"সাফিয়া আমাজান" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

spelling of English url) #IABot (v2.0.8.2) (GreenC bot
(Adding 1 book for যাচাইযোগ্যতা (20210926)) #IABot (v2.0.8.1) (GreenC bot)
(spelling of English url) #IABot (v2.0.8.2) (GreenC bot)
 
২০০১ সালে তালেবানদের পরাজয়ের পর আমাজান কান্দাহার প্রদেশে মহিলা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রাদেশিক পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০০২ থেকে তার মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এই দায়িত্ব পালন করেন। আমাজন একাধিক টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার খুলেছিলেন, যেখানে শত শত মহিলাকে বেকিং এবং টেইলারিং সহ ব্যবসার প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন।<ref name=":1" />
 
২০০৫ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর কান্দাহারে সাফিয়া আমাজানের বাড়ির সামনে মোটরসাইকেলে করে দুজন লোকের আমাজানকে চারবার গুলি করে হত্যা করে।<ref>[http://news.bbc.co.uk/2/hi/south_asia/5376968.stm (BBC)]</ref><ref name=":0" /> আমাজান এর আগে তালেবান বিদ্রোহীদের মৃত্যুর হুমকির পরিপ্রেক্ষিতে আফগান সরকারের কাছে তার ব্যক্তিগত দেহরক্ষী সরবরাহ করতে বলেছিল, কিন্তু তার অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করা হয়েছিল।<ref name=":2">{{Cite book|last=Coleman|first=Isobel|title=Paradise beneath her feet: how women are transforming the Middle East|ইউআরএলurl=https://archive.org/details/paradisebeneathh00cole|date=2010|publisher=Random House|isbn=978-1-4000-6695-7|edition=1st |location=New York|oclc=436030258}}</ref><ref name=":0" /> তৎকালীন আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট [[হামিদ কারজাই]] এবং আফগানিস্তানে জাতিসংঘের সহায়তা মিশন আমাজানের হত্যার নিন্দা করেছিলেন।<ref name=":1" /> সাফিয়া আমাজানের মৃত্যুর পর একজন কথিত তালেবান মুখপাত্র বলেছিলেন যে আমাজনের মৃত্যু আফগানিস্তানে সরকারে একটি কৌশলের কারণে হয়েছিল।<ref>{{Cite web|title=Senior Afghan women's affairs official killed - Afghanistan|url=https://reliefweb.int/report/afghanistan/senior-afghan-womens-affairs-official-killed|access-date=2021-04-24|website=ReliefWeb|language=en}}</ref>
 
সাফিয়া আমাজানকে হত্যা করার সময় তার ছেলে নকিবুল্লাহকে বেঁচে ছিলেন।<ref name=":1" /><ref name=":2" />
৯৭,৮০২টি

সম্পাদনা