"দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বিষয়বস্তু যোগ
ট্যাগ: ২০১৭ উৎস সম্পাদনা
(বিষয়বস্তু যোগ)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
}}
 
'''দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা''' (সংক্ষেপে '''সার্ক''') [[দক্ষিণ এশিয়া]]র একটি আঞ্চলিক সংস্থা। এর সদস্য দেশগুলো [[বাংলাদেশ]], [[পাকিস্তান]], [[ভারত]], [[শ্রীলঙ্কা]], [[মালদ্বীপ]], [[নেপাল]], [[ভুটান]] এবং [[আফগানিস্তান]]। [[গণচীনচীন]], [[জাপান]], [[যুক্তরাষ্ট্র]], [[দক্ষিণ কোরিয়া]], [[ইরান]], [[মায়ানমার]], [[মরিশাস]], ও [[জাপানঅস্ট্রেলিয়া]]কে হল সার্কের পর্যবেক্ষক হিসেবেটি নির্বাচিত করাপর্যবেক্ষক হয়েছে।রাষ্ট্র। [[সার্ক]] ১৯৮৫ সালের ৮ই ডিসেম্বর বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের হাত ধরে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। যখন [[বাংলাদেশ]],[[ভারত]], [[পাকিস্তান]], [[নেপাল]], [[ভুটান]], [[মালদ্বীপ]] ও [[শ্রীলঙ্কা]] নেতারা দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক,অর্থনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক উন্নয়ন এবং অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশসমূহের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ও সহযোগিতা করার লক্ষ্যে এক রাজকীয় সনদপত্রে আবদ্ধ হন । এটি অর্থনৈতিক, প্রযুক্তিগত, সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং উন্নয়নের যৌথ আত্মনির্ভরশীলতা জোর নিবেদিত । সার্কের প্রতিষ্টাতা সদস্য সমূহ হল [[বাংলাদেশ]], [[ভারত]], [[পাকিস্তান]], [[শ্রীলঙ্কা]], [[নেপাল]], [[মালদ্বীপ]], [[ভুটান]] এবং ২০০৭ সালে [[আফগানিস্তান]] সার্কের সদস্য পদ লাভ করে । রাষ্ট্রের শীর্ষ মিটিং সাধারণত বাৎসরিক ভিত্তিতে নির্ধারিত এবং পররাষ্ট্র সচিবদের সভা দুই বছর পর পর অনুষ্ঠিত হয় । নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু সার্কের সদর দফতর অবস্থিত ।
 
== ইতিহাস ==
৩টি

সম্পাদনা