"পানশালা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(সংশোধন)
(বানান ও অন্যান্য সংশোধন)
((সংশোধন))
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা উচ্চতর মোবাইল সম্পাদনা
'''কানাডা'''
 
আমেরিকা এবং কানাডা উভয় দেশে প্রকাশ্যে মদপান শুরু হয়েছিলো ঔপনিবেশিক পানশালা প্রতিষ্ঠার সাথে। যখন যুক্তরাজ্যে এই শব্দটি 'পাবলিক হাউস' নামে পরিবর্তিত হয় তখন আমেরিকা এবং কানডাতে 'পাভ' এর পরিবর্তে 'টাভার্ন' নামে ব্যাবহৃতব্যবহৃত হতে শুরু করে। প্রকাশ্যে মদ্যপান প্রতিষ্ঠান গুলো বন্ধ করা হয়েছিলো অ্যালকোহল নিষিদ্ধকরনের মাধ্যেমে যা ছিলো প্রাদেশিক বিচার ব্যবস্থা। ১৯২০ দশকের দিকে নিষিদ্ধকরন আইন বিভিন প্রদেশ থেকে প্রদেশে বাতিল করা হয়েছিলো। মদ্যপ পানীয় পান সবার জন্য অনুমতি ছিলো না, শুধু মাত্র প্রাপ্ত বয়স্ক পুরুষদের (আইন দ্বারা নির্ধারিত) জন্য অনুমিত ছিলো। নিষেধাজ্ঞার প্রেক্ষিতে "পানশালার বৈঠকখানাগুলি" প্রচলিত ছিল,স্থানীয় আইনগুলি প্রায়শই এই স্থাপনাগুলিকে বিনোদনের অনুমতি দেয় না (যেমন ক্রীয়া বা সংগীত বাজানো),যা কেবলমাত্র মদ্যপ পানীয় সেবনের উদ্দেশ্যেই আলাদা করা হয়েছিল।
 
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সমাপ্তির পর থেকে এবং যুক্তরাজ্যের চাকুরীজীবি দ্বারা প্রায় এক মিলিয়ন কানাডিয়ান পাবলিক হাউস সাধারণ ঐতিহ্য প্রচলিত এবং কানাডাতে সংস্কৃতিগুলি আরো প্রচলিত হল। এই সংস্কৃতিতে অন্তভূক্ত ছিলো ডার্ক বিয়ার এবং পূর্ন পরিমান বিয়ার, উভয় লিঙ্গের জন্য পান্শালা ছিল সামাজিক সমাবেশ এবং গেমস (ডার্ট, স্নুকার অথবা পুল) খেলার স্থান। সরাইখানা তুমুল জনপ্রিয় হয় ১৯৬০ দশক এবং ১৯৭০ দশকের দিকে বিশেষ করে শ্রমিক শ্রেনীর জন্য। কানাডিয়ান সরাইখান যেখানে লম্বা লম্বা চেয়ার এবং টেবিল সাজানো থাকতো এবং এইসব সরাইখানা উত্তর কানাডার প্রত্যন্ত এলাকায় পাওয়া যায়। খরিদ্দার এই সব পানশালাতে বড় গেলনের এক চতুর্থাংশ বিয়ার ক্রয় করে এবং সস্তা " বার ব্রেড্ন" নামে কানাডিয়ান শস্যবিশেষ মদ পান করে। কিছু প্রদেশে সরাই গুলোতে নারী পুরুষের আলাদা প্রবেশধিকার ছিলো। এমনকি বড় শহর গুলোতে যেমন টরেন্টো তে ১৯৭০ দশকের শুরুর দিকে আলাদা প্রবেশের ব্যবস্থা ছিলো।