"ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সংশোধন
(প্রবনতা > প্রবণতা (By FindAndReplace))
(সংশোধন)
}}
 
'''ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরা''' ([[বৈজ্ঞানিক নাম]]: ''Naja nigricollis (Hallowell)'') [[স্পিটিং কোবরা]] প্রজাতির অন্তর্ভুক্ত, মূলতঃ উপ-সাহারান [[আফ্রিকা|আফ্রিকাতে]] পাওয়া যায়। মাঝারি দৈর্ঘ্য এবং আকৃতিবিশিষ্ট এই সর্প প্রজাতি ১.২ থেকে ২.২মিটার (৩.৯ থেকে ৭.২ফুট) পর্যন্ত দীর্ঘ হতে পারে। এদের বর্ন এবং দেহের রেখা বিন্যাস যথেষ্ট বৈচিত্রপূর্ন। এরা প্রধানত ক্ষুদ্র তীক্ষ্ণদন্ত প্রানীপ্রাণী যথা ইঁদুর ইত্যাদি শিকার করে খায়। ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরা প্রজাতির সাপের [[বিষ]] চিকিৎসা বিঞানের ক্ষেত্রে খুব তৎপর্যপূর্ন। অবশ্য একথা মন রাখতে হবে যে এদের দংশনের ফলে (চিকিৎসাহীন অবস্থায়) মৃত্যুহার তুলনামূলক ভাবে অনেক কম (৫ থেকে ১০%)। অন্যান্য স্পিটিং কোবরার ন্যায় এই প্রজাতিও ভয় পেলে আত্মরক্ষার্থে বিষদাঁত থেকে তীক্ষ্ণ ভাবে বিষ নিক্ষেপ করতে পারে। নিক্ষিপ্ত বিষের প্রভাবে চামড়ায় জ্বালা হয় এবং চোখে এই বিষ ঢুকলে চিরস্থায়ী অন্ধত্ব ঘটতে পারে।
 
ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরা (Naja nigricollis) [[এলাপিডি]] পরিবারভুক্ত [[নাজা]] বর্গের অন্তর্গত। এদের দুটি উপপ্রজাতি পাওয়া গিয়েছিল যাদের পরব্ররতীকালে ''[[:en:Naja nigricincta|Naja nigricincta]]'' প্রজাতির মধ্যে স্থানান্তরিত করা হয়-''[[জেব্রা স্পিটিং কোবরা]]'' (''Naja nigricincta nigricincta'') এবং [[ব্ল্যাক স্পিটিং কোবরা]] (''Naja nigricincta woodi'')
== শ্রেণীবিন্যাস এবং অভিযোজন ==
 
ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরা [[এলাপিডি]] পরিবারভুক্ত [[নাজা]] বর্গের অন্তর্গত। [[নরওয়ে]] প্রানীবিদপ্রাণীবিদ জোহান রেইনহার্ডটিন ১৮৪৩ সালে প্রথম এই প্রজাতির সাপের বর্ণনা দেন। ''[[নাজা]]'' এই বর্গীয় নামটি সংস্কৃত শব্দ '''{{IAST|nāgá}}''' ({{lang|sa|[[:wikt:नाग#Sanskrit|नाग]]}}) অর্থাৎ কোবরার ল্যাটিনরূপ। ''nigricollis'-এই বিশেষ ল্যাটিন বিশেষন্টির অর্থ "black" অর্থাৎ [[কালো]] এবং ''collis'' কথাটির অর্থ হল "neck" বা [[ঘাড়]] বা [[গলা]]।<ref>{{বই উদ্ধৃতি|শেষাংশ=Reinhardt|প্রথমাংশ=J|লেখক-সংযোগ=Johan Reinhardt|শিরোনাম= Reports on zoology for 1843, 1844|প্রকাশক=[[Ray Society]]|লেখক২=Andreas Johann Wagner |লেখক৩=Franz Hermann Troschel |লেখক৪=Wilhelm Ferdinand Erichson |লেখক৫=Carl Ernst Siebold |সম্পাদকগণ=George Busk, Alfred Tulk, Alexander Henry Haliday |বছর=1847 |অধ্যায়=Herpetology}}</ref>
 
ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরার পূর্বে দুটি উপ-প্রজাতি পাওয়া গিয়েছিল-[[জেব্রা স্পিটিং কোবরা]] (''Naja nigricincta nigricincta'') এবং [[ব্ল্যাক স্পিটিং কোবরা]] (''Naja nigricincta woodi'')। কিন্তু পরবর্তীকালে (২০০৭) [[Wolfgang Wüster|উল্ফগ্যাং উস্টার]] এবং অন্যান্যরা জি্নত্বত্ত বিশ্লেষনের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেন যে এই দুটি উপ-প্রজাতিকে একটি ভিন্ন বা আলাদা প্রজাতি হিসাবে বিবেচনা করা হয়, যে প্রজাতির নাম হয়, ''Naja nigricincta''।<ref name="W2007">Wüster, W., S. Crookes, I. Ineich, Y. Mane, C.E. Pook, J.-F. Trape & D.G.Broadley (2007) "The phylogeny of cobras inferred from mitochondrial DNA sequences: evolution of venom spitting and the phylogeography of the African spitting cobras (Serpentes: Elapidae: ''Naja nigricollis'' complex)". ''Molecular Phylogenetics and Evolution'', '''45''': 437-453.</ref><ref name="NRDB-nigc">{{NRDB species|genus=Naja|species=nigricincta|date=29 December|year=2008}}</ref>
ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরা (''Naja nigricollis'') সাধারণত আফ্রিকার সাভানা অঞ্চলে (গাছ-পালা শূন্য মরুভূমি প্রান্তরে) এবং আংশিক মরু অঞ্চলে বসবাস করে। এমনকি ১৮০০মিটার(৫৯০০ফিট) উচ্চতায়ও এদের দেখা যায়। মধ্য আফ্রিকার ক্রান্তীয় এবং নাতি-ক্রান্তীয় অঞ্চলে আর্দ্র-সাভানা তৃণভূমিতে এবং সাফাই করা পূর্বতন বনভূমিতে, বিশেষত নদী ও ঝরনা নিকটবর্তী অঞ্চলেও এদের দর্শন মেলে।<ref name=WCH/> ''Naja n. nigricollis'' অভিযোজন ক্ষমতাসম্পন্ন সাপ এবং এদের দক্ষিণ-পূর্ব [[নাইজেরিয়া]]তে দেখা যায় যেখানে এদের বাসস্থান পূর্বে ছিল রেইনফরেস্ট কিন্তু বর্তমানে পরিবর্তিত হয়ে, মানুষের তৈরী কৃষিজমি, বাগান, শহরতলি অঞ্চল এবং কিছু খন্ডিত বনভূমি। নাইজেরিয়ার রেইনফরেস্টের এই প্রকার চরম পরিবর্তন এই প্রজাতির সাপেদের সুবিধা দিয়েছে। উভচর ও সরীসৃপবিদ Luca Luiselliর গবেষণায় দেখা গেছে এই প্রজাতির সাপেরা বর্তমানে অধিকতর শুকনো ছোট ছোট বাসভূমিতে আস্তানা গড়েছে। <ref name=luiselli2001>{{সাময়িকী উদ্ধৃতি|শেষাংশ=Luiselli|প্রথমাংশ= Luca |বছর=2001|শিরোনাম= The ghost of a recent invasion in the reduced feeding rates of spitting cobras during the dry season in a rainforest region of tropical Africa|সাময়িকী=Acta Oecologica|খণ্ড= 22|পাতাসমূহ= 311–314|সংখ্যা নং=5|ডিওআই=10.1016/S1146-609X(01)01113-4}}</ref>
 
ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরা(''Naja nigricollis'')এর বাসস্থানের পরিধি বর্তমানে বিস্তৃত হয়ে নাইজেরিয়ার দক্ষিণ-পূর্ব অঞ্চল থেকে মধ্য আফ্রিকার অধিকতর শুষ্ক এবং মরু অঞ্চল পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে।<ref name=Abriol/> উপকূলবর্তী শুষ্ক গাছপালা ও শুকনো তৃনভূমিতেও এদের দেখতে পাওয়া যায়। অন্যান্য কোবরা প্রজাতির ন্যায়, এই প্রজাতির সাপেরাও পরিত্যাক্ত উই ঢিপি এবং ক্ষুদ্র-তীক্ষনদন্ত প্রানীদেরপ্রাণীদের যথা ইঁদুরের গর্তে লুকিয়ে থাকে ও শীতল হয়। এদের সর্বাধিক প্রিয় লুকানোর জায়গা হল গাছের গুঁড়ি ও কোটর। ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরা চমৎকার বৃক্ষারোহঙ্কারী এবং সেই কারণে মাঝেমধ্যে এরা বৃক্ষবাসী। আফ্রিকা জুড়ে এই সর্পপ্রজাতি এতোটাই সহজপ্রাপ্য যে ছোট শহর বা গ্রামে মানুষের সংস্পর্শে এদের প্রায়শই দেখা যায়।<ref name=Abriol>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|শেষাংশ=Abriol|প্রথমাংশ=Sabrina|শিরোনাম=Spitting cobra (''Naja nigricollis'')|ইউআরএল=http://www.usfca.edu/fac_staff/dever/SPITTINGCobras.pdf|কর্ম=Herpetology - Dr. Dever|প্রকাশক=University of San Francisco, California}}{{অকার্যকর সংযোগ|তারিখ=ফেব্রুয়ারি ২০১৯ |bot=InternetArchiveBot |ঠিক করার প্রচেষ্টা=yes }}</ref>
 
== আচরন ==
 
অন্যান্য সাপেদের মতো ''Naja nigricollis'' দিনের বেলায় অথবা রাত্রিকালে বিচরন করে এবং এই বিষয়টি ঋতু, ভৌগলিক অবস্থান ও গড় দিবাকালীন তাপমাত্রার উপর নির্ভরশীল। এই অভিযোজন ক্ষমতার কারণে এই সর্পপ্রজাতি দেহের তাপমাত্রা অনেক বেশি ভালভাবে নিয়ন্ত্রণে সক্ষম এবং খাদ্যবস্তুর সর্বাপেক্ষা প্রাচুর্যপূর্ন কোনো বিশেষ এনটি অঞ্চলে সহজেই ঘাঁটি গড়তে পারে। এদের প্রাথমিক খাদ্য [[ইঁদুর]] জাতীয় ক্ষুদ্র-তীক্ষ্ণদন্ত প্রানী।প্রাণী। তবে গিরগিটি, বিভিন্ন ডিম ও অন্যান্য সাপও এদের খাদ্যতালিকার অন্তর্ভুক্ত।<ref name=Spawls>{{বই উদ্ধৃতি|শেষাংশ=Spawls|শেষাংশ২ =Branch|প্রথমাংশ=Stephen|প্রথমাংশ২= Bill|শিরোনাম=Dangerous Snakes of Africa|বছর=1995|প্রকাশক=Blandford Press|অবস্থান=London, UK|আইএসবিএন=0-7137-2394-7|পাতা=91}}</ref>
 
অন্যান্য সাপেদের মত, এরা বিভিন্ন শিকারী পাখি বিশেষতঃ বিভিন্ন প্রজাতিত [[স্নেক-ঈগল]]এর শিকার হয়। উত্তর গোলার্ধে যখন শীতকাল, সেই সময় এই স্নেক-ঈগলগুলি আফ্রিকায় পরিযান করে। এই স্নেক-ঈগলদের মধ্যে একধরনের [[শর্ট-টোড স্নেক-ঈগল]] ([[:en:Short-toed Snake Eagle|short-toed snake eagle]]) (''Circaetus gallicus'') ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরার সবচেয়ে বড় বিপদ ও শত্রু কারণ এই বিশেষ প্রজাতির স্নেক-ঈগলটি মুখ্যত কোবরা শিকারী [[শঙ্খচূড়]]।<ref name=SnakesHistory>{{বই উদ্ধৃতি|শেষাংশ=Bauchot|প্রথমাংশ=Roland|শিরোনাম=Snakes: A Natural History|বছর=2006|প্রকাশক=Sterling; illustrated edition|অবস্থান=New York, USA|আইএসবিএন=1-4027-3181-7|পাতাসমূহ=176|ইউআরএল=http://books.google.ca/books?id=_RU3TQCH1esC&pg=PA174&lpg=PA174&dq=cobra's+predators+birds+of+prey#v=onepage&q=cobra's%20predators%20birds%20of%20prey&f=false}}</ref> এছাড়া অন্যান্য সাপেরাও ব্ল্যাক নেকড স্পিটিং কোবরাদের শিকার করে থাকে।<ref name=FitzSimons/>