"মোবাইল ব্যাংকিং" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা দৃশ্যমান সম্পাদনা
অনলাইন ব্যাংকিং এবং মোবাইল ব্যাংকিং এর মধ্যে বেশ পার্থক্য বিদ্যমান।
 
* মোবাইল ব্যাংকিং বিদ্যমান মোবাইল সাবস্ক্রাইবার আইডেন্টিফিকেশন মডিউল নম্বর থেকেই ব্যাংক হিসেব নাম্বার নির্ধারিত হয়।
* অপরপক্ষে অনলাইন ব্যাংকিং আপনার মূল ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার বহন করে।
 
* মোবাইল ব্যাংকিং মোবাইলের তরঙ্গ (নেটওয়ার্ক) ব্যবহার করেই কাজ করতে পারে।
অপরপক্ষে অনলাইন ব্যাংকিং আপনার মূল ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার বহন করে।
* অনলাইন ব্যাংকিং ব্যবহার করতে হলে অবশ্যই ইন্টারনেটে যুক্ত থাকতে হবে।
 
* মোবাইল ব্যাংকিংয়ে যে কোন মুহূর্তে যে কোন জায়গায় টাকা পাঠানো যায়।
মোবাইল ব্যাংকিং মোবাইলের তরঙ্গ (নেটওয়ার্ক) ব্যবহার করেই কাজ করতে পারে।
* অনলাইন ব্যাংকে যে কোন স্থানে টাকা পাঠানো যায় কিন্তু তার আগে বেনিফিশিয়ারি এ্যড করে নিতে হয়।
 
* অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে মোবাইল ব্যাংকিং এর যেকোনো মুহূর্তে টাকা টান্সফার করা যায়, কিন্তু মোবাইল ব্যাংকিং থেকে অনলাইন ব্যাংকিং এ টাকা পাঠানো দুরূহ।
অনলাইন ব্যাংকিং ব্যবহার করতে হলে অবশ্যই ইন্টারনেটে যুক্ত থাকতে হবে।
* অনলাইন ব্যাংকিংয়ে মানিট্রান্সফার অংক অনেক বেশি, কিন্তু মোবাইল ব্যাংকিং এর লিমিট সীমিত।
 
* মোবাইল ব্যাংকিং এ টাকা এনক্যাশ করতে এজেন্ট অর্থাৎ third-party লাগে, কিন্তু অনলাইন ব্যাংকিংয়ে এটা লাগেনা।
মোবাইল ব্যাংকিংয়ে যে কোন মুহূর্তে যে কোন জায়গায় টাকা পাঠানো যায়।
 
অনলাইন ব্যাংকে যে কোন স্থানে টাকা পাঠানো যায় কিন্তু তার আগে বেনিফিশিয়ারি এ্যড করে নিতে হয়।
 
অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে মোবাইল ব্যাংকিং এর যেকোনো মুহূর্তে টাকা টান্সফার করা যায়, কিন্তু মোবাইল ব্যাংকিং থেকে অনলাইন ব্যাংকিং এ টাকা পাঠানো দুরূহ।
 
অনলাইন ব্যাংকিংয়ে মানিট্রান্সফার অংক অনেক বেশি, কিন্তু মোবাইল ব্যাংকিং এর লিমিট সীমিত।
 
মোবাইল ব্যাংকিং এ টাকা এনক্যাশ করতে এজেন্ট অর্থাৎ third-party লাগে, কিন্তু অনলাইন ব্যাংকিংয়ে এটা লাগেনা।
 
== আরও দেখুন ==
১,৮৩৭টি

সম্পাদনা