গোল্ডেন নিডল সেলাই বিদ্যালয়: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
সম্পাদনা সারাংশ নেই
ট্যাগ: ২০১৭ উৎস সম্পাদনা
সম্পাদনা সারাংশ নেই
ট্যাগ: ২০১৭ উৎস সম্পাদনা
[[চিত্র:Burqa_Afghanistan_01.jpg|ডান|থাম্ব|180x180পিক্সেল| উত্তর আফগানিস্তানে [[বোরকা]] পরিহিত মহিলারা]]
'''গোল্ডেন নিডল সেলাই স্কুল''' [[আফগানিস্তান ইসলামি আমিরাত|তালেবান শাসনের সময়]] [[আফগানিস্তান|আফগানিস্তানের]] [[হেরাত]] শহরে মহিলাদের জন্য একটি গুপ্ত স্কুল ছিল। যেহেতু তালেবানদের দ্বারা প্রবর্তিত [[শরিয়ত|ইসলামী আইনের]] কঠোর ব্যাখ্যা অনুযায়ী মহিলাদের শিক্ষিত হওয়ার অনুমতি ছিল না, <ref name="physicians">[http://physiciansforhumanrights.org/library/documents/reports/talibans-war-on-women.pdf "The Taliban's War on Women"] {{ওয়েব আর্কাইভ|ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20070702234326/http://physiciansforhumanrights.org/library/documents/reports/talibans-war-on-women.pdf|তারিখ=2007-07-02}}, Physicians for Human Rights, August 1998, accessed 29 July 2010.</ref> হেরাত সাহিত্য চক্রের মহিলা লেখকরা হেরাতের সেলাই সার্কেল নামে একটি গোষ্ঠী গড়ে তোলেন, যা ১৯৯৬ সালে বা ১৯৯৬ এর কাছাকাছি গোল্ডেন নিডল সেলাই স্কুল প্রতিষ্ঠা করে। <ref name="Synovitz">Synovitz, Ron. [https://web.archive.org/web/20040708045554/http://www.rferl.org/featuresarticleprint/2004/03/176a7386-97d6-4f9b-bec7-b403f88633cc.html "Afghanistan: Author Awaits Happy Ending To 'Sewing Circles Of Herat'"], ''Radio Free Europe'', March 31, 2004, accessed 29 July 2010. Also see Lamb, Christina. [http://www.timesonline.co.uk/article/0,,2089-1869842_1,00.html "Woman poet 'slain for her verse'"], ''The Sunday Times'', November 13, 2005.</ref> পাঁচ বছর ধরে, তালেবান ধর্মীয়নৈতিক পুলিশের কাছ থেকে গোপনে, মৃত্যুর ঝুঁকি নিয়ে, গোল্ডেন নিডল সেলাই বিদ্যালয়ের মহিলারা একটি সাহসী স্কুলিং প্রচেষ্টায় অংশ নিয়েছিলেন এবং নিষিদ্ধ বিদেশী সাহিত্য অধ্যয়ন করেছিলেন।
 
মহিলারা সপ্তাহে তিনদিন স্কুলে যেতেন, আপাতদৃষ্টিতে সেলাই করতে, কিন্তু এর পরিবর্তে তারা হেরাত বিশ্ববিদ্যালয়ের সাহিত্যের অধ্যাপকদের দেওয়া বক্তৃতা শুনতেন। যদি ধর্মীয়নৈতিক পুলিশ তাদের কাছাকাছি আসত, বাইরে খেলাধুলা করা শিশুরা তাদেরকে সতর্ক করত, যা তাদেরকে বই এবং সেলাইয়ের সরঞ্জাম লুকানোর সময় দিত। হেরাত সাহিত্য চক্রের লেখিকা [[ক্রিস্টিনা ল্যাম্ব]] এর মতে হেরাত হয়ত তালেবানদের অধীনে সবচেয়ে নিপীড়িত এলাকা ছিল, কারণ এটি ছিল একটি সভ্য শহর এবং এর বেশিরভাগই ছিল [[শিয়া ইসলাম|শিয়া]], যার উভয়ই তালেবান বিরোধী ছিল এবং তালেবানরা শিয়াদেরকে ঘৃণা করত এবং তারা সভ্যদের ঘৃণা করত। <ref name="Synovitz">Synovitz, Ron. [https://web.archive.org/web/20040708045554/http://www.rferl.org/featuresarticleprint/2004/03/176a7386-97d6-4f9b-bec7-b403f88633cc.html "Afghanistan: Author Awaits Happy Ending To 'Sewing Circles Of Herat'"], ''Radio Free Europe'', March 31, 2004, accessed 29 July 2010. Also see Lamb, Christina. [http://www.timesonline.co.uk/article/0,,2089-1869842_1,00.html "Woman poet 'slain for her verse'"], ''The Sunday Times'', November 13, 2005.</ref> তার বই, দ্য সিউইং সার্কেলস অফ হেরাত -এ, ক্রিস্টিনা ল্যাম্ব আমাদের হেরাতের নারী লেখক এবং কবিদের সম্পর্কে বলেন, যারা তালেবানদের আগমনে একটি জটিল সমস্যার মুখোমুখি হয়েছিল: তারা কিভাবে ঐসময়ে দেখা করতে এবং লিখতে সক্ষম হতেন? তাই এই মহিলারা তাদের লেখালেখি চালিয়ে যাওয়ার উপায় খুঁজতে মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। তালেবানদের অধীনে তাদের শুধু সেলাই করার অনুমতি ছিল। তিনি রেডিও ফ্রি ইউরোপকে বলেছেন:
{{quote|তারা বোরকা পরে তাদের জিনিসপত্র এবং কাঁচির ব্যাগ নিয়ে আসত। তার নীচে নোটবুক এবং কলম থাকত। এবং স্কুলের ভিতরে সেলাই শেখার পরিবর্তে তারা আসলে শেক্সপিয়ার এবং জেমস জয়েস, দস্তোয়েভস্কি এবং তাদের নিজস্ব লেখার বিষয়ে কথা বলত। তারা এই একটি ভয়ঙ্কর ঝুঁকিটি গ্রহণ করছিল। যদি তারা ধরা পড়ত, কমপক্ষে তাদের কারাবরণ ও নির্যাতনের শিকার হতে হত। হয়তো তাদের ফাঁসিও হতে পারত।<ref name=Synovitz/>}}