"রুবেল মিয়া (ফুটবলার)" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(সম্প্রসারণ)
(→‎প্রারম্ভিক জীবন: সম্প্রসারণ)
==প্রারম্ভিক জীবন==
রুবেল মিয়া ১৯৯৫ সালের ১লা জানুয়ারি তারিখে [[বাংলাদেশ|বাংলাদেশের]] [[গাইবান্ধা জেলা|গাইবান্ধায়]] জন্মগ্রহণ করেছেন এবং সেখানেই তার শৈশব অতিবাহিত করেছেন।
 
==আন্তর্জাতিক ফুটবল==
রুবেল [[বাংলাদেশ জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ফুটবল দল|বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯]] এবং [[বাংলাদেশ জাতীয় অনূর্ধ্ব-২৩ ফুটবল দল|বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩]] দলের হয়ে খেলার মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। বাংলাদেশের বয়সভিত্তিক দলের হয়ে তিনি ৭ ম্যাচে অংশগ্রহণ করে ১টি গোল করেছেন। তিনি ২০১৩ সালের ১০ই অক্টোবর তারিখে [[২০১৪ এএফসি অনূর্ধ্ব-১৯ চ্যাম্পিয়নশিপ বাছাইপর্ব|২০১৪ এএফসি অনূর্ধ্ব-১৯ চ্যাম্পিয়নশিপ বাছাইপর্বে]] [[কুয়েত জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ ফুটবল দল|কুয়েত অনূর্ধ্ব-১৯ দলের]] বিরুদ্ধে বাংলাদেশের বয়সভিত্তিক দলের হয়ে প্রথম এবং একমাত্র গোলটি করেছেন।
 
২০১৬ সালের ১লা সেপ্টেম্বর তারিখে, মাত্র ২১ বছর ৮ মাস ১ দিন বয়সে, রুবেল [[মালদ্বীপ জাতীয় ফুটবল দল|মালদ্বীপের]] বিরুদ্ধে [[প্রীতি ম্যাচ|প্রীতি ম্যাচে]] অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ফুটবলে [[বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল|বাংলাদেশের]] হয়ে অভিষেক করেছেন। তিনি উক্ত ম্যাচের মূল একাদশে অন্তর্ভুক্ত ছিলেন, তবে ম্যাচের ৮৪তম মিনিটে [[মধ্যমাঠের খেলোয়াড়]] [[সেন্টু চন্দ্র সেন|সেন্টু চন্দ্র সেনের]] বদলি খেলোয়াড় হিসেবে তিনি মাঠ ত্যাগ করেন। ম্যাচটিতে বাংলাদেশ ৫–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছিল।
 
==আন্তর্জাতিক গোল==