকাতার চিড়িয়াখানার নিকটে আলিপুরে অবস্থিত। বেলভেডিয়ার হাউস ভারতের ভাইসরয়ের পূর্ববর্তী প্রাসাদ এবং পরবর্তীকালে বাংলার গভর্নরের প্রাসাদ ছিল।

অ্যাংলো-ইন্ডিয়ান বণিক ও শিল্পী উইলিয়াম প্রিন্সেপ কর্তৃক ১৮৩৮ সালে বেলভেডের হাউজের চিত্র। এস্টেটটি পরিবারের অন্তর্ভুক্ত ছিল, যিনি এটি ১৮৫৪ সালে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির কাছে বিক্রি করেন।

গভর্নর জেনারেল উনিশ শতকের গোড়ার দিকে কলকাতা বেলভেডিয়ার হাউসে বাস করতেন, যখন সরকারি বাড়ি (বর্তমান রাজভবন) নির্মাণ করা হয়। গভর্নর-জেনারেল ১৮৫৪ সালে ভবনটি পরিত্যাগ কররা পরে, বাংলার লেফটেন্যান্ট-গভর্নর বেলভেডিয়ার হাউসকে বাসভবন হিসাবে গ্রহণ করেন। রাজধানী ১৯১২ সালে কলকাতা থেকে দিল্লিতে স্থানান্তরিত হওয়ার পরে, বেলভেডিয়ার হাউসে বসবাসরত বাংলার লেফটেন্যান্ট গভর্নরকে একজন পূর্ণ গভর্নর হিসাবে উন্নীত করে ভবনটিকে সরকারি ভবনে রূপান্তরিত করা হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "A long shelf life"Mint Lounge। ১৫ নভেম্বর ২০১২। 
  2. "history of the National Library: From the Imperial Library to the National Library"National Library of India। ১৭ জুন ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ নভেম্বর ২০১২ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা