"টাইগার হিলের যুদ্ধ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
 
==প্রেক্ষাপট==
১৯৯৮ এর শীত ও ১৯৯৯ এর মধ্যবর্তী সময়ে পাকিস্তান সেনার [[নর্দাননর্দার্ন লাইট ইনফ্যান্ট্রি]] টাইগার হিল দখল করে নিয়েছিল। লাদাখ অঞ্চলের সর্বোচ্চ চূড়া হওয়ায় পাহাড়টির প্রচন্ডরকমের সামরিক কৌশলগত গুরুত্ব ছিল এবং এখান থেকে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী ভারত সেনার ৫৬ ব্রিগেড হেড কোয়াটার পরিষ্কার দেখতে পাচ্ছিল। এহেন পরিস্থিতিতে শৃঙ্গে থাকা পাকিস্তানি সেনা ভারতের দিক থেকে হওয়া যে কোনও আক্রমণকে সহজেই ধরে ফেলতে পারতো। শৃঙ্গটি থেকে ভারতের অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ [[জাতীয় সড়ক ১ (ভারত)|জাতীয় সড়ক ১-ও]] অনায়াসেই দেখা যেত। এমনকি এই রাজপথটিকে কোনক্রমে দখল করা ছিল কার্গিল যুদ্ধে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর অন্যতম লক্ষ্য। এর কারণ জাতীয় সড়ক ১ [[সিয়াচেন হিমবাহ|সিয়াচেন হিমবাহের]] একটি কৌশলগত পথ তথা [[শ্রীনগর|শ্রীনগরকে]] লাদাখের লেহ-এর সাথে সংযুক্ত করে। ফলে টাইগার হিলকে দখল করা মানে খুব সহজেই ভারতীয় সেনাবাহিনীর গতিবিধির ওপর সর্বদা নজরদারি রাখতে ও আক্রমণ করতে সক্ষম হওয়া।
 
পাকিস্তানি অনুপ্রবেশকারীদের গতিবিধি পর্যবেক্ষণের কারণে ভারতের জন্য টাইগার হিলের দখল নেওয়া খুব জরুরি হয়ে পড়েছিল। টাইগার হিলের ওপর নিয়ন্ত্রণ ভারতকে মুশকো এবং আশেপাশের শিখরে পাকিস্তানি সেনার অবস্থানগুলিতে আক্রমণ করার রাস্তা করে দিতো।
 
==ভবিষ্যৎ ফল==
আচমকা ভারতের টাইগার হিল পুনরায় দখল এবং একসাথে তিন দিক থেকে আক্রমণেআক্রমণের ফলে একটি বড়সড় ধাক্কা খায় পাকিস্তান। এইকার্গিল সংঘর্ষে [[ভারতীয় বায়ুসেনা|ভারতীয় বায়ুসেনাও]] টাইগার হিলের চূড়ায় অবস্থিত দুই শত্রু শিবিরে বিধ্বংসী হামলা চালায়।
 
==বীরত্ব পদক প্রাপক==
গ্রেনেডিয়ার [[যোগেন্দ্র সিং যাদব|যোগেন্দ্র সিং যাদবকে]] যুদ্ধের সময় তার কৃতকর্মের জন্য ভারতীয় প্রজাতন্ত্রের সর্বোচ্চ সামরিক সম্মান, [[পরমবীর চক্র]] প্রদান করা হয়।<ref name="bharat-rakshak">{{Cite web |url=http://www.bharat-rakshak.com:80/LAND-FORCES/History/1999/308-Seven-Hour-Battle.html |archive-url=https://web.archive.org/web/20090821105628/http://www.bharat-rakshak.com/LAND-FORCES/History/1999/308-Seven-Hour-Battle.html |url-status=dead |archive-date=21 August 2009 |title=Seven Hour Battle that won India, Tiger Hill |website=Bharat Rakshak |date=18 May 2005}}</ref> তিনি মোট ১৬ বার গুলিবিদ্ধ হন এবং টাইগার হিল দখলের ক্ষেত্রে প্রধান ভূমিকা পালন করেন।<ref name="book">{{cite book|last1= Bisht|first1=Rachana|title= The Brave: Param Vir Chakra Stories|date=2009|publisher=Penguin Books|page= Yoginder singh Yadav Ghatak|isbn=9789351188056|url= https://books.google.com/books?id=rgEWBAAAQBAJ&q=fourteen+bullets&pg=PT210|language=en}}</ref><br/>
সতপাল সিংহকে যুদ্ধের সময় তার কৃতকর্মের জন্য তার প্রাক্তন ব্রিগেড কম্যান্ডার ব্রিগেডিয়ার মোহিন্দর প্রতাপ বাজওয়া পরমবীর চক্র সম্মানের জন্য নাম মনোনয়ন করলেও তিনি [[বীর চক্র]] সম্মানে ভূষিত হন।<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |শেষাংশ1=প্রতিবেদন |প্রথমাংশ1=নিজস্ব |শিরোনাম=কার্গিলে ৪ পাক সেনা মরেছিল ওঁর গুলিতে, তিনি আজ ট্রাফিক সামলান |ইউআরএল=https://www.anandabazar.com/india/kargil-war-vir-chakra-now-manages-traffic-as-a-head-constable-of-punjab-police-dgtl-1.1023118 |কর্ম=www.anandabazar.com |তারিখ=২৬ জুলাই ২০১৯}}</ref><br/>
১৮ গ্রেনেডিয়ার্সের ঘাতক প্লাটুনের লেফটেন্যান্ট বলওয়ান সিং পর্বতের শীর্ষে উঠেছিলেনউঠে আক্রমণ করেন। তিনি নিজে আহত হলেও শত্রুপক্ষকে ঘিরে নেওয়ার কোনো ত্রুটি রাখেননি। যুদ্ধের সময় তার কৃতকর্মের জন্য তিনি ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সামরিক সম্মান, [[মহাবীর চক্র]] সম্মানে সম্মানিত হন।<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |শিরোনাম=Kargil war: Eight Sikh played a pivotal role in the capture of Tiger Hill, says Brigadier MPS Bajwa |ইউআরএল=https://indianexpress.com/article/india/kargil-war-eight-sikh-played-a-pivotal-role-in-the-capture-of-tiger-hill-says-brigadier-mps-bajwa-5276535/ |কর্ম=The Indian Express |তারিখ=২৬ জুলাই ২০১৮ |ভাষা=en}}</ref><br/>
পাকিস্তানি সেনার ক্যাপ্টেন শের খানের মরদেহ যুদ্ধস্থল থেকে প্রথমে শ্রীনগরে নামিয়ে আনা হয় ও পরবর্তিতে দিল্লি নিয়ে যাওয়া হয়। তার মরদেহ পাকিস্তানে ফেরত পাঠানোর সময়ে তার জামার পকেটে টাইগার হিল যুদ্ধের সেনাধিপতি ব্রিগেডিয়ার বাজওয়া একটা ছোট্ট চিরকুট লিখে দিয়েছিলেন: '১২ নম্বর নর্দার্ন লাইট ইনফ্যান্ট্রির ক্যাপ্টেন কর্নেলকারনাল শের খান অসীম সাহসের সঙ্গে লড়াই করেছেন। তাকে সম্মান জানানো উচিৎ।'। ভারতের সুপারিশের কারণে কারনাল শের খাঁ পাকিস্তানেরখান পাকিস্তানের সর্বোচ্চ সামরিক পদক, [[নিশান-ই-হায়দার]] পেয়েছিলেন।<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |শিরোনাম=ভারতের সুপারিশে বীর খেতাব পাওয়া পাকিস্তানি সৈনিক |ইউআরএল=https://www.bbc.com/bengali/news-49061025 |কর্ম=BBC News বাংলা |তারিখ=২১ জুলাই ২০১৯ |ভাষা=bn}}</ref>
 
==তথ্যসূত্র==