"সিজারিয়ান সেকশন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বানান সংশোধন
(বানান সংশোধন)
কম-ঝুঁকিপূর্ণ গর্ভধারণের ক্ষেত্রে সিজারের ফলাফল সামান্য অসন্তোষজনক হতে পারে।<ref name="ACOG2014" /> কেননা সাধারণ সন্তান জন্মদান প্রক্রিয়া থেকে অপারেশনের ক্ষেত্রে প্রায় ছয় সপ্তাহ পর্যন্ত সময় লাগতে পারে পুরোপুরি ভাল হবার জন্য।<ref name="NIH2010" /> অন্যান্য ঝুঁকির মধ্যে আছে শিশুর শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা, মায়ের মধ্যে অ্যামনিওটিক তরল রক্তে মিশে যাওয়া এবং প্রসবকালীন রক্তপাত ইত্যাদি।<ref name="ACOG2014" /> নির্দেশনা অনুযায়ী, গর্ভধারণের ৩৯ সপ্তাহ পার হবার আগে কোনও কারণ ছাড়া সীজারিয়ান উপায়টি ব্যবহার করা উচিত কাজ নয়।<ref name="ACOGfive">{{Citation|author1=American Congress of Obstetricians and Gynecologists|author1-link=American Congress of Obstetricians and Gynecologists|title=Five Things Physicians and Patients Should Question|publisher=[[American Congress of Obstetricians and Gynecologists]]|work=Choosing Wisely: an initiative of the [[ABIM Foundation]]|url=http://www.choosingwisely.org/doctor-patient-lists/american-college-of-obstetricians-and-gynecologists/|access-date=1 August 2013|url-status=live|archive-url=https://web.archive.org/web/20130901094916/http://www.choosingwisely.org/doctor-patient-lists/american-college-of-obstetricians-and-gynecologists/|archive-date=1 September 2013}}</ref> এ পদ্ধতির ডেলিভারির সাথে পরবর্তী যৌন কার্যক্রমের কোনো সম্পর্ক নেই।<ref>{{cite journal|title=Pregnancy, childbirth, and sexual function: perceptions and facts|last2=Petri|first2=E|date=January 2014|pages=5–14|doi=10.1007/s00192-013-2118-7|pmid=23812577|last1=Yeniel|first1=AO|journal=International Urogynecology Journal|volume=25|issue=1|s2cid=2638969}}</ref>
 
২০১২ সালে প্রায় ২৩ মিলিয়ন সিজার করা হয় পুরো বিশ্বে।<ref name="Mol2015">{{cite journal|title=Relationship Between Cesarean Delivery Rate and Maternal and Neonatal Mortality|last2=Weiser|first2=TG|date=1 December 2015|pages=2263–70|doi=10.1001/jama.2015.15553|pmid=26624825|doi-access=free|first9=WR|issue=21|volume=314|journal=JAMA|first11=AB|last11=Haynes|first10=AA|last10=Gawande|last1=Molina|last9=Berry|first1=G|last8=Semrau|first7=N|last7=Shah|first6=T|last6=Azad|first5=T|last5=Uribe-Leitz|first4=MM|last4=Esquivel|first3=SR|last3=Lipsitz|first8=K}}</ref> আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্যসেবা সম্প্রদায় পূর্বে ১০-১৫% জন্মদান পদ্ধতি সিজারে করানোকে ভাল বলে সুপারিশ করেছিল।<ref name="WHO2015">{{cite web|url=http://apps.who.int/iris/bitstream/10665/161442/1/WHO_RHR_15.02_eng.pdf|title=WHO Statement on Caesarean Section Rates|date=2015|archive-url=https://web.archive.org/web/20150501002853/http://apps.who.int/iris/bitstream/10665/161442/1/WHO_RHR_15.02_eng.pdf|archive-date=1 May 2015|url-status=live|access-date=6 May 2015}}</ref> কিছু প্রামাণিক কারনে দেখা গেছে ১৯ ভাগ পর্যন্ত ভাল ফলাফল লাভ করা যেতে পারে।<ref name="Mol2015" /> প্রায় ৪৫টির বেশি দেশে সিজাররের হার ৭.৫ ভাগ কিন্তু ৫০টিরও বেশি দেশে এ হার ২৭ ভাগেও বেশি।<ref name="Mol2015" /> সিজারের হার কমানো এবং প্রয়োজন হলেই ব্যবহার করার উপর জোর দেয়া হয়।<ref name="Mol2015" /> ২০১৭ সালে আমেরিকায় প্রায় ৩২ ভাগ জন্মদান হয়েছে সিজারের মাধ্যমে।<ref>{{cite web|url=https://www.cdc.gov/nchs/data/vsrr/report004.pdf|title=Births: Provisional Data for 2017|date=May 2018|website=CDC|access-date=18 May 2018}}</ref> এই শল্যচিকিৎসার ইতিহাস খুজে পাওয়া যায় ৭১৫ বিসিতেও, তখন মায়ের সাথে শিশুর বাচার হার খুব কম ছিল।<ref name="Mor2004">{{cite book|url=https://books.google.com/books?id=Slf7Rp1zG6YC&pg=PT31|title=Cesarean Section: Understanding and Celebrating Your Baby's Birth|last2=Costa|first2=Caroline M. de|date=2004|publisher=JHU Press|page=Chapter 2|language=en|isbn=9780801881336|last1=Moore|first1=Michele C.}}</ref> ১৫০০ দিকে মায়ের বেচে থাকার পরিমানে বিষয়ে বর্ণনা পাওয়া যায়। জুলিয়াস সিজারও সিজারের মাধ্যমে জন্মদান করে। ধারনাধারণা করা হয় সেই থেকে এই শল্য ব্যবস্থার নাম হয় সিজারিয়ান।<ref name="Mor2004" /> ১৯শ শতকে এন্টিসেপটিক এবং এনেস্থেশিয়ার প্রচলনের মাধ্যমে মা এবং শিশু মৃত্যুহার ব্যাপক আকারে কমে যায়।<ref name="Mor2004" /><ref>http://www.todayifoundout.com/index.php/2013/10/caesarean-sections-named-emperor-julius-caesar</ref>
 
{{TOC limit|3}}