আজিম-উস-শান: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বানান ও অন্যান্য সংশোধন
সম্পাদনা সারাংশ নেই
ট্যাগ: ২০১৭ উৎস সম্পাদনা
(বানান ও অন্যান্য সংশোধন)
 
পরবর্তীতে আজিম সাম্রাজ্যের আর্থিক নিয়ন্ত্রণ নিয়ে বাংলার নবনিযুক্ত [[দেওয়ান]] [[মুর্শিদকুলি খান|মুর্শিদকুলি খানের]] সাথে বিরোধে জড়িয়ে পড়েন। মুর্শিদকুলি খানের অভিযোগ বিবেচনা করে সম্রাট [[আওরঙ্গজেব]] আজিমকে বিহারে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেন।<ref name=bpedia/> ১৭০৩ সালে তিনি রাজধানী স্থানান্তর করে [[রাজমহল|রাজমহলে]] নিয়ে যান এবং তারপরে আবার তা [[পাটলীপুত্র|পাটালিপুত্রে]] (বর্তমান [[পাটনা]]) স্থানান্তর করেন। তিনি পাটলিপুত্রের নাম পরিবর্তন করে নিজের নামানুসারে ''আজিমাবাদ'' নামকরণ করেন।<ref name=bpedia/>
 
১৭১২ সালে তার পিতা ইন্তেকালমৃত্যুবরণ করলে তিনি তৎক্ষণাত নিজেকে সম্রাট হিসাবে ঘোষণা করেন। কিন্তু, সিংহাসনের লড়াইয়ে কিছু দিনের মধ্যেই তাকে [[ইরাবতী নদী|রবি নদীতে]] ডুবিয়ে হত্যা করা হয়।{{sfn|Irvine|p=175}}
 
== ব্যক্তিগত জীবন ==
''আয়েশা বেগম'' ছিলন আজিমের তৃতীয় স্ত্রী। তিনি ছিলেন রুহুল্লাহ খান ইয়াজদীর (যিনি মীর বখশী নামে পরিচিত) মেয়ে এবং খলিলুল্লাহ খানের নাতনী। ১৬৯২ সালের ২৬ জুন যুবরাজের সাথে তার বিবাহ সম্পন্ন হয়।<ref>{{বই উদ্ধৃতি|প্রথমাংশ=Jadunath|শেষাংশ=Sarkar|শিরোনাম=Maasir-i-Alamgiri: A History of Emperor Aurangzib-Alamgir (reign 1658-1707 AD) of Saqi Mustad Khan|প্রকাশক=Royal Asiatic Society of Bengal, Calcutta|বছর=1947|পাতাসমূহ=209|oclc=}}</ref> তিনি ছিলেন যুবরাজ ''হুমায়ুন বখত মির্জা'' এবং যুবরাজ ''রুহ-উদ-দৌলা মির্জা''র মা। বলা হয়ে থাকে, আজিম-উশ-শান আয়েশাকে খুবই পছন্দ করতেন। ১৭০৯ সালের ২৪ মে তে তিনি যমজ সন্তানের জন্ম দেন; যার মধ্যে একজন ছেলে এবং অপরজন মেয়ে। ১৭০৯ সালের ১৫ জুলাই তিনি দৌলতাবাদে মারা যান এবং সেখানে তাকে বুরহান উদ্দিনের সমাধির নিকটে সমাহিত করা হয়।{{sfn|Irvine|p=144}}
 
তার চতুর্থ স্ত্রী ছিলেন যুবরাজ [[মুহাম্মদ আজম শাহ|মুহাম্মদ আজম শাহের]] মেয়ে ''গিতি আরা বেগম'' । ১৭০৯ সালের ১ নভেম্বর সুবাহদারের সাথে তার বিয়ে হয়।{{sfn|Irvine|p=35}} তিনি বয়সে ১৭২৪ সালের ১২ জুন দিল্লিতে ইন্তেকালমৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল চল্লিশ বছরের বেশি।{{sfn|Irvine|p=144}}
 
== পূর্বপুরুষ ==
২৫,৩৯০টি

সম্পাদনা