"ফিলিস্তিন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

→‎গুগল মানচিত্রে ফিলিস্তিনের নাম না থাকার কারণ: বানান ঠিক করা হয়েছে, ব্যাকরণ ঠিক করা হয়েছে, লিংক সংযোজন, public
ট্যাগ: দৃশ্যমান সম্পাদনা মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
(→‎গুগল মানচিত্রে ফিলিস্তিনের নাম না থাকার কারণ: বানান ঠিক করা হয়েছে, ব্যাকরণ ঠিক করা হয়েছে, লিংক সংযোজন, public)
ট্যাগ: পুনর্বহালকৃত মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সম্পাদনা
দ্রুত সময়ের মধ্যেই সমস্যা সমাধান করে সেসময় পশ্চিমতীর এবং গাজা উপত্যকাকে মানচিত্রে ফিরিয়ে আনে গুগল।
গুগল ম্যাপে কেন ফিলিস্তিন নেই?
ইসরাইল প্রতিষ্ঠার সময় দুই দেশের মধ্যে ভূখণ্ড ভাগাভাগি করে সমাধানের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে ইসরাইলের অবৈধ দখল চালিয়ে যাওয়ায় বর্তমানে ফিলিস্তিন ২ হাজার ৪০০ বর্গমাইলের কয়েক টুকরো ভূমি মাত্র। দীর্ঘ দিন ধরে দুই দেশের মধ্যে চলমান সংঘাতের কারণে সীমানাও নির্ধারণ করা সম্ভব হয়নি। ভূমধ্যসাগর থেকে জর্ডান নদী পর্যন্ত পুরো অঞ্চলের সীমানা ধরা হয়। এখন বড় প্রশ্ন হল, কে ওই এলাকা নিয়ন্ত্রণ করে। বাস্তবতা হল, অধিকাংশ ফিলিস্তিনিই এখন পশ্চীমতীরের ছোট কিছু বসতিতে থাকেন। আর গাজা উপত্যকা সম্পূর্ণ অবরুদ্ধ।
* ''''নি। ভূমধ্যসাগর থেকে জর্ডান নদী পর্যন্ত পুরো অঞ্চলের সীমানা ধরা হয়। এখন বড় প্রশ্ন হল, কে ওই এলাকা নিয়ন্ত্রণ করে। বাস্তবতা হল, অধিকাংশ ফিলিস্তিনিই এখন পশ্চীমতীরের ছোট কিছু বসতিতে থাকেন। আর গাজা উপত্যকা সম্পূর্ণ অবরুদ্ধ।
সম্প্রতি ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর পশ্চিমতীরের আরো কিছু অংশ ইসরাইলের অন্তর্ভুক্ত করার পরিকল্পনা প্রকাশ করেছেন। দ্রুতই সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন শুরু করবে ইসরাইল। এ নিয়ে বিশ্বজুড়েই সমালোচনার ঝড় উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও প্রচুর সমালোচনা হচ্ছে এটি নিয়ে। টুইটারে অনেকেই বলছে, মার্কিন জায়ান্ট অ্যাপল এবং গুগল তাদের বিশ্বমানচিত্র থেকে ফিলিস্তিনকে মুছে ফেলেছে। কিছু কিছু সংবাদমাধ্যমেও এটি নিয়ে খবর প্রকাশিত হয়েছে।
তবে মূল কথা হল, গুগল কিংবা অ্যাপলের বিশ্বমানচিত্রে ফিলিস্তিন বলে নির্দিষ্ট কোন দেশের অস্তিত্ব কখনোই ছিলো না। Palestine বা ফিলিস্তিন লিখে সার্চ দিলেও শুধু পশ্চীমতীর এবং গাজা উপত্যকাকেই দেখানো হতো। রাষ্ট্র হিসেবে ফিলিস্তিনের সীমানাই তো এখনো নির্ধারণ করা যায়নি!
বেনামী ব্যবহারকারী