বুলিয়ান বীজগণিত

বুলিয়ান বীজগণিত (ইংরেজি: Boolean algebra) যা ১৮৫৪ সালে জর্জ বুল কর্তৃক তার বই চিন্তার নিয়ম নিয়ে কিছু চিন্তাভাবনা (এন ইনভেস্টিগেশান অফ দ্য লজ অফ থট) গ্রন্থে আবিষ্কৃত, হল সাধারণ বীজগণিতেরই একটি রকমফের।[১] বুলিয়ান বীজগণিত তিনভাবে সাধারণ বীজগণিত থেকে ভিন্ন হতে পারে: চলকের মান গ্রহণে, যা সাংখ্যিক কোন চিহ্নের বদলে লজিক মেনে চলে, যথাক্রমে "1" এবং "0"; এই মানগুলোতে প্রযোজ্য অপারেশনে; এবং এই অপারেশনগুলোর বৈশিষ্ট্যে, অর্থাৎ তাদের নিয়মে। গাণিতিক যুক্তি, ডিজিটাল যুক্তি, গণকযন্ত্রের প্রোগ্রামিং, সেট তত্ত্ব এবং পরিসংখ্যানে বুলিয়ান বীজগণিতের ব্যবহার রয়েছে।

সত্যক সারণিসম্পাদনা

বুলিয়ান বীজগণিতে সত্যক সারণি বলতে বোঝায় একাধিক শর্তের বিভিন্ন মানের জন্য সম্পূর্ণ শর্তের মান কি সত্য নাকি মিথ্যা তা প্রকাশক সারণি৷যেমন  বক্তব্যটির ক্ষেত্রে

  • বক্তব্যটি সত্য হবে যদি   কিন্তু   হয়
  • বক্তব্যটি সত্য হবে যদি   কিন্তু   হয়
  • বক্তব্যটি মিথ্যা হবে যদি   কিন্তু   হয়
  • বক্তব্যটি মিথ্যা হবে যদি   কিন্তু   হয়৷

উপরোক্ত ক্ষেত্রগুলোকে সত্যক সারণিরূপে প্রকাশ করলে পাওয়া যাবে

a b  
a<0 b<0 false

অপারেশনসমূহসম্পাদনা

বুলিয়ান বীজগণিতে মূলত তিনটি মৌলিক অপারেশন বা ক্রিয়া রয়েছে-যৌক্তিক যোগ,যৌক্তিক গুণ এবং পরিপূরক৷

যৌক্তিক যোগসম্পাদনা

বুলিয়ান বীজগণিতে যৌক্তিক যোগ মানে সাধারণ বিবৃতিতে অথবা বোঝায়৷ যেমন - যদি বৃষ্টি হয় অথবা রাস্তা ভেজা থাকে তাহলে করিম যাবে৷ এখন রাস্তা ভেজা থাকলেই করিম যাবে৷আবার বৃষ্টি হলেই করিম যাবে৷ দুটি শর্তের একটি সত্য হলেই করিম যাবে৷ বুলিয়ান বীজগণিতেে বক্তব্যটি হবে -  (যেখানে বৃষ্টি হওয়ার চলক a এবং রাস্তা ভেজা থাকার চলক b)

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Boole, George (২০০৩) [1854]। An Investigation of the Laws of Thought। Prometheus Books। আইএসবিএন 978-1-59102-089-9 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা