সংসদ সদস্য (ভারত): সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(নতুন তথ্য যোগ করেছি।)
ট্যাগ: দৃশ্যমান সম্পাদনা মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
 
সম্পাদনা সারাংশ নেই
ট্যাগ: দৃশ্যমান সম্পাদনা মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
 
পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে [[ভারত|ভারতের]] বেশ সুনাম রয়েছে। দেশটির সংসদীয় ব্যবস্থাপনা দ্বি-কক্ষবিশিষ্ট। সেগুলো হচ্ছে [[লোকসভা]] এবং [[রাজ্যসভা]]। সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী সকল সদস্যই 'সংসদ সদস্য' হিসেবে পরিচিতি।
 
সদস্যরা ভারতীয় [[প্রদেশ]] এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল থেকে লোকসভায় সদস্যরূপে নির্বাচিত হন। কিন্তু রাজ্যসভার সদস্যরা পরোক্ষভাবে প্রদেশের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সংসদ সদস্য হন। প্রত্যেক প্রদেশেই নির্দিষ্টসংখ্যক সংসদ সদস্যের পদ বরাদ্দ আছে। [[উত্তর প্রদেশ|উত্তর প্রদেশে]] সবচেয়ে বেশীসংখ্যক সদস্য পদ রয়েছে।
'''সংসদ সদস্য''' জনপ্রতিনিধি হিসেবে পার্লামেন্ট বা [[জাতীয় সংসদ|জাতীয় সংসদে]] সরকার কিংবা বিরোধীদলীয় সদস্য হিসেবে অংশগ্রহণ করে থাকেন। এর ইংরেজি প্রতিরূপ হচ্ছে 'মেম্বার অব পার্লামেন্ট' বা 'এমপি' এবং বাংলায় 'সংসদ সদস্য' কিংবা 'সাংসদ'।
 
[[কেন্দ্রীয় সরকার]] সংখ্যাগরিষ্ঠ দল বা জোটভূক্ত দলের সংমিশ্রণে গঠিত হয় যেখানে লোকসভায় সর্ববৃহৎ দল বৃহৎসংখ্যক আসন লাভ করতে সক্ষম হয়।
বাংলাদেশ সংসদে সংসদ সদস্যের আসন সংখ্যা হচ্ছে ৩৫০ জন। এর মধ্যে ৫০ টি আসন মহিলা সাংসদের জন্য সংরক্ষিত থাকে।
 
বাংলাদেশ সংসদে সংসদ সদস্যের আসন সংখ্যা হচ্ছে ৩৫০ জন। এর মধ্যে ৫০ টি আসন মহিলা সাংসদের জন্য সংরক্ষিত থাকে।
{| class="wikitable"
![[আইন সভা]]
৩৪টি

সম্পাদনা