"রজার বেকন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্প্রসারণ
(সম্প্রসারণ)
(সম্প্রসারণ)
প্রকৃতপক্ষে, তখন গবেষণার জন্য তাঁর কোনও অর্থই ছিল না এমনকি তার পরিবারের কাছ থেকেও কোন আর্থিক সহায়তা পাচ্ছিলেন না কারণ দ্বিতীয় ব্যার্নসের যুদ্ধের ফলে তার পরিবারের আর্থিক অবস্থা খুব খারাপ হয়ে গিয়েছিল। পরবর্তীতে, উইলিয়াম বেনেকর, যিনি আগে [[ইংল্যান্ডের তৃতীয় হেনরি|হেনরি তৃতীয়]] এবং পোপের মধ্যে বার্তাবাহক হিসেবে কাজ করতো তিনি বেকন এবং ক্লিমেন্টের মধ্যে চিঠিপত্র ও বার্তাবাহকের ভূমিকা পালন করেন। ১২৬৬ সালের ২২ জুন ক্লিমেন্ট বেকনকে তার উপর আনিত কোন নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন না করে অত্যন্ত গোপনীয়তার সাথে তার দায়িত্ব পালন ও গবেষণা চালিয়ে জাবার নির্দেশ দেন।
 
যদিও সেই সময়ের পণ্ডিতরা মূলত অ্যারিস্টটলের গ্রন্থগুলি অধ্যয়ন ও সেখানে বিদ্যমান বিরোধগুলী সমাধানের মধ্যেি সীমাবদ্ধ ছিল। ক্লিমেন্টের পৃষ্ঠপোষকতায় বেকন তাঁর যুগে জ্ঞানের অবস্থা সম্পর্কে বিস্তৃত অধ্যয়ন ও গবেষণার অনুমতি পেয়েছিলেন। ১২৬৭ বা ৬৮ সালের দিকে বেকন পোপকে তাঁর ওপাস মাজুস প্রেরণ করেছিলেন যেখানে তিনি [[অ্যারিস্টটোলিয়ান যুক্তি|এরিস্টটলিয়ান যুক্তি]] এবং [[গ্রীক বিজ্ঞান|বিজ্ঞানকে]] নতুন ধর্মতত্ত্বের সাথে কীভাবে অন্তর্ভুক্ত করা যায় সে সম্পর্কে তার মতামত উপস্থাপন করেছিল এবং "ফাংশনীয়" বাক্য পদ্ধতির বিরুদ্ধে গ্রোসেটেসির পাঠ্য-ভিত্তিক পদ্ধতির সমর্থন করেছিলেন।
 
১২৬৮ সালে পোপ ক্লিমেন্ট মারা যান এবং সেইসাথে বেকন অভিভাবকহীন হয়ে পরেন। ১২৭৭ সালে নিন্দাবাদীরা জ্যোতির্বিদ্যাসহ কিছু দার্শনিক মতবাদের শিক্ষা নিষিদ্ধ করেছিল। পরবর্তী ২ বছরের মধ্যে বেকনকে দৃশ্যত কারাবন্দি বা গৃহবন্দী করা হয়েছিল। ১২৭৮ সালের সালের কিছু পরে, বেকন অক্সফোর্ডের ফ্রান্সিসকান হাউসে ফিরে আসেন এবং তার অধ্যয়ন ও গবেষণা চালিয়ে যান। ধারণা করা হয় বেকন সেখানে তাঁর শেষ জীবনের বেশিরভাগ সময় অতিবাহিত করেছিলেন। তাঁর শেষ লেখা '''কম্পেন্দিয়াম অব দ্যা স্টাডি অব থিওলজি'' ' যেটি ১২৯২ সালে সম্পন্ন হয়েছিল। ধারণা করা হয়, এর কিছুদিন পরে তিনি মারা গিয়েছিলেন এবং তাকে অক্সফোর্ডে সমাহিত করা হয়েছিল।
 
== উল্লেখযোগ্য কাজ ==
 
=== ক্যালেন্ডারিকাল সংস্কার ===
ওপাস মাজুসের চতুর্থ অংশে, বেকন পোপ গ্রেগরি দ্বাদশ-এর অধীনে ১৫৮২ সালে প্রবর্তিত পদ্ধতির অনুরূপ একটি ক্যালেন্ডারিকাল সংস্কারের প্রস্তাব করেছিলেন।<ref>{{বই উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://books.google.com.bd/books?id=Gp5-AAAAIAAJ&redir_esc=y|শিরোনাম=Gregorian Reform of the Calendar: Proceedings of the Vatican Conference to Commemorate Its 400th Anniversary, 1582-1982|শেষাংশ=Coyne|প্রথমাংশ=George V.|শেষাংশ২=Hoskin|প্রথমাংশ২=Michael A.|শেষাংশ৩=Pedersen|প্রথমাংশ৩=Olaf|শেষাংশ৪=vaticana|প্রথমাংশ৪=Specola|শেষাংশ৫=scienze|প্রথমাংশ৫=Pontificia Accademia delle|তারিখ=1983|প্রকাশক=Pontificia Academia Scientiarum|ভাষা=en}}</ref> সম্প্রতি [[প্রাচীন গ্রিক জ্যোতির্বিদ্যা|প্রাচীন গ্রীক]] এবং [[মধ্যযুগীয় ইসলামি বিশ্বে জ্যোতির্বিদ্যা|মধ্যযুগীয় ইসলামী]] জ্যোতির্বিজ্ঞানের চিত্র থেকে জানা যায় যে বেকন [[রবার্ট গ্রোসেটেস্টে|রবার্ট গ্রোসেটেস্টের]] কাজ অব্যাহত রেখেছিলেন এবং তত্কালীন [[জুলীয় বর্ষপঞ্জি|জুলিয়ান ক্যালেন্ডারকে]] অসহনীয়, ভয়াবহ এবং হাস্যকর হিসাবে সমালোচনা করেছিলেন।
 
=== অপটিক্স বা আলোকবিদ্যা ===
[[File:Roger Bacon optics01.jpg|thumb|237x237px|বেকন কর্তৃক আলোকবিদ্যা গবেষণা ]]
ওপাস মাজুসের পঞ্চম খণ্ডে বেকন আলো, দূরত্ব, অবস্থান, আকার, প্রত্যক্ষ এবং প্রতিফলিত দৃষ্টি, প্রতিসরণ, আয়না এবং লেন্স বিবেচনা করে চোখের দৃষ্টি এবং মস্তিষ্কের এনাটমি সম্পর্কিত আলোচনা করেছেন।<ref>{{বই উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://books.google.com.bd/books?id=mhLVHR5QAQkC&printsec=frontcover&dq=isbn:9780871698629&hl=en&sa=X&ved=2ahUKEwjFu-Kln43vAhVdxTgGHR7SAiwQ6AEwAHoECAIQAg#v=onepage&q&f=false|শিরোনাম=Ptolemy's Theory of Visual Perception: An English Translation of the Optics|শেষাংশ=Ptolemy|শেষাংশ২=Smith|প্রথমাংশ২=A. Mark|তারিখ=1996|প্রকাশক=American Philosophical Society|ভাষা=en|আইএসবিএন=978-0-87169-862-9}}</ref> তাঁর বর্ণনা ছিল মুলত হাসান ইবনে আল-হাইসাম রচিত '''বুক অফ অপটিক্সের'' ' (কিতাব আল-মানাযির) লাতিন অনুবাদ সম্পর্কিত।
 
=== গানপাউডার বা বারুদ ===
ওপাস মাজুসের এবং অপাস টেরটিয়ামের একটি রচনাংশে বর্ণিত বারুদের মিশ্রণকেই ইউরোপের প্রথম গানপাউডার বা বারুদ বিষয়ক ফরমূলা বা সূত্র হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ব্রিটিশ রসায়নবিদ পার্টিংটন এবং অন্যান্যরা এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন যে সম্ভবত বেকন চীনা পটকাবাজদের কমপক্ষে একটি পটকাবাজি প্রত্যক্ষ করেছিলেন, সম্ভবত তার বন্ধু রুব্রাকের উইলিয়ামের সহায়তায় যিনি এই সময়ের মঙ্গোল সাম্রাজ্য পরিদর্শন করেছিলেন।<ref>{{বই উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://books.google.com.bd/books?id=JEAIzgEACAAJ&dq=isbn:9780521303583&hl=en&sa=X&ved=2ahUKEwiq7aK_n43vAhUgyzgGHSsMA-gQ6AEwAHoECAAQAg|শিরোনাম=Science and Civilisation in China: Volume 5, Chemistry and Chemical Technology, Part 7, Military Technology: The Gunpowder Epic|শেষাংশ=Needham|প্রথমাংশ=Joseph|তারিখ=1987-01-22|প্রকাশক=Cambridge University Press|ভাষা=en|আইএসবিএন=978-0-521-30358-3}}</ref> বিংশ শতাব্দীর শুরুতে, রয়েল আর্টিলারির হেনরি উইলিয়াম লাভট হিম 'বেকনস এপিসটোলা' বা 'বেকনের চিঠি' প্রকাশ করেছিলেন যেখানে একটি [[ক্রিপটোগ্রাম|ক্রিপ্টোগ্রামের]] তত্ত্বের মাধ্যমে গানপাউডার তৈরির নমুনা তুলে ধরেছিলেন।
 
=== সিক্রেট অব সিক্রেটস ===
বেকন উল্লেখ করেছিলেন যে অ্যারিস্টটল ''সিক্রেট অব সিক্রেটস তার গুরু'' [[মহান আলেকজান্ডার]]<nowiki/>কে উদ্দেশ্য করে রচনা করেছিলেন। বেকন এটি তাঁর সমসাময়িক পণ্ডিতদের চেয়ে প্রায়শই উদ্ধৃত করেছিলেন এবং এমনকি অ্যারিস্টটলের সন্মানে তিনি তাঁর নিজের পরিচিতি বইটির একটি সম্পাদিত পান্ডুলিপি তৈরি করেছিলেন। এই কারণেই স্টিলের মতো বিংশ শতাব্দীর পন্ডিতরা দাবি করেছিলেন যে ''সিক্রেট অব সিক্রেটের'' সাথে বেকনের যোগসূত্রই তাকে পরীক্ষামূলক বিজ্ঞানের দিকে ধাবিত করেছিলেন।
 
=== অ্যালকেমি ===
বেকনকে মধ্যযুগীয় অনেক অ্যালকেমি বা রসায়ন-শাস্ত্রের পাঠ্যর কৃতিত্ব দেয়া হয়। কোন এক অজানা প্যারিসের উইলিয়ামকে লেখা '<nowiki/>''আর্ট এবং প্রকৃতির সিক্রেট ওয়ার্কিং সম্পর্কিত পত্র এবং ম্যাজিকের আত্মগর্ব সম্পর্কিত''' সম্ভবত একটি জাল চিঠিতে বেকনকে বেশিরভাগ আলকেমিকাল সূত্রের উল্লেখ পাওয়া যায়। তবে বেকনকে আলকেমিকাল সূত্রের মধ্যে [[দার্শনিকের পাথর]] এবং বন্দুকের বারুদের সূত্র অন্যতম।
 
=== ভাষাবিজ্ঞান ===
আধুনিক যুগের শুরুর দিকে ইংরেজরা তাকে নিষিদ্ধ জ্ঞানের সূক্ষ্ম অধিকারী ভাবতে শুরু করে এবং তাকে ফাউস্টের মতো একজন যাদুকর বলে মনে করেছিল যিনি শয়তানকে ঠকিয়েছিল এবং স্বর্গে যেতে সক্ষম হয়েছিল। তার জাদুকরী কাজের মধ্যে সর্বাধিক উল্লেখযোগ্য ছিল যে তিনি কোনও প্রশ্নের উত্তর দিতে পারতেন।
 
১৫৮৯ সালের দিকে এলিজাবেথ যুগের অন্যতম সফল কৌতুক অভিনেতা রবার্ট গ্রিন মঞ্চের জন্য 'দ্য হিস্টোরলি অফ ফ্রিয়ার বেকন অ্যান্ড ফ্রেয়ার বোঙ্গা' গল্পটি রূপান্তর করেছিলেন। সাম্প্রতিক পর্যালোচনা বলেছে যুগে যুগে এমনকি এখনও তার জীবন, চিন্তার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এবং ফ্রান্সিসকান আদেশের প্রতি তাঁর অঙ্গীকারকে অবহেলা করে আসছে। বেকনের দর্শনে ধর্মের প্রভাবের বিষয়ে, [[চার্লস স্যান্ডার্স পার্স|চার্লস স্যান্ডার্স পিয়ারস]] উল্লেখ করেছিলেন, "রজার বেকনের কাছে পণ্ডিতের যুক্তিবাদী ধারণাটি সত্যের পক্ষে কেবল একটি বাধা হিসাবে উপস্থিত হয়েছিল ... [তবে] সব ধরণের অভিজ্ঞতার মধ্যে অভ্যন্তরীণ দীপান্বয়কে তিনি সবচেয়ে ভাল মনে করেছিলেন, যা প্রকৃতি সম্পর্কে অনেক কিছুই শেখায় যা বাহ্যিক ইন্দ্রিয় দ্বারা কখনই আবিষ্কার করতে পারে না, যেমন [[ট্রান্সউবস্ট্যানেশন|রুটির সংক্রমণ]]।
 
প্রচলিত আছে [[অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়|অক্সফোর্ডের]] কাছে [[ফুলি ব্রিজ|ফলি ব্রিজের]] নামকরের ক্ষেত্রে বেকনের উল্লেখ পাওয়া যায় কারণ এর পাশেই কোন এক যায়গায় বেকনকে গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছিলো। যদিও এটি সম্ভবত ভুল কারণ এটি আগে "ফ্রিয়ার বেকন ব্রিজ" নামে পরিচিত ছিল। বেকনকে অক্সফোর্ডে নিউ ওয়েস্টগেট শপিং সেন্টারের প্রাচীরের সাথে লাগানো একটি ফলক দ্বারা সম্মানিত করা হয়।
 
== জনপ্রিয় সংস্কৃতিতে ==
বেকনের জন্মের আনুমানিক ৭০০ বছর পূর্তি উপলক্ষে অধ্যাপক ড. জে. এরস্কাইন '<nowiki/>''ত্রয়োদশ শতাব্দীর প্রদর্শনী'' ' নামক একটি জীবনীমূলক নাটক রচনা করেছিলেন যেটি ১৯১৪ সালে কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত হয়েছিলো। ১৯৬৪ সালে প্রকাশিত ''ডাক্তার মীরাবিলিসের'' পরে জ্যাকস ব্লিশের দ্বিতীয় বই আফটার সাস নলেজ বইতেও বেকনের জীবন ও সময়ের একটি কাল্পনিক বিবরণ প্রকাশিত হয়েছে । {{Sfnp|Blish|1964}} বেকন থমাস কস্টেইনের ''দ্য ব্ল্যাক রোজ (১৯৪৫)'' এবং [[উমবের্তো একো|উমবের্তো একোর]] ''দ্যা নেম অব দ্যা রোজ (১৯৮০)-''এর প্রধান অভিনেতা বা নায়কদের পরামর্শদাতার দায়িত্ব পালন করেছেন। "দ্য ব্র্যাজেন হেড অব ফ্রিয়ার বেকন" [[ড্যানিয়েল ডিফো|ড্যানিয়েল ডিফোর]] '<nowiki/>''জার্নাল অব প্লেগ ইয়ার (১৭২২)','' [[ন্যাথানিয়েল হথর্ন|নাথানিয়েল হাথর্নের]] 'দ্য বার্থ-মার্ক (১৮৪৩)' এবং 'দ্য আর্টিস্ট অফ দ্য বিউটিফুল (১৮৪৪)', উইলিয়াম ডগলাস ও' কনারের 'দ্য ব্র্যাজেন অ্যান্ড্রয়েড (১৮৯১)', জন কাউপার পাভিসের '''দ্য ব্রাজেন হেড'' (১৯৫৬)' এবং [[রবার্টসন ডেভিস]] ফিফথ বিজনেস (১৯৭০)'-এ অন্তর্ভুক্ত ও প্রকাশিত হয়েছে।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.studymode.com/essays/Fifth-Business-8315.html|শিরোনাম=Fifth Business|প্রকাশক=Study Mode|সংগ্রহের-তারিখ=27 April 2014}}</ref> ফ্যান ফিকশন সিরিয়াল হ্যারি পটার অ্যান্ড দি মেথডস অফ রেশনালিটি-তে হ্যারিকে বেকনের ডায়েরি দেওয়া হয়েছে।
 
== তথ্যসূত্র ==
১,৭৩৭টি

সম্পাদনা