"উইকেট-রক্ষক" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা উচ্চতর মোবাইল সম্পাদনা
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা উচ্চতর মোবাইল সম্পাদনা
কখনো কখনো এ নিয়মের ব্যতয় ঘটতে পারে। সেজন্যে ব্যাটিংয়ে অংশগ্রহণকারী দলের অধিনায়কের সাথে চুক্তিতে আবদ্ধ হতে হয়। কিন্তু ক্রিকেটের আইনে এধরনের চুক্তির কথকতা উল্লেখ নেই। উদাহরণস্বরূপ: ১৯৮৬ সালে [[লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড|লর্ডসে]] অনুষ্ঠিত [[ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল|ইংল্যান্ড]]-[[নিউজিল্যান্ড জাতীয় ক্রিকেট দল|নিউজিল্যান্ডের]] মধ্যকার টেস্টের প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের উইকেট-রক্ষক [[ব্রুস ফ্রেঞ্চ]] আহত হলে আরও তিনজন ([[বিল অ্যাথে]], [[বব টেলর]], [[ববি পার্কস]]) উইকেট-রক্ষককে দায়িত্বভার নিতে হয়।
 
== অন্যান্য কার্যাবলীকার্যাবলি ==
অনেক সময় উইকেট-রক্ষক দলের অধিনায়ক কিংবা সহঃ সহ-অধিনায়কেরও দায়িত্ব পালন করে থাকেন। [[বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল|বাংলাদেশের]] [[মুশফিকুর রহিম]], [[ভারত জাতীয় ক্রিকেট দল|ভারতের]] [[মহেন্দ্র সিং ধোনি]] সফলতার সাথে নিজ নিজ দলকে পরিচালনা করছেন। সচরাচর উইকেট-রক্ষক ইনিংসের প্রতিটি বলের সাথে নিজেকে জড়িয়ে থাকেন যা অন্যান্য ফিল্ডারকে করতে হয় না। বোলারের বোলিংকে উৎসাহিত করতে তিনি কথা বলে থাকেন যা অনেকসময় ব্যাটসম্যানের কাছে বিরক্তিকর বলে মনে হয় যা ''স্ল্যাজিং'' নামে পরিচিত।
 
== শীর্ষস্থানীয় টেস্ট উইকেট-রক্ষক ==