"ফারেনহাইট" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

রোবট যোগ করছে: ka:ფარენჰეიტი; cosmetic changes
(বট বানান ঠিক করছে: সাধারন > সাধারণ)
(রোবট যোগ করছে: ka:ფარენჰეიტი; cosmetic changes)
{{Otheruses}}
[[Imageচিত্র:Raumthermometer Fahrenheit+Celsius.jpg|right|thumb|একটি থার্মোমিটারের, যার বাহিরের বৃত্তাকার স্কেল ফারেনহাইট এককে এবং ভেতরের স্কেল টি সেলসিয়াস এককে লিখা]]
'''ফারেনহাইট''' হল [[তাপমাত্রা]] পরিমাপের স্কেল, যা ১৭২৪ সালে প্রস্তাব করা হয় এবং জার্মান পদার্থবিদ [[ড্যানিয়েল গ্যাব্রিয়েল ফারেনহাইট]] (১৬৮৬–১৭৩৬) এর নামানুসারে নামকরন করা হয়। বর্তমানে বিশ্বের অধিকাংশ দেশে তাপমাত্রা পরিমাপের জন্য [[সেলসিয়াস]] স্কেল ব্যবহৃত হচ্ছে।<ref name='metricusage'>{{cite web|url=http://lamar.colostate.edu/~hillger/internat.htm |title=Metric usage and metrication in other countries |accessdate=December 11, 2009 }}</ref> [[যুক্তরাষ্ট্র]] সহ আরও অল্প কিছু দেশ যেমন- [[ব্রাজিল|ব্রাজিলে]] এখনও ফারেনহাইট স্কেল ব্যবহৃত হচ্ছে।<ref name='belizeweather'> {{cite web|url=http://www.hydromet.gov.bz/ |title=Belize Weather Bureau |accessdate=May 9, 2008 }}</ref>
 
== সংজ্ঞা এবং রূপান্তর ==
স্বাভাবিক বায়ুচাপে ফারেনহাইট স্কেলে পানির [[হিমাঙ্ক]] কে ধরা হয় ৩২ ডিগ্রী ফারেনহাইট (°F) এবং [[স্ফুটনাঙ্ক]] কে ধরা হয় {{nowrap|২১২ °F}}, এই দুই বিন্দুর মধ্যবর্তী অংশ কে ১৮০ ক্ষুদ্র ভাগে ভাগ করা হয়। প্রতিটি ক্ষুদ্র ভাগকে বলা হয় ১ ডিগ্রী ফারেনহাইট।<ref name=math>[http://www.mathsisfun.com/temperature-conversion.html Conversion of Temperature]</ref> আবার সেলসিয়াস স্কেলে স্বাভাবিক বায়ুচাপে পানির গলনাঙ্ক এবং স্ফুটনাঙ্কের মধ্যবর্তী অংশ কে ১০০ ভাগে ভাগ করা হয় এবং প্রতিটি ভাগকে বলা হয় ১ ডিগ্রী সেলসিয়াস।<ref name=math/>এক ডিগ্রী ফারেনহাইট তাপমাত্রা পার্থক্য হল {{frac|৫|৯}} ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রা পার্থক্যের সমান।আর একটি মজার বিষয় হল,{{nowrap|−৪০ °F}} এবং {{nowrap|−৪০ °C}} একই তাপমাত্রা নির্দেশ করে।<ref name=math/> ফারেনহাইট স্কেলে [[পরম শূন্য]] তাপমাত্রা হল {{nowrap|-৪৫৯.৬৭ °F }} ।<ref>[http://www.unitarium.com/temperature Temperature Units Converter]</ref> আবার [[রানকিন স্কেলে|রানকিন]] (Rankine scale) তাপমাত্রা পরিমাপক স্কেলে এক ডিগ্রী রানকিন {{nowrap|(1 °R)}} হল, এক ডিগ্রী ফারেনহাইট এর সমান। রানকিন স্কেল এবং ফারেনহাইট স্কেলের মধ্যে পার্থক্য হল {{nowrap|০ °R}} পরম শূন্য তাপমাত্রা নির্দেশ করে, আর {{nowrap|৩২ °F}} পানির হিমাঙ্ক নির্দেশ করে।
 
|}
 
== ইতিহাস ==
ফারেনহাইট ১৭২৪ সালে তাঁর দিনপঞ্জীতে লিখেন,<ref name = 'ftempsc'/> তিনি তাঁর তাপমাত্রা পরিমাপক স্কেল টি দাঁড়া করিয়েছেন ৩ টি তাপমাত্রা সাপেক্ষে। সেগুলোর প্রথম টি হল [[বরফ]], পানি এবং [[অ্যামোনিয়াম ক্লোরাইড]] এর মিশ্রণের তাপমাত্রা, যাকে তিনি {{nowrap|০ °F}} বলেছেন। পরের তাপমাত্রা হল পানি এবং বরফের মিশ্রণের তাপমাত্রা, যা {{nowrap|৩২ °F}} নির্দেশ করে।<ref>{{cite book |title=Physics for Future Presidents |last=Muller |first=R.A. |year=2009 |pages=2-5, 2-17 |url=http://physics.berkeley.edu/academics/Courses/physics10/teaching/Physics10/PffP_textbook_F08/PffP-02-heat-F08.pdf |accessdate=20 February 2010}}</ref> শেষ তাপমাত্রা টি হল {{nowrap|৯৬ °F}} যা মানব দেহের স্বাভাবিক তাপমাত্রা। এছাড়া তাঁর স্কেল অনুসারে পারদের স্ফুটনাঙ্ক হল {{nowrap|৬০০ °F}}।
 
|author=Cecil Adams}}</ref>
 
== ব্যবহার ==
[[১৯৬০|১৯৬০ সাল]] পর্যন্ত বেশ কিছু ইংরেজি ভাষাভাষী দেশে ফারেনহাইট স্কেল ছিল আবহাওয়া, চিকিৎসা এবং কলকারখানায় ব্যবহৃত প্রাথমিক তাপমাত্রা পরিমাপক একক। ১৯৬০, ১৯৭০ সালের পর থেকে এসব দেশ একক আদর্শকরনের অংশ হিসেবে [[সেলসিয়াস]] স্কেল (যা ১৯৪৮ সালের পূর্ব পর্যন্ত সেন্টিগ্রেড স্কেল নামে পরিচিত ছিল), গ্রহন করা শুরু করে, যা [[মেট্রিকায়ন]] নামে পরিচিত।
 
যুক্তরাষ্ট্রে আবহাওয়া পূর্বাভাষ, রান্না করার তাপমাত্রা এবং হিমায়ন তাপমাত্রা সাধারণত ডিগ্রী ফারেনহাইটে বলা হয়। [[যুক্তরাষ্ট্র|যুক্তরাষ্ট্রের]] ফারেনহাইট স্কেলে থেকে যাওয়ার পেছনে অনেক কারণ দেখানো হয়।<ref>[http://books.google.com/books?id=xRMPAAAAYAAJ&pg=PA165&dq=centigrade+too+large&lr=&as_brr=0&as_pt=ALLTYPES#PPA166,M1] Halsey, Frederick A., Dale, Sanuel S., "The metric fallacy," The American institute of weights and measures, Second Edition, 1919. Pages 165-166, 176-177. Retrieved May 19, 2009</ref> যদিও [[নিউজিল্যান্ড]] এবং [[অস্ট্রেলিয়া|অস্ট্রেলিয়ার]] মত অনেক দেশ যারা আগে ফারেনহাইট স্কেল ব্যবহার করত, তারা একে সেকেল মনে করে সম্পূর্নরূপে সেলসিয়াস স্কেল গ্রহন করেছে।<ref>[http://nomorewinter.com/nzinfo/moneyandmetrics.htm] Information about New Zealand's money and metric measures</ref>
 
== উপস্থাপনা ==
ফারেনহাইট প্রকাশের জন্য এর নিজস্ব [[ইউনিকোড]] ক্যারেক্টার রয়েছে, এটি হল "°F" (U+2109)। তাপমাত্রা বর্ননার সময় [[সেলসিয়াস]] এবং ফারেনহাইট উভয় ক্ষেত্রেই "°" ব্যবহার করা হয়। ডিগ্রী চিহ্ণ দ্বারা দুটি স্কেলের মধ্য কোনটিকে নির্দেশ করা হয়েছে তা বোঝানোর জন্য ডিগ্রী চিহ্ণের শেষে °C (সেলসিয়াস) অথবা °F (ফারেনহাইট) অক্ষর দুটি ব্যবহার করা হয়। যেমন: "[[গ্যালিয়াম]] এর গলনাঙ্ক হল {{nowrap|৮৫.৫৭৬৩°F}}"। বাংলাদেশী পাঠ্যপুস্তকে অনেক সময় °C স্থলে সে. এবং °F এর স্থলে ফা. ব্যবহার করা হয়।
 
== আরও দেখুন ==
* [[তাপমাত্রা রূপান্তর#তাপমাত্রা স্কেল সমূহের তুলনা|তাপমাত্রা স্কেল সমূহের তুলনা]]
 
== তথ্যসূত্র ==
{{reflist|2}}
 
{{তাপমাত্রা স্কেল}}
 
[[Categoryবিষয়শ্রেণী:সনাতনী একক]]
[[Categoryবিষয়শ্রেণী:তাপমাত্রা পরিমাপের একক সমূহ]]
 
[[ar:فهرنهايت (وحدة قياس)]]
[[it:Fahrenheit]]
[[ja:華氏]]
[[ka:ფარენჰეიტი]]
[[ko:화씨]]
[[ku:Farinhayt]]
৭৩,৮৯০টি

সম্পাদনা