"নওগাঁ জেলা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

→‎অর্থনীতি: বানান ঠিক করা হয়েছে, ব্যাকরণ ঠিক করা হয়েছে
(→‎ইতিহাস: বানান ঠিক করা হয়েছে, ব্যাকরণ ঠিক করা হয়েছে)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সম্পাদনা
(→‎অর্থনীতি: বানান ঠিক করা হয়েছে, ব্যাকরণ ঠিক করা হয়েছে)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সম্পাদনা
নওগাঁ জেলার অর্থনীতি কৃষিপ্রধান। বরেন্দ্র অঞ্চলের প্রায় মাঝে অবস্থিত এই জেলার আয়তন ৩,৪৩৫.৬৭ বর্গকিলোমিটার। এর প্রায় ৮০ শতাংশই আবাদী জমি। এই অঞ্চলের মাটি খুবই উর্বর যা দোঁআশ নামে পরিচিত।
 
প্রায় ২৫ লক্ষ মানুষের এই জেলার অধিকাংশই কৃষক। এই জেলায় উৎপাদিত প্রধান ফসলসমূহের মধ্যে রয়েছে: [[ধান]], [[পাট]], [[গম]], [[সরিষা]], [[আখ]], [[ভুট্টা]], [[আলু]], [[বেগুন]], [[রসুন]], [[তেল বীজ]] এবং [[পেঁয়াজ]]। এছাড়াও নানা ধরনের মৌসুমি ফল ও ফসল উৎপাদন হয় এই জেলায়। ২০০৯-২০১০ এ জেলায় মোট ধান ও গমের উৎপাদন ছিল ১৩,৫৮,৪৩২ মেট্রিক টন। সাথে আরও ৮,২৬,৮৩৫ মেট্রিক টন উদ্ধৃত্ত। ধান উৎপাদনে নওগাঁ বর্তমানে বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষ জেলা। এছাড়াও [[আম]] এই প্রধান অর্থকরী ফল হয়ে আবির্ভূত হয়েছে গত এক বছরে। এই জেলার সীমান্তবর্তী [[সাপাহার]], [[পোরশা]],[[পত্নীতলা]] ও [[নিয়ামতপুর]] উপজেলায় বিপুল প্রমাণ আমের বাগান রয়েছে। ২০১৯-২০ অর্থবছরে দেশোদেশ আম উৎপাদনে শীর্ষ স্থান দখল করে এই জেলা।জেলা।এ জেলা জেলায় আম উৎপাদন হয় ৩.২৫ লাখ মেট্রিকটন।মেট্রিক টন। দেশের সবথেকে বড় আমের হাট নওগাঁ জেলার [[সাপাহার]] হাট। বাংলাদেশের জেলাসমূহের মধ্যে নওগাঁতেই সর্বাধিক ধান প্রক্রিয়াজাতকরণ কল রয়েছে।
 
== জনসংখ্যা ==
বেনামী ব্যবহারকারী